সর্বশেষ আপডেট : ২৯ মিনিট ২২ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দাওয়াত না দেয়ায় শ্বশুরবাড়িতে ডাকাতি!

fileনিউজ ডেস্ক:
দাওয়াত না দেয়ায় শ্বশুরবাড়িতে ডাকাতি করেছে মেয়ের জামাই। শ্বশুরবাড়ির লোকজনের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে শ্বশুরবাড়ির সব খবরাখবর প্রতিবেশি পেচু মিয়াকে জানায় জয়নাল আবেদীন জুনু।

এরপর অপেক্ষায় থাকে প্রবাসী শ্যালক বাড়ি আসার। এর মধ্যে অস্ত্র ও ডাকাতির ছক তৈরির জন্য বোয়ালখালীর আবদুল মালেক ডাকাতকে ঠিক করা হয়। জয়নাল আবেদীন জুনু শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে বেধড়ক পেটানোর শর্তে এবং টাকা পয়সা ও স্বর্ণালংকারের ডাকাতি করতে সহযোগিতা করে পেচুকে।

এভাবে ছক তৈরি করে শ্যালক বিদেশ থেকে আসার পর নিজের শ্বশুরবাড়িতে ডাকাতি করে জয়নাল আবেদীন ও তার সহযোগীরা।

বোয়ালখালী থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক মোস্তাক চৌধুরী খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সোমবার রাতে শাকপুরা মিলিটারি ব্রিজ এলাকা থেকে আবদুল মালেককে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে মালেক জুনুর পরিকল্পনায় ডাকাতিতে অংশ নেয় বলেও স্বীকার করেন।

পুলিশ জানায়, ২০১৬ সালের ১২ জানুয়ারি মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে বোয়ালখালীর পশ্চিম শাকপুরায় পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর তদন্তে নামে পুলিশ।

সোমবার রাতে জুনুসহ চার ডাকাতকে গ্রেফতারের পর বেরিয়ে আসে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত দেশীয় তৈরি ১টি পুরাতন এলজি, ২ রাউন্ড শর্টগানের কার্তুজ ।

আটকরা হলেন, আবদুল মালেক (৫০), পেচু মিয়া (৪৫), জয়নাল আবেদীন জুনু (৩৫) ও ফারুক মিয়া (২২)।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: