সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৩২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটের আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে আলোচিত নাম অধ্যাপক রফিকুর রহমান

14502856_10205551460745074_4882531744196048573_nমো.মোস্তাফিজুর রহমানঃ সিলেটে আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে আলোচিত নাম অধ্যাপক রফিকুর রহমান। তিনি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি এখন আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু। আলোচিত নেতাদের পিছনে ফেলে কিভাবে কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেলেন তা চমকে দিয়েছে মৌলভীবাজার জেলাসহ গোটা সিলেটের আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর ২০তম জাতীয় কাউন্সিলে কেন্দ্রীয় কমিটিতে তৃনমুলের যে কজন নেতা স্থান পেয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন আলহাজ্ব অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান। অনেকেই হতবাক। জেলা ছাড়া তেমন পরিচিত নয় অধ্যাপক রফিকুর রহমান। এমন কল্পনা কেউ কখনো করেনি। কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনা ঠিকই ত্যাগী, পরীক্ষিত অধ্যাপক রফিকুর রহমানকে ৮১ সদস্যের একজন হিসাবে বেছে নিয়েছেন। রফিকুর রহমান এর রয়েছে বর্নাঢ্য রাজনৈতিক জীবন।

তিনি ১৯৫২ সালের ১ জানুয়ারী কমলগঞ্জ উপজেলার সে সময়ের আলীনগর ইউনিয়নের বর্তমান কমলগঞ্জ পৌর এলাকার নসরতপুর গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তার বাবার নাম মরহুম তেরা মিয়া। মায়ের নাম মৃত জমিলা খাতুন। কমলগঞ্জ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা জীবন শেষে কমলগঞ্জ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, সিলেট মদনমোহন কলেজ থেকে এইচএসসি ও বিএ উত্তীর্ন হন। পরে চট্রগাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম,কম সম্পন্ন করেন। সিলেটে ছাত্রস্থায় মো.রফিকুর রহমান রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন। ১৯৬৭ সালে সিলেট মদনমোহন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। পরের বছর ১৯৬৮ সালে সিলেট সদর মহকুমা ছাত্রলীগ এর সভাপতির দায়িত্ব নেন। ছাত্রনেতা হিসেবে অংশগ্রহন করেন ১৯৬৬ সালের ৬ দফা আন্দোলনে। বঙ্গবন্ধু উত্থাপতি ছয় দফা আন্দোলনে রফিকুর রহমান ছাত্রনেতা হিসেবে সক্রিয় ভাবে ছিলেন রাজপথে। ১৯৬৯ সালের গনআন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন সিলেট সদরে। ১৯৭০ সালের নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে সামনে থেকে কাজ করেন। বঙ্গবন্ধুর আহবানে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করেন নিজের জীবন বাজি রেখে।unnamed-2

দেশ স্বাধীন হলে ১৯৭২ সালে সময়ের সাহসী যুবক হিসেবে সে সময়ের আওয়ামীলীগ এম.পি মরহুম মোহাম্মদ ইলিয়াস এর নেতৃত্বে কমলগঞ্জ কলেজ প্রতিষ্ঠায় অনবদ্য অবদান রাখেন। ১৯৭৫ সাল থেকে কমলগঞ্জ কলেজে শুরু করেন অধ্যাপনা। ১৯৭৭ সালে কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ এর প্রচার সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৯০ সালের মার্চ মাসে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি ১ম বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি মৌলভীবাজার জেলা কৃষকলীগ সভাপতি, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগ সদস্য। এক সময় মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামীলীগ কৃষি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে গুরুত্বপূর্ন রাজনৈতিক দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৪ সালে নির্বাচিত হন কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক। ২০০৯ সালের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত হলেও রাজনীতি থেকে সওে যাননি। তিনি সবর্ত্র নেতাকর্মীদের পাশে ছিলেন। তিনি নেতৃমুল কর্মীদের সাথে যোগযোগ রাখেন। রাজপথে একজন ত্যাগী নেতা হিসাবে ১৯৯১,১৯৯৫ ও ২০০০ সালে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করেছেন। বিএনপি-জামাত জোট সরকারের দমন-পীড়নের সময় রফিকুর রহমান স্থানীয় ভাবে সরকার বিরোধী আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন। ২০০৮ সালে তত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জেল কেটেছেন। ২০১১ সালে কয়েক মাস কমলগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় একক প্রার্থী হিসেবে জনগনের ভোটে দ্বিতীয় বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
ব্যক্তিগত জীবনে তিনি এক ছেলে ও ১ মেয়ের জনক। রাজনৈতিক নেতার পাশাপাশি তিনি একজন সর্বজন শ্রদ্বেয় ব্যক্তি। শিক্ষাবিদ হিসেবে এলাকার সর্বত্র রয়েছে তার পরিচিতি। তিনি কমলগঞ্জ মডেল উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির একাধিক বারের সভাপতি। শেখ হাসিনা তাকে মুল্যায়ন করায় উৎফুল্ল পুরো মৌলভীবাজার জেলাবাসী। তিনি সকলের সহযোগীতায় দল ও এলাকার রাজনীতিতে সফল হবে এটা মনে করেন তৃনমুল কর্মীরা।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: