সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ২৯ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চীনের ‘ক্যানসার হোটেল’

china-1-550x310আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: হাসপাতালে থাকার যে ব্যয় তার চেয়ে কম খরচে ‘ক্যানসার হোটেল’এ থাকতে পারেন রোগী ও তার পরিবার। বড় হাসপাতালগুলোর আশেপাশেই পাওয়া যায় এমন হোটেল।

ত্রিশ লক্ষের বেশি
প্রতিবছর ৩০ লক্ষেরও বেশি চীনা নাগরিক ক্যানসারে আক্রান্ত হন। তাদের অনেকেরই হাসপাতালের খরচ দেয়ার সামর্থ্য থাকে না।

আছে স্বাস্থ্যবিমা
চীনের ১৪০ কোটি নাগরিকের জন্য সরকারি স্বাস্থ্যবিমা সেবা চালু আছে। তবে এর আওতায় শুধু মৌলিক কিছু সেবা পাওয়া যায়। এছাড়া মোট খরচের অর্ধেক রোগীকে দিতে হয়। ক্যানসারের মতো জটিল রোগের ক্ষেত্রে আরও বেশি খরচ দিতে হয় রোগীদের।

দারিদ্র্যকে বরণ
সরকারি তথ্য বলছে, চীনের ৪৪ শতাংশ পর্যন্ত পরিবার চিকিৎসার খরচ মেটাতে গিয়ে দরিদ্র হয়ে পড়ছে। ছবিতে এক রোগীকে ক্যানসার হোটেলের রুমে নিজের সিটি স্ক্যান দেখতে দেখা যাচ্ছে।

হাসপাতালের অর্ধেক
ছবিতে ৪২ বছরের ওয়াংকে দেখতে পাচ্ছেন। তিনি জরায়ুমুখের ক্যানসারে আক্রান্ত। চিকিৎসা নিতে তিনি ইনার মঙ্গোলিয়া থেকে সাড়ে সাতশ’ কিলোমিটার দূরের বেইজিংয়ে গেছেন। উঠেছেন এক ক্যানসার হোটেলে। সেখানে এক রাতের ভাড়া ১০ ডলারের একটু বেশি। হাসপাতালের একটি বিছানার ভাড়া তার প্রায় দ্বিগুন।
ছোট জায়গায় ভালো ডাক্তার থাকতে চান না
ওয়াং-এর স্বামী ৪৬ বছরের লিউ রয়টার্সকে বলেন, ভালো চিকিৎসকরা মফস্বল কিংবা ছোট শহরগুলোতে কাজ করতে চান না। ফলে জটিল রোগের চিকিৎসা নিতে সবাইকে শহরে যেতে হয়। ছবিতে বেইজিং এর একটি এলাকা দেখা যাচ্ছে যেখানে ক্যানসার হোটেল রয়েছে।

দীর্ঘদিনের বাসিন্দা
একটি ক্যানসার হোটেলের ম্যানেজার জানিয়েছেন, বেশিরভাগ রোগী কয়েকমাস থেকে এক বছর পর্যন্ত এসব হোটেলে থাকেন, কারণ, চিকিৎসা সেবা পেতে তাদের দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হয়। ছবিতে হোটেলের বাসিন্দাদের তাদের কাপড়-চোপড় শুকাতে দেখা যাচ্ছে।

হোটেলের সুযোগ-সুবিধা
এসব হোটেলের ঘরগুলোতে টেলিভিশন ও ফ্যান থাকে। বাসিন্দারা চাইলে রুমেই রান্না করতে পারেন। যেমনটা ছবিতে দেখছেন একটি হোটেল রুমে রান্নার উপকরণ দেখা যাচ্ছে।

‘আমরা গরিব এলাকার মানুষ’
কথাটা ৬০ বছরের প্যান-এর। ২০১৩ সালে তাঁর স্ত্রী’র মলাশয়ের ক্যানসার ধরা পড়ে। তখন থেকে চিকিৎসায় তাঁদের খরচ হয়েছে প্রায় সাড়ে ৪০ হাজার ডলার। রয়টার্সকে তিনি বলেন, ‘‘বিমা সুবিধা থেকে খরচের মাত্র অর্ধেকটা আসে। আমরা শহরের মানুষ নই যে হাজার হাজার ইউয়ান খরচ করতে পারবো। আমরা কৃষক মানুষ। চিকিৎসার জন্য আমাদের অর্থ ধার করতে হয়। ’’
সূত্র: ডয়েচে ভেলে

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: