সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘১০-১৫ পর্ব প্রচার হলে নাটক আর দর্শক দেখেন না’

41068_nova-picবিনোদন ডেস্ক:: দীর্ঘদিন ধরেই টিভি মাধ্যমের সঙ্গে নিজেকে আঁকড়ে রেখেছেন নোভা। কাজ করছেন অবিরাম গতিতে। প্রায় দিনই নতুন কোনো নাটকে অভিনয় করছেন নোভা। এ মুহূর্তে বেশ কিছু ধারাবাহিকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন তিনি। শুধু অভিনয়ই করছেন না নোভা। সঙ্গে বিজ্ঞাপন ও উপস্থাপনার কাজও চলছে তার। বর্তমানে যেসব ধারাবাহিকে তিনি অভিনয় করছেন সেগুলো হলো ‘তরুণ তুর্কি’, ‘বৃষ্টিদের বাড়ি’, ‘বারো ঘরের এক উঠান’, ‘দহন’, ‘বহুরুপী’সহ আরো কয়েকটি। ব্যস্ততা প্রসঙ্গে নোভা বলেন, এখন এসব ধারাবাহিকে অভিনয় করছি। আসছে নতুন বছরে আরো কয়েকটি প্রজেক্ট হাতে নেব। প্রচার চলতি ও নতুন সিরিয়ালগুলোর কাজ বেশ ভালো লেগেছে। ধারাবাহিকের কাজ ছাড়া সম্প্রতি কয়েকটি খণ্ড নাটকের কাজও করেছেন নোভা। অভিনয়ের সঙ্গে অনেকদিনের সম্পর্ক তার। খণ্ড ও ধারাবাহিক দুই ধরনের কাজই করছেন এই অভিনেত্রী। কোনটিতে বেশি সাচ্ছ্বন্দ্যবোধ করেন?

নোভা বলেন, আমি একজন অভিনয়শিল্পী। তাই সব ধরনের নাটকে কাজ করতে হয়। তবে খুব বেশি দুর্বলতার কথা যদি বলি, তাহলে বলবো খণ্ড নাটকেই বেশি সাচ্ছন্দ্যবোধ করি। কারণ, এর মধ্য দিয়ে স্বল্প সময়ে দর্শক বিনোদন দেয়া সম্ভব। আর ধারাবাহিকে আমরা অনেকেই কাজ করি। কিন্তু আসলে ব্যাপারটা হলো দর্শককে ধরে রাখা মুশকিল। দেখা যায়, ১০-১৫ পর্ব প্রচার হলে নাটক আর দর্শক দেখেন না। গল্প থাকে না। এক কথায় গল্প ঝুলে যায়। ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন এমন অনেক শিল্পীর মুখেও এ ধরনের কথা শোনা গেছে। গল্প ঝুলে যায়। কিন্তু ঠিক কোন করণে এমনটা হয়? উত্তরে নোভা বলেন, এর অন্যতম কারণ হলো, যে চরিত্রটি নাটকে দেখানো হচ্ছে সেটা ঠিক রাখতে পারেন না নির্মাতা। যাকে দিয়ে ওই চরিত্রে অভিনয় করানো হচ্ছে তার সিডিউল নিয়ে ঝামেলা পাকে। এক পর্যায়ে শিল্পী পরিবর্তন করা হয়। কিংবা চিত্রনাট্যে পরিবর্তন আসে। তখনই এলোমেলো একটা গল্প দর্শকের সামনে উপস্থাপন করা হয়। আর তা নিয়ে নানারকম ঝামেলার সৃষ্টি হয়। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণা তো রয়েছেই। অতিমাত্রায় বিজ্ঞাপন প্রচার হয় বলে দর্শক চ্যানেল পরিবর্তন করতে বাধ্য হচ্ছেন। সমস্যার কথা তো বললেন নোভা। সে সঙ্গে সমাধানের পথও দেখালেন।

নোভা বলেন, আমি একজন অভিনয়শিল্পী বা দর্শকের জায়গা থেকে যদি বলি, যেসব জায়গায় প্রবলেম দেখা যাচ্ছে সেটা নিয়ে সবার বসা উচিত। বিশেষত বিজ্ঞাপনের ব্যাপারটি। আমরা ভারতীয় চ্যানেলে দোষ দিই অনেকে। কিন্তু তাদের তো কোনো দোষ নেই। আমরা নিজেরা যদি বিজ্ঞাপন নিয়ন্ত্রণে রেখে নাটক প্রচার করি তাহলে তো দর্শক আমাদের নাটকই দেখবেন। দেখুন, বিজ্ঞপন ও অনুষ্ঠান একটি আরেকটির পরিপূরক। নাটক বা অনুষ্ঠান যদি টিভি চ্যানেলের ইঞ্জিন হয় তাহলে বিজ্ঞাপন হলো ফুয়েল। তাই এই দুটোর ভারসাম্য দরকার। এটা যদি সম্ভব হয় তাহলে সমাধান আসবে। ক্যারিয়ার শুরু থেকে অনেক বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেছেন নোভা। কিন্তু সর্বশেষ ২০১১ সালে বাংলাদেশ মেলামাইনের বিজ্ঞাপনেই দেখা গেছে তাকে। অবশ্য ৫ বছর পর আবারো নিয়মিত হয়েছেন নোভা। সম্প্রতি ধ্রুব হাসানের নির্দেশনায় একটি খাদ্য পণ্যের বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজ করেছেন তিনি।

নতুন এ কাজ প্রসঙ্গে নোভা বলেন, কয়েকটা বছর পেরিয়ে গেছে কোনো বিজ্ঞাপনে কাজ করি না। ২০১১ সালে সর্বশেষ করেছিলাম। আমার অনেক পরিচিতজন জিজ্ঞাসা করছিলেন বিজ্ঞাপনে উপস্থিতি নেই কেন। আসলে ভালো মানের কোনো কাজের প্রস্তাব আসেনি বলেই কিন্তু এতদিন কাজ থেকে বিরত ছিলাম। শুধু অভিনয়ের মধ্যেই নিজেকে ব্যস্ত রেখেছি। এ বিজ্ঞাপনটির কাজ বেশ ভালো লেগেছে। বিশেষ করে কনসেপ্টটা অসাধারণ ছিল। আশা করছি দর্শকেরও ভালো লাগবে। অভিনয় ও মডেলিংয়ের পাশাপাশি বর্তমানে উপস্থাপনাও করছেন নোভা। বাংলাভিশনের রূপচর্চা বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘সৌন্দর্যকথা’র সঞ্চালনার কাজ করে আসছেন অনেকদিন থেকে। তবে এরই মধ্যে নতুন আরেকটি অন্ষ্ঠুানে কাজ করার ব্যাপারে কথা হয়েছে বলে জানান নোভা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: