সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হিন্দুদের প্রতি আপনার সহানুভূতি প্রয়োজন

b-baria-nasirnagarমিহির রঞ্জন তালুকদার:: দেশ স্বাধীন হয়েছে আজ প্রায় ৪৭ বছর। কিন্তু দেশের হিন্দু সম্প্রদায় এখনও স্বাধীন হতে পারেনি। শুধুমাত্র হিন্দু হওয়ার কারনে অন্য ৮-১০জন নিবন্ধকারের মত স্বাধীনতার সহিত কলম ধরতে পারিনি। সর্বদাই মনে উৎকন্ঠা বিরাজ করে আমার এ লেখা আমাকে কতটুকু নিরাপদ রাখবে? মনে ভেতর এমন আশঙ্কা রেখে কী নিজেকে স্বাধীন দেশের নাগরিক ভাবা যায়? কার্যত আমরা স্বাধীন নই কারন আমরা হিন্দু! স্বাধীন দেশের নির্যাতিত, নিপীড়িত সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠী। আমাদের নিজেদের অধিকারের কথা বলতে নেই। আমরা আমাদের নিরাপত্তার কথা করো কাছে চাইতে পারি না। আমাদের সে অধিকার নেই। কিন্তু নিরাপত্তার অনুরুধ‘ত করতেই পারি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে গত ৩০ আক্টোবরের নারকীয় হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় যখন সারাদেশ হতবম্ভ হয়েগিয়েছিল, সারাদেশে প্রতিবাদের জড় উঠেছিল এর মধ্যেই আবারও এরকম অত্যাচার হওয়াটা খুব স্বাভাবিক নয়। প্রথম ঘটনার পর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী থাকা সত্বেও এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি একটি দেশের, একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের সুশাসন প্রশ্নবিদ্ধ। এর চেয়ে বেশি কিছু বলা আমার পক্ষে সমীচীন নয়। কারন আমাকেও মনে রাখতে হবে আমি একজন হিন্দু। সংখ্যালঘু।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাত্র কয়েকদিন আগে আপনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। উৎসব মূখর পরিবেশে হয়ে গেল এই সম্মেলন। আপনার দূরদর্শী নেতৃত্বের উদাহরণ হয়ে থাকবে এই সম্মেললন। বিশেষ করে একজন দক্ষ তুকুর নেতা যে অফলাইন কি অনলাইন দুজায়গাতেই সর্বদা নিজেকে কর্মক্ষম রেখেছে, মন্ত্রীত্বে সফলতার পরিচয় দিয়েছে, জনগণের আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটিয়েছে সেই মন্ত্রী অবায়দুল কাদেরকে আপনি দলের সাধারন সম্পাদক পদে ভূষিত করেছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের বিজয়ের আনন্দে আপনিও আনন্দিত হয়েছেন এমনকি মিরাজের জন্য একটি বাড়ি নির্মানের ঘোষনাও দিয়েছেন। এ আপনার মহানুভবতার বহি:প্রকাশ। আপনার দৃষ্টি থেকে বাদ পড়েনি শিশু পুজা কিংবা খাদিজার নির্যাতনের কথাও, তাদের প্রতি আপনি যথেষ্ট সহানুভূতি দেখিয়েছেনও। এমনি তৃতীয শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রের আবেদনেও আপনি সাড়া দেন নির্লিপ্তভাবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত ৩০ আক্টোবর রবিবার ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুদের উপর বর্বোরচিত যে আক্রমন হয়েছে তা ৭১ এর গণহত্যাকেও হার মানায়। সংবাদপত্রগুলো এ নিয়ে সংবাদপ্রকাশসহ সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে বিভিন্ন সুশিল ব্যক্তিবর্গ এ নিয়ে নিবন্ধন-কলাম লিখছে নিয়মিত। এ বিষয়ে নিশ্চই আপনি অজ্ঞাত নন। বাংলাদেধের হিন্দুরা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করে আপনি তাদের অভিভাবক, সুখ-দু:খের কান্ডারি আপনার আশ্রয় ব্যতিত বাংলাদেশে হিন্দুদের বসবাস অকল্পনীয়। কিন্তু আপনার নিরবতা আমাদের অসহায়ত্বকে বাড়িয়ে দিয়েছে। হিন্দুদের প্রতি আপনার যদি কোনো গোপনীয় ক্ষোভ থাকে তাহলে নিতান্তই আপনার ভ্রান্তি।
আপনি রাজমাতা। আপনার কাছে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান কোন ভেদাবেদ নেই। নদীর প্রবাহ নদীর মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। কিন্তু তার জল অনেক দূর পর্যন্ত পৌছায়। আপনি রাজমাতার জীবনও অনেকটা সেরকম। আপনি থাকবেন আপনার পরিবারে মাজে কিন্তু আপনার স্নেহ, প্রীতি, ভালবাসা যদি রাষ্ট্রের সবার নিকট সমভাবে না পৌছায় তাহলে ব্যর্থই আপনার ক্ষমতা, আপনার জীবন।
রাজমাতা, আপনি আমাদের রক্ষা করুন। আপনার সন্তাদের প্রতি বিমাতাসূলভ আচরন যেন না হয় আমরা আপনার নিকট সেই প্রত্যাশাই করি। আমরা আপনার
সন্তানেরমত। আপনার স্নেহ, ভালবাসার ছায়াতলেই আমরা বেঁচে থাকতে চাই। আপনি আমাদের জন্য উদ্যোগ নিন। আপনার নেতৃবৃন্দদের নাটকের সংলাপ বলতে বারন করুন।

লেখক: প্রভাষক-বালাগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ,বালাগঞ্জ,সিলেট।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: