সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ৩২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সামাজিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠায় একযোগে কাজ করবে ভারতের শীর্ষ ব্যবসায়ীরা

1479726535নিউজ ডেস্ক:: সামাজিক ব্যবসার ভারতীয় সংগঠন ‘ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ভারত’ ও ভারতের বিখ্যাত ‘টাটা ট্রাস্টস’ এর যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ‘ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক’।

শুক্রবার মুম্বাইয়ে এটি উদ্বোধন করা হয়। মহারাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী সুধির মানগান্তিওয়ার, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী দীপক ভাসান্ত কেশরকার এবং ভারতের নেতৃস্থানীয় কর্পোরেশনগুলোর প্রধান নির্বাহী ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ভারতীয় সামাজিক ব্যবসা ফোরাম চলাকালে ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংকের আনুষ্ঠানিক প্রতিষ্ঠা ঘোষণা করা হয়।

নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসের সামাজিক ব্যবসা তত্ত্ব বিশ্বব্যাপী প্রসারিত করার কাজে নিয়োজিত সংগঠন ইউনূস সামাজিক ব্যবসা ভারত।

পুষ্টি, স্বাস্থ্যসেবা, স্যানিটেশন ও গৃহায়নের মতো মৌলিক সামাজিক চাহিদাগুলো পূরণ এবং দরিদ্রদের সেবায় সৃজনশীলতাকে কাজে লাগাতে ভারতীয় কর্পোরেশনগুলো নিজেদের মতো করে এই উদ্যোগ নিলো। বৃহৎ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো কর্তৃক তাদের মৌলিক ব্যবসায়িক দক্ষতা ব্যবহার করে অভ্যন্তরীণ কর্পোরেট সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে আর্থিকভাবে টেকসই উপায়ে সমাজের বড় বড় সমস্যাগুলো মোকাবেলায় ভারতের প্রথম প্লাটফর্ম হিসেবে এই ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক প্রতিষ্ঠা করা হলো।

ইতোমধ্যে টাটা ট্রাস্ট, টাটা স্টীল, আরপিজি গ্রুপ, ড্যানোন ইন্ডিয়া এবং ভিওলিয়া ইন্ডিয়া যোগদান করেছে। যোগদানের অপেক্ষায় আছে আরো দশটি প্রতিষ্ঠান।

প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, ‘ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক একটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় আইডিয়া এবং এর ফলে ব্যবসা জগতে একটি সম্পূর্ণ নতুন ইকো-সিস্টেমের জন্ম হবে। ব্যক্তিগত মুনাফা-কেন্দ্রিক ব্যবসা মানুষের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যে সমান্তরালভাবে সামাজিক ব্যবসা সৃষ্টি করতে পারে- এই উদ্যোগ সেই বার্তাটিই দিচ্ছে। শীর্ষস্থানীয় ভারতীয় কর্পোরেশনগুলি ব্যবসায়ের মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যাগুলোর সমাধানের ব্যাপারে শুধুমাত্র আলোচনা করার উদ্দেশ্যেই একত্রিত হয়নি, বরং সামাজিক ব্যবসা পদ্ধতির মাধ্যমে সমস্যার প্রকৃত সমাধানের জন্য সক্রিয় হতে যাচ্ছে এটাই নতুন সংবাদ।’

তিনি বলেন, ‘এটি শুধুমাত্র ভারতের জন্যই নয়, বরং গোটা পৃথিবীর জন্য একটি ঐতিহাসিক মূহূর্ত। আমি ভারতীয় অ্যাকশন ট্যাংকের সর্বোত সাফল্য কামনা করি।’

টাটা ট্রাস্টসের হেড অব ইনোভেশন গনেশ নীলম বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি যে, কমিউনিটিকে সঙ্গে নিয়ে সুনির্দিষ্ট, উদ্ভাবনশীল ও প্রতিরূপ-নির্মাণযোগ্য কর্মকান্ডের মধ্যেই রয়েছে ভবিষ্যতের টেকসই উন্নয়ন। সমাজের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে কর্পোরেটগুলোর বর্ধিত মনোযোগের মধ্য দিয়ে ভারতীয় কর্পোরেট অ্যাকশন ট্যাংক সুবিধাবঞ্চিত কমিউনিটিগুলোর জীবনমান উন্নয়নে একটি কার্যকর হাতিয়ার হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসা তৈরীর কাজ করে যাবে।’

ফোরামের প্রধান অতিথি প্রফেসর ইউনূস অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য প্রদান করেন। ভারতের বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রায় ২০০ অংশগ্রহণকারী ফোরামে যোগ দেন। অন্যান্য যে সকল কোম্পানীর প্রতিনিধিরা এতে যোগ দেয় তাদের মধ্যে ছিল সডেক্সো ইন্ডিয়া, মাহিন্দ্র, ইউটিভি গ্রুপ, আরপিজি এন্টারপ্রাইজেস, অ্যাপোলো, ওকহাড্র্ট এবং টাটার কয়েকটি কোম্পানির প্রতিনিধিরা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: