সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নন্দিত প্রহরে

1478763698বিনোদন ডেস্ক:: বাংলা সাহিত্যে মাস্টার্স করছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা বিদ্যা সিন্হা সাহা মিম। রাজধানীর একটি প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিতে পড়ছেন তিনি। ছোটপর্দা থেকে একধরনের বিদায়ই নিয়েছেন মিম। রুপালি পর্দা ছাড়া আপাতত দেখা মিলছেন না তার। আজ তার জন্মদিন। জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে মিমের নন্দিত প্রহরের নানা বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলে বিশেষ এই আয়োজন।

যেন চোখের পলকেই কেটে গেছে মিডিয়াতে মিমের নয়টি বছর। এরমধ্যে নানা উত্থান-পতন এসেছে তার জীবনে। শেষ পর্যন্ত সাফল্য এসে ছুঁয়েছে তার জীবন। সেই সাফল্যে হেসেছেন মিম, আবার কেঁদেছেনও। রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে যখন মেধাবী অভিনেত্রী হিসেবে স্বীকৃতি মিলেছে, তখন খুশিতে আত্মহারা হয়ে কেঁদেছেন মিম। আবার এই চলচ্চিত্র কিংবা ওই চলচ্চিত্রে অভিনয়ে মুগ্ধ হয়ে যখন দর্শকেরা তার প্রশংসা করেছেন, তখন মিমও আনন্দিত হয়েছেন।

যেন নয়টি বছরই ছিল হাসি আর আনন্দের ছড়াছড়ি। অভিনয়ের জন্য কখনো দেশের এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে, আবার কখনো দেশের বাইরে ছুটে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু মনের ভিতর সবসময়ই দেশের মাটির প্রতিই টান ছিল তার। রাজশাহীর মেয়ে মিমের বেড়ে ওঠা কুমিল্লায়। তাই তার যত মধুর স্মৃতি সবই যেন কুমিল্লাকে ঘিরে। তবে জীবনের সেরা জন্মদিনের স্মৃতি ছিল ‘পদ্ম পাতার জল’ সিনেমার মুক্তির কয়েকদিন আগে। সেই জন্মদিনটি মিম এতিম-অসহায় বাচ্চাদের সঙ্গে উদযাপন করেছিলেন।

মিম বলেন, ‘এতিম-অসহায় বাচ্চাদের নিয়ে উদযাপন করা দিনটি এখন পর্যন্ত আমার জীবনের সেরা জন্মদিন। খুব কাছে থেকে ওদের জীবনকে সেদিন দেখেছি। কিছুটা সময়ের জন্য তাদের মধ্যে হারিয়ে গিয়েছিলাম। এক অন্যরকম সময় কাটিয়েছিলাম। সত্যি বলতে কী, একজন মানুষের জীবনকে উপলব্ধি করার জন্য মাঝে মাঝে তার চলার পথের বাইরে গিয়েও নতুনভাবে দেখার চেষ্টা করা উচিত।’

প্রশ্ন রাখি, এবারের জন্মদিনে কোনো পরিকল্পনা আছে কি? মিম জানালেন, সাধারণত তিনি এই বিশেষ দিনটি পরিবারের সঙ্গে কাটাতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। তবে আজ চ্যানেল আই ও আরটিভির দুটি লাইভ শোতে অংশ নিবেন তিনি। একটি ‘তারকা কথন’, অন্যটি ‘তারকালাপ’।

দুটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে তিনি রাজধানীর নিকেতনে তার বাসায় ফিরে যাবেন। সেখানেই বাবা-মা, বোনের সঙ্গে সময় কাটাবেন। লন্ডনে ‘পিউ’ নামের এক বোন থাকেন মিমের। সাধারণত জন্মদিনে সবার আগে মিমকে তিনিই জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে থাকেন। তবে জন্মদিনের প্রথম প্রহর পরিবারের সঙ্গেই কাটান মিম। বিগত ক’টা দিন মিম ব্যস্ত ছিলেন সৈকত নাসির পরিচালিত ‘পাষাণ’ চলচ্চিত্রের শুটিং নিয়ে। এতে তার বিপরীতে আছেন ওম। তবে চলতি সপ্তাহে তিনি কাতারে একটি শোতে অংশ নিতে গিয়েছিলেন। প্রয়াত চলচ্চিত্র পরিচালক খালিদ মাহমুদ মিঠু পরিচালিত ‘জোনাকির আলো’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন মিম। অভিনয়জীবনের সেরা রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি এটাই তার। তবে দর্শকের ভালোলোগা, ভালোবাসাই সেরা পুরস্কার হিসেবে বিবেচনা করেন তিনি। মিম বলেন, ‘২০০৭ সাল থেকে আমি কাজ করে আসছি নিয়মিত। বিজ্ঞাপন, নাটক, টেলিফিল্ম ও চলচ্চিত্রে কাজ করে আসছি ধারাবাহিকভাবে। দর্শক যদি আমার প্রতিটি কাজে অনুপ্রেরণা না দিতেন তাহলে এত দূর আসা হতো না। দর্শক উত্সাহ দিয়েছিলেন বলেই সাহস পেয়েছি, কাজ করেছি নিষ্ঠার সঙ্গে।

দর্শকের ভালোবাসা নিয়েই আগামীর পথ নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’ রাজধানীর সাউথ-ইস্ট ইউনিভার্সিটি থেকে বাংলা সাহিত্যে মাস্টার্স করছেন বিদ্যা সিনহা মিম। এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গত জানুয়ারিতে তিনি অনার্স শেষ করেছেন একই বিষয়ে। মিম অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রগুলো হলো জাকির হোসেন রাজুর ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’, মোস্তফা কামাল রাজের ‘তারকাঁটা’, খালিদ মাহমুদ মিঠুর ‘জোনাকির আলো’, তন্ময় তানসেনের ‘পদ্ম পাতার জল’, ওয়াজেদ আলী সুমনের ‘সুইটহার্ট’ ও ‘ব্ল্যাক’।

এরমধ্যে চলতি সপ্তাহে সেন্সর সনদপত্র পেয়েছে মিম অভিনীত অনন্য মামুন পরিচালিত ‘আমি তোমার হতে চাই’ চলচ্চিত্রটি। এতে মিমের বিপরীতে আছেন বাপ্পী সাহা। ছোটপর্দায় বিগত তিন বছর যাবত অনিয়মিতই হয়ে পড়েছেন মিম। সর্বশেষ গত ঈদুল ফিতরে দর্শকের বিশেষ অনুরোধে মিম তাহসানের বিপরীতে ‘সেই মেয়েটা’ টেলিফিল্মে অভিনয় করেন। এটি নির্মাণ করেছিলেন মিজানুর রহমান আরিয়ান।

চলতি সপ্তাহে নতুন নতুন চলচ্চিত্রে কাজ করার প্রস্তাবও এসেছে মিমের কাছে। মিম সময় নিয়ে সেসব চলচ্চিত্রের গল্প শুনছেন, ভাবছেন। কী করবেন না করবেন, তা একটু সময় নিয়ে ভেবে জানাবেন। মিম প্রতিটি কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ার আগে যথেষ্ট ভাবেন। অনেক ভাবনার পরই তিনি কাজ শুরু করেন। যে কারণে প্রতিটি কাজে তার শৈল্পিক উপস্থাপনা দর্শককে বারবার মুগ্ধ করে। আর এভাবেই তিনি হয়ে উঠেছেন আমাদের রুপালি জগতের মিম। বীরেন্দ্র নাথ সাহা ও ছবি সাহার বড় মেয়ে মিমের আগামী দিনের সাফল্য কামনায় জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: