সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকতে হবে বললেন প্রধানমন্ত্রী (আপডেট)

dailysylhetnewslead_2016নিজস্ব প্রতিবেদক ::
পবিত্র সংবিধান এবং দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার জন্য আপনাদের ঐক্যবদ্ধ থেকে অভ্যন্তরীণ কিংবা বৈশ্বিক যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত থাকতে হবে। সিলেট জালালাবাদ সেনানিবাসে ১৭ পদাতিক ডিভিশনের সদর দফতর ১১ ব্রিগেডসহ ৮টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এ দেশের সম্পদ, দেশের মানুষের ভরসা ও বিশ্বাসের প্রতীক। তাই পেশাদারিত্বের গুণগত মান অর্জনের জন্য আপনাদের সকলকে পেশাগতভাবে দক্ষ, সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে সৎ এবং মঙ্গলময় জীবনের অধিকারী হতে হব। ২৩ নভেম্বর বুধবার সিলেট জালালাবাদ সেনানিবাসে পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের সরকার ক্ষমতায় আসার পর, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে প্রণীত প্রতিরক্ষা নীতিমালার আলোকে প্রণীত ফোর্সেস গোল-২০৩০- এর আওতায় তিন বাহিনী পুনর্গঠন ও আধুনিকায়নের কার্যক্রমসমূহ পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। প্রায় ১৪৮৪ একর জমিতে নতুন সেনানিবাস তৈরী হচ্ছে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী জালালাবাদ সেনানিবাসের অনুষ্ঠানস্থলে পৌছলে তাকে স্বাগত জানান, সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মো. শফিউল হক এবং ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল আনোয়ারুল মুমোন। তখন সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল তাকে সশস্ত্র সালাম ও অভিবাধন জানায়।

এরপর দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে তিনি সদর দফতর ১১ পদাতিক ব্রিগেড ও নয়টি ইউনিটের পতাকা উত্তোলন করেন। প্রধানমন্ত্রী ১টা ২০মিনিটে বক্তব্য শুরু করে প্রায় ১০ মিনিট বক্তব্য রাখেন। ২টা ২০মিনিটে তিনি প্রীতিভোজে অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পতাকা উত্তোলনকালে ও প্রীতিভোজে অংশ নেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সড়ক ও সেতু মন্ত্রী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, ভূমীমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, সাবেক মন্ত্রী ফারুক খান ও ডা. দিপু মণি।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য উপাধক্ষ্য আবদুস শহিদ, মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরী কয়েস, ইমরান আহমদ, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুবিদ আলী ভূইয়া এমপি, সিলেট আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, ময়মনসিংহ বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মিসবাই উদ্দিন সিরাজ, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট ২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, আসাদ উদ্দিন, সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আশফাক আহমদ, জেলা পরিষদের প্রশাসক এ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ.কে.এম. আবদুল মোমেন, সিলেট ইন্টারন্যাশনার ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর মনির উদ্দিন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন সেলিম প্রমুখ।

আওয়ামীলীগের জাতীয় কাউন্সিলের পর এবারই প্রথম সিলেট আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যা গোপালগঞ্জের পরই ঢাকার বাইরে প্রথম সফর। এ বছরে এটি তাঁর দ্বিতীয় সফর। এর আগে ২০১৬ সালের ২১ জানুয়ারি সিলেট সফর করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর ১৭ পদাতিক ডিভিশন প্রতিষ্ঠা করা হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: