সর্বশেষ আপডেট : ১৮ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৮ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভারতের ব্যাংকিং সেক্টরে পাক সাইবারের হামলা

unnamed-2-11-550x457আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সার্জিকাল স্ট্রাইকের বদলা নিতে পাকিস্তানের হ্যাকাররা ভারতের ব্যাংকিং সেক্টরে হানা দিয়েছে। ব্যাংকগুলি থেকে প্রায় ৩০ লাখের বেশী ডেবিট কার্ডের ডিটেল চুরি করেছে।
পাকিস্তান হ্যাকাররা। এখন সাইবার ক্রাইমের মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট হাতি নেয়ার চেষ্টা করছে।
পেমেন্ট কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া ভারতের ব্যাংকগুলিতে সার্ভার এবং সিস্টেমের ফরেন্সিক অডিট করানোর আদেশ দিয়েছে। যাতে এইসব ফ্রডের ঠিকানা খুঁজে পাওয়া যায়।

এর আগে ৭ অক্টোবর সিআরইটি সাবধান করে বলেছিল সার্জিকাল স্ট্রাইকের পর ভারতের উপর সাইবার হামলা হতেই পারে। এরপরে অনলাইন ফ্রডের কথা সামনে আসছে। ভারতীয় ব্যাংকিং ইন্ডাস্ট্রিতে হওয়া সাইবার হামলা ফলে সারা ব্যাংকিং ইন্ডাস্ট্রি ঘাবড়ে গেছে। এর আগে এতো বড় ভাবে কখনও ব্যাংকের ডাটা চুরি হয়নি। ব্যাংকগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রভাবিত গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণ দিতে।
সূত্রের খবর স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, আইসিআইসিআই ব্যাংক, অ্যাক্সিস ব্যাংক ছাড়াও অনেক ব্যাংককে নিজেদের গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।
একটি ইংরজি পত্রিকার খবর অনুযায়ী ন্যাশানাল পেমেন্ট কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার মতে প্রায় ৯০টি এটিএম এ হামলা চালানো হয়েছে। যার ফলে ১৯টি ব্যাংককের ৬৪১ জন গ্রাহকের ক্ষতি হয়েছে। এনপিসিএলের রিপোর্ট অনুযায়ী ১.৩ কোটি টাকা এখনও পর্যন্ত চুরি হয়ে গেছে।

অনলাই ফ্রডদের থেকে বাঁচার জন্য কিছু সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। প্রথমত এটা সুনিশ্চিত করুন আপনি যখন এটিএম থেকে টাকা তুলছেন, যে এটিএম থেকে তুলছেন সেই ব্যাংকেই আপনার অ্যাকাউন্ট আছে। দ্বিতীয়ত টাকা তোলার পর যে স্লিপ পান সেটা যেখানে সেখানে ফেলে দেবেন না। সাইবার ক্যাফে বা অন্য সার্বজনিন সিস্টেম থেকে ব্যাঙ্কিং ট্রানজাকশান করবেন না। তাড়াতড়ি এটিএমের পাসওয়ার্ড বদলে ফেলুন। পাসওয়ার্ড কারুর সঙ্গে শেয়ার করবেন না। আর মোবাইলে তো কখনওই এটিএমের পিন নম্বর সেভ করে রাখবেন না। যদি সম্ভব হয় ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলে এখনই এটিএমটিও বদলে ফেলুন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: