সর্বশেষ আপডেট : ৪২ মিনিট ১৩ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তিনটি সংগঠন আনুষ্ঠানিকভাবে নিষিদ্ধ করলো প্রসূন আজাদকে

full_1347485335_1478271562বিনোদন ডেস্ক: এমনই আভাস পাওয়া যাচ্ছিলো। শুটিং ইউনিটে কথা-কাটাকাটি, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ, অভিযোগ দাখিল, গণমাধ্যমের সংবাদ—সবকিছুর অবসান হলো এক বছরের নিষিদ্ধ হওয়ার মধ্য দিয়ে। অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে তিনটি সংগঠন একযোগে নিষিদ্ধ করল অভিনয়শিল্পী প্রসূন আজাদকে।

বৃহস্পতিবার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া গেছে এ তথ্য। যদিও আগেই প্রসূনের নিষিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে আগাম সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছিলো। তবে এবার ডিরেক্টরস গিল্ডের সাথে একাত্নতা প্রকাশ করে এ পদক্ষেপে সাড়া দিয়েছে আরো দু’টি প্রধান সংগঠন।

ডিরেক্টরস গিল্ডের পক্ষ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তিনটি সংগঠনের প্রধান ব্যক্তিদের স্বাক্ষর রয়েছে। ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি গাজী রাকায়েত, সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক, টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মামুনুর রশীদ ও সাধারণ সম্পাদক মনোয়ার পাঠান, অভিনয়শিল্পী সংঘের আহসান হাবীব নাসিমের স্বাক্ষর রয়েছে। নিশ্চিত হওয়া গেছে এই তিন সংগঠন মিলে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বলে রাখা ভালো, ‘স্বপ্ন সত্যি হতে পারে’ নামের একটি নাটকের শুটিংকে কেন্দ্র করে নির্মাতা ও প্রযোজক রোকেয়া প্রাচীর সঙ্গে অভিনেত্রী প্রসূন আজাদের কথা-কাটাকাটি হয়। পরে দুজনই পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

এর জের ধরে প্রসূন আজাদের বিরুদ্ধে ১৯ অক্টোবর রোকেয়া প্রাচী অভিযোগ করেন নাটকের তিন সংগঠনের কাছে। তারপরই কারণ দর্শানোর নোটিশ যায় প্রসূন আজাদের কাছে। তিন দিনের মধ্যে চিঠির জবাব দিতে বলা হলেও প্রসূন কোনো জবাব দেননি। তারপরই তিন সংগঠন মিলে এ সিদ্ধান্ত নিলো।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: