সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৫ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জামালগঞ্জে নয়াহালট প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদানের পরির্বতে মিছিল

jamalganj-1হাবিবুর রহমান, জামালগঞ্জ:: জামালগঞ্জের নয়াহালট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদানের পরির্বতে মিছিল বের করে চলছে রাজনীতির চর্চা। গেল কয়েকদিন ধরে বিদ্যালয়ে পাঠদান রেখে চলছে গ্রুপিং লবিং। গত ১লা নভেম্বর নয়াহালট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফফার ৫ম শ্রেনীর দুজন ছাত্রকে পিঠিয়ে আহত করেন। আহত ছাত্রদের অভিভাবক আবু আলা রনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বরাবরে লিখিত অভিযোগ প্রদান করলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব প্রদান করা হয়। ঘটনার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল আলম ভুইয়া,সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মীর আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত করে পরদিন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। তদন্ত প্রতিবেদন চলাকালে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি আবুল কালাম সহ মোট ৭ জন সদস্য স্বাক্ষরিত আরেকটি অনুলিপি প্রদান করেন। অনুলিপিতে তারা দ্রুত প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয় থেকে অপসারন করার দাবীও জানান। ঘটনার কদিন যেতে না যেতেই বিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে আবারো রাজণীতি শুরু হয়েছে। এর জের ধরে প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফফারের পক্ষে তাকে নয়াহালট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বহাল রাখার দাবীতে গ্রামবাসীর ব্যানারে অভিভাবক সহ বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ক্লাস বন্ধ রেখে মিছিলে অংশ নিয়ে উপজেলা পরিষদের গেইটে অবস্থান নেন। ঘটনার পর থেকে উপজেলা সদরে সুশীল সমাজ ও সাধারন মানুষের মধ্যে প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। উপজেলা সদরের অনেকেই মনে করেন শিক্ষক ছাত্রদের পেঠালেন আবার শিক্ষককেরই পক্ষে তাকে বাচাতে কিছু মানুষ সাফাই গাইছেন।

এ মিছিলের ব্যপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল গাফফার বলেন,মিছিলের ব্যপারে আমি কিছুই জানিনা, আমি ছুটিতে আছি তবে শুনেছি আমার পক্ষে স্কুলের বর্তমান ও পুরাতন শিক্ষাথীরা মিছিল নিয়ে এসেছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: নূরুল আলম ভুইয়া বলেন, ছাত্র পেটানোর অভিযোগের তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেছে, গেল সপ্তাহে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার বরাবরে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। আজকে ছাত্রদের দিয়ে মিছিল করানোর জন্য তাকে কৈফিয়ত তলব করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হজরত আলী ৫.৩০ মিনিটে যুগান্তরকে বলেন, জামালগঞ্জের নয়াহালট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দুজন ছাত্রকে পেঠানোর ঘটনাটি অত্যান্ত দু:খজনক। আমি প্রতিবেদন পেয়েছি। ছাত্রদের দিয়ে মিছিল করানোর বিষয়টিও আমাকে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জানিয়েছে। অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে সুপারিশ করেছি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: