সর্বশেষ আপডেট : ৪৪ মিনিট ২৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছেলে পরীক্ষার্থী, বাবা কেন্দ্রের হল সুপার, অবশেষে…

full_235507556_1479200044নিউজ ডেস্ক:: বাবা আবুল কাশেম যে কেন্দ্রের হল সুপার, ছেলে শামীম আহম্মেদ ওই কেন্দ্রেই জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে এলে মঙ্গলবার পরীক্ষা শুরু হবার ১০ মিনিট পরই কেন্দ্র থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় বাবা আবুল কাশেমকে।

বাবা আবুল কাশেম হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার রান্ধুনীমুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার ছেলে শামীম আহম্মেদ আল-কাউছার স্কুলে পড়ালেখা করলেও জেএসসি পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন করেছেন পিরোজপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে। এতে বাবা পরীক্ষক আর ছেলে পরীক্ষার্থী হিসেবে একই কেন্দ্রে পড়ে।

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ ছাদেক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা বিধিমালানুযায়ী কোন পরীক্ষার্থীর নিকটাত্মীয় থাকলে ওই কেন্দ্রে বা হলের দায়িত্বে থাকা যাবে না। বাবা-ছেলে একই পরীক্ষাকেন্দ্র থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বাবা আবুল কাশেমকে অব্যহতি দেয়া হয়েছে।’

জানতে চাইলে কেন্দ্র সচিব আবদুল মালেক পাটওয়ারী বলেন, বাবা-ছেলের বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। এখানে আমিন মেমোরিয়াল, পিরোজপুর, প্যরাপুর, রান্ধুনীমুড়া ও সপ্তগ্রাম স্কুলের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিচ্ছে।

পরীক্ষাকেন্দ্রের সূত্রে জানা গেছে, জেএসসি পরীক্ষার্থী শামীম আহম্মেদ ১৭ নম্বর হলের পূর্ব সারির ৪র্থ বেঞ্চে বসে পরীক্ষা দিচ্ছে। তার বাবা আবুল কাশেম কেন্দ্রের হল সুপার হলেও সবসময় ছেলের কাছে গিয়ে পরীক্ষায় সহযোগিতা করার অভিযোগ উঠে।

শামীম আহম্মেদ তার ছেলে স্বীকার করলেও অব্যহতি পাওয়া প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম মুঠোফোনে আর কিছু বলতে চাননি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: