সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিসিসি সিলেট সেন্টারের ডিআইসিটি-২৫তম ব্যাচের কোর্স সমাপনী

unnamedগণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের আওতাধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি), সিলেট সেন্টারে ডিপ্লোমা ইন আইসিটি (ডিআইসিটি) ২৫তম ব্যাচের কোর্স সমাপনী অনুষ্ঠান সোমবার সেন্টারের ১নং ল্যাবে অনুষ্ঠিত হয়। এই ব্যাচ থেকে মোট ২০ জন প্রশিক্ষণার্থী কোর্স সম্পন্ন করেন।

দুপুরে প্রীতিভোজ শেষে বিকেল ৪টায় ২৫তম ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থী মো. শাহেদ আহমদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে পবিত্র কুরআন থেকে তিলাওয়াত করেন ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থী মো. জিল্লুর রহমান। অনুষ্ঠানে বিসিসির কর্মচারী ও ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থীদের পাশাপাশি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রশিক্ষক, সেন্টার ইনচার্জ ও প্রোগ্রামার মধুসূদন চন্দ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রশিক্ষক ও সহকারী প্রোগ্রামার অলিউল্লাহ আহম্মেদ এবং অতিথি প্রশিক্ষক এইচ এম শোয়েব হোসেন। প্রধান অতিথি সবাইকে সাথে নিয়ে কোর্স সমাপনীর কেক কাটেন।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থী এস এম সাইদুর রহমান সাগর। তিনি বলেন, সরকারি এমন সুন্দর পরিপাটি প্রতিষ্ঠান আর কোথাও নেই। তিনি সুন্দর প্রশিক্ষণ পদ্ধতির জন্য বিসিসি সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

বিশেষ অতিথি এইচ এম শোয়েব হোসেন তাঁর বক্তব্যে বলেন, আকাশকে ছোঁয়াও যে অসম্ভব নয় এটা আমরা বিসিসির কাছ থেকে শিখতে পেরেছি।

বিশেষ অতিথি অলিউল্লাহ আহম্মেদ তাঁর বক্তব্যে বিসিসি, সিলেট সেন্টারের প্রতি প্রধান অতিথি মধুসূদন চন্দের অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, বিসিসি এতো সুন্দর কারণ এখানে মধুসূদন স্যার আছেন। সব সরকারি প্রতিষ্ঠানে মধুসূদন স্যারের মতো প্রধান নেই বলেই সেগুলোর কার্যক্রম এতোটা আশাব্যঞ্জক নয়। তিনি বিসিসির পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণার্থীদের সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

প্রধান অতিথি মধুসূদন চন্দ তাঁর সমাপনী বক্তব্যে ব্যাচের সকল প্রশিক্ষণার্থীকে ডিপ্লোমা কোর্স সম্পন্ন করার জন্য ও একটি সুন্দর সমাপনী অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়ে তাঁদের পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে দিক নির্দেশনা দেন। বর্তমান যুগে আইসিটির গুরুত্ব উল্লেখ করে তিনি বলেন, আপনারা এখান থেকে যা অর্জন করেছেন, তা বাইরে ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করুন। তিনি আরও বলেন, বিসিসির আজকের অবস্থানের জন্য শুধু তাঁর একার অবদান নেই, এই কৃতিত্বের হকদার তাঁর সহকর্মী ও প্রশিক্ষণার্থীরাও। তিনি বিসিসি নিয়ে যেকোন ভালো আইডিয়া থাকলে তাঁর সাথে শেয়ার করার জন্য প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। ডিআইসিটি-২৫তম ব্যাচকে সেরা পাঁচটি ব্যাচের একটি উল্লেখ করে যেকোন প্রয়োজনে তাঁদেরকে সহযোগিতার আশ্বাস দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন ব্যাচের প্রশিক্ষণার্থী তান্নি বেগম, জাকিয়া নাসরিন ও শাহিনা বেগম। প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে অতিথিদেরকে শুভেচ্ছা উপহার দেয়া হয়। প্রশিক্ষণার্থীদের হাতেও শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য দেন কোর্সে ১ম স্থান অর্জনকারী প্রশিক্ষণার্থী হিজবুল্লাহ সিকদার। কোর্সে যৌথভাবে ২য় স্থান অর্জন করেন আলমগীর হোসেন, এস এম সাইদুর রহমান সাগর ও মাহবুব শাহরিয়ার। ৩য় স্থান অর্জন করেন মো. মোহাইমিনুল ইসলাম নাবিল।

উল্লেখ্য, গত ২৬ এপ্রিল থেকে ২৫তম ব্যাচের ছয় মাস মেয়াদী এ ডিপ্লোমা কোর্সের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হয়। কোর্সের প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন মধুসূদন চন্দ, অলিউল্লাহ আহম্মেদ, এইচ এম শোয়েব হোসেন ও সীমা সুলতানা। ব্যাচের কোর্স সম্পন্নকারী প্রশিক্ষণার্থীরা হলেন- আবুল হাসান, তান্নি বেগম, শাহিনা বেগম, মোহাম্মদ শাহীন রেজা, আলমগীর হোসেন, মাহবুব শাহরিয়ার, বিপ্লব কুমার দেব, জাকিয়া নাসরিন, মো. জিল্লুর রহমান, কায়সার মিয়া, মো. শাহেদ আহমদ, এহসান আহমেদ চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম, মারুফ আহমদ, মো. মোহাইমিনুল ইসলাম নাবিল, হিজবুল্লাহ সিকদার, এস এম সাইদুর রহমান সাগর, ফাহিমুল ইসলাম, মাহবুব আবদুল্লাহ্ এবং মো. আব্দুর রহমান তানভীর।-বিজ্ঞপ্তি

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: