সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৪০ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভারতে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে নিহত ৯৬, আহত ১৫০

41060_leadআন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতের কানপুরে একটি ট্রেনের কমপক্ষে ১৪টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে কমপক্ষে ৯৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দেড় শতাধিক। তাদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ফলে নিহতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে কানপুর থেকে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে পুখরায়ানের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় পাটনা থেকে ইন্দোরে যাচ্ছিল এক্সপ্রেস ট্রেনটি। প্রাণহানীতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সহ বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি, বেসরকারি ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মী। নিহতদের জনপ্রতি ২ লাখ রুপি করে ও আহতদের জনপ্রতি ৫০ হাজার রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া, এনডিটিভি, জি নিউজ। ঘটনাস্থলে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়েছে। নিহত ও আহতদের রক্তে সয়লাব চারদিক। তার মধ্যে এখানে ওখানে পড়ে ছিল তাদের ছিন্নভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গ। সকালে ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে ছুটে যান স্থানীয় লোকজন ও সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের লোকজন। কানপুরের আইজি জাকির আহমেদ বার্তা সংস্থা এএনআই’কে বলেছেন, নিহতের সংখ্যা ৬৩। রেল কর্মকর্তারা বলছেন, উদ্ধার অভিযান চলছে। ফলে নিহতের এ সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আইজি জাকির আহমেদ বলেছেন, দেড় শতাধিক মানুষকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সব হাসপাতালকে এলার্ট করা হয়েছে। কমপক্ষে ৩০টি এম্বুলেন্স জরুরি উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে। আড়াই শতাধিক পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারী উদ্ধার অভিযান ও ত্রাণ তৎপরতায় অংশ নিয়েছেন। রেল মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনীল সাক্সেনা বলেছেন, আহত কিছু মানুষকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নিহতের সঙখ্যা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। নর্দান সেন্ট্রাল রেলওয়ের মুখপাত্র বিজয় কুমার বলেছেন, চিকিৎসক ও রেলওয়ের সিনিয়র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। জেলা প্রশাসন ও রেলওয়ে কর্মকর্তারা উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। কি কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায় নি। তবে বিভিন্ন সূত্র বলেছেন, দুর্ঘটনার প্রকৃতি ও সময় দেখে মনে হচ্ছে রেল লাইনের ত্রুটির কারণে এমনটা হয়ে থাকতে পারে। তবে অনুসন্ধানের পর এর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। ওদিকে ট্রেনটির আরোহীরা যাতে তাদের গন্তব্যে সময়মতো পৌঁছাতে পারেন সে জন্য প্রেষণে ব্যবহার করা হচ্ছে বাস। বিজয় কুমার বলেছেন, এ দুর্ঠচনায় এস ২ বগিটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। চারটি এসি বগিও লাইনচ্যুত হয়েছে। এ সংক্রান্ত সহায়তার জন্য রেলওয়ে বেশ কয়েকটি হেলপলাইন খুলেছে। জরুরি প্রয়োজনে এসব নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এগুলো হলো ইন্দোর-০৭৪১১০৭২, উজ্জয়ন-০৭৩৪২৫৬০৯০৬, রাতলাম-০৭৪১২১০৭২, ওরাই-০৫১৬২১০৭২, ঝাঁসি-০৫১০১০৭২ ও পোখরায়া-০৫১১৩২৭০২৩৯। এ দুর্ঘটনায় গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি টুইটে বলেছেন, পাটনা-ইন্দোর এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত হয়ে যেসব প্রাণহানী ঘটেঠে তার বেদনা জানানোর ভাষা নেই। শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আমার সমবেদনা। যারা আহত হয়েছেন তাদের জন্য আমার প্রার্থনা। আমি এরই মধ্যে (রেলমন্ত্রী) সুরেশ প্রভুর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি নিবিড়ভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। ওদিকে রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু তার টুইটে বলেছেন, এরই মধ্যে এ দুর্ঘটনায় তদন্ত করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যারা এতে দায়ী বলে বিবেচিত হবে তাদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে কঠোর শাস্তিমুলক ব্যবস্থা। তিনি টুইটে বলেছেন, সিনিয়র কর্মকর্তাদের তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে যেতে নির্দেশ দেয়া হেেছ। স্থানীয় এমপিরা, এমএলএ সহ অন্যরা দ্রুততার সঙ্গে ছুটে গেছেন ঘটনাস্থলে। যেসব যাত্রী প্রাণ হারিয়েছেন তাদের জন্য ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। ক্ষতিপূরণ পাবেন আহতরাও। ওদিকে এত মানুষের হতাহতের ঘটনায় গভীর দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: