সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২২ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বালাগঞ্জ ৭ নম্বর ওয়ার্ডে সম্ভাব্য সদস্য প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণায়

1-md-juhel-copyবালাগঞ্জ সংবাদদাতা ::
প্রথম বারের মতো স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের ভোটের মাধ্যমে জেলা পরিষদ নির্বাচনের আয়োজন করতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচনের দিন ঠিক করে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনে চিঠি পাঠিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি নির্বাচনিবিধি ও আচরণবিধি গেজেট আকারে প্রকাশ করে তফশিল ঘোষণার ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে।

দেশের অন্যান্য জেলার মতো আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সিলেট জেলার সম্ভাব্য সদস্য প্রার্থীরা ব্যাপক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। ভোটারদের কাছে গণসংযোগ, সামাজিক  মাধ্যম ফেইস-বুক, মোবাইলফোনে ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছেন। বিশেষ করে জেলা পরিষদের ক্রমিক নম্বর অনুযায়ী ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনি এলাকা বালাগঞ্জের ৬টি ইউনিয়ন ও সদর উপজেলার জালালপুর  ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এই ওয়ার্ডের সম্ভাব্য সদস্য পদের প্রার্থীরা ভোটারদের সাথে মতবিনিময়সহ বিভিন্নভাবে নিজ নিজ পক্ষে ব্যাপকভাবে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থীদের নিয়ে গ্রাম-গঞ্জে, হাট বাজার, পাড়া মহল্লাহ থেকে শুরু সর্বত্র চলছে আলোচনা ও বিচার-বিশ্লেষণ। কোনো দল থেকে কে পাবেন সমর্থন, কে নির্বাচিত হবেন-এসব নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠছে।

বালাগঞ্জ উপজেলার পূর্বপৈলনপুর, বোয়ালজুড়, দেওয়ান বাজার, পূর্বগৌরীপুর, বালাগঞ্জ, পশ্চিম গৌরীপুর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নসহ এই ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ৭ নম্বর ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ৭ জন প্রচারপ্রচারনায় চালিয়ে যাচ্ছেন। এরা হলেন, বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সিলেট জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জুয়েল, বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম, মুজিবুর রহমান, সিলেট বিভাগ জনস্বার্থ সংরক্ষণ পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক, বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থার সদস্য, বৃহত্তর সিলেট শিক্ষা উন্নয়ন পরিষদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মো. আফসার আহমদ, সিলেট জেলা যুবলীগের সদস্য ও বালাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ময়নুল ইসলাম ছালেহ, দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমদ সুহেল, জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার শাহ্ আকলাছ আলী ও বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লোকন মিয়া। তাঁরা ভোটারদের সাথে মতবিনিময়সহ ভোটার, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, দলীয় নেতাকর্মীসহ সকলের সাথে যোগাযোগ করে সহযোগিতা চেয়ে নির্বাচনি প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।
উল্লেখ্য, সিলেট জেলা প্রশাসক (ডিসি) কর্তৃক সিলেট জেলাকে ১৫ টি ওয়ার্ডে ভাগ করা হয়েছে এবং ৩টি ওয়ার্ড নিয়ে ১টি মহিলা সংরক্ষিত আসন করা হয়েছে। বালাগঞ্জ উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ১টি ইউনিয়ন এই মোট ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে জেলা পরিষদ ওয়ার্ডের ক্রমিক নম্বর অনুযায়ী ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নির্বাচনি এলাকা নির্ধারন করা হয়েছে। এ ৭ নম্বর ওয়ার্ডকে ৩ নম্বর সংরক্ষিত মহিলা আসনের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

দলীয়ভাবে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর এবার নির্দলীয়ভাবে জেলা পরিষদ নির্বাচন হওয়ায় নির্বাচনকে ঘিরে বাড়তি আমেজ দেখা যাচ্ছে। একজন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর পাশাপাশি ১৫ জন সাধারণ সদস্য ও ৫ জন সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তৃণমূল ভোটারেরা অন্য সব নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পেলেও জেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট প্রদান করবেন শুধু জেলার অন্তর্ভুক্ত উপজেলা পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: