সর্বশেষ আপডেট : ৪৪ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

লন্ডনে বাংলাদেশি যুবককে পুলিশি নির্যাতন : কমিউনিটিতে তীব্র ক্ষোভ অব্যাহত

1476449221প্রবাস ডেস্ক:
লন্ডনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যুবক জাকারিয়া হোসেনের গাড়ি তল্লাশির সময় তার উপর পুলিশী নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে লন্ডনে বাঙালি কমিউনিটির মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত, অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তাকে অব্যাহতিসহ শাস্তি দাবি করেছেন।

নির্যাতনের শিকার জাকারিয়ার হোসেনের সহমর্মিতা জানিয়ে গত শুক্রবার পূর্ব লন্ডনের আরবার কমিউনিটি হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে সর্বদলীয় সমাবেশ। এতে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জন বিগস, ইন্ডিপেন্ডেন্ট পার্টির লিডার কাউন্সিলার অলিউর রহমান, সাবেক মেয়র প্রার্থী কাউন্সিলার রাবিনা খানসহ সর্বস্তরের কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাকারিয়া ও তার আইনজীবি।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, জাকারিয়া হোসেন হচ্ছে তরুন সমাজের আইডল। সে তরুন যুবকদের ভাল কাজে উৎসাহিত করার পাশাপাশি একটি ইয়ুথ সেন্টার দীর্ঘদিন যাবত পরিচালনা করে আসছে।

ইতিমধ্যে বারার মেয়র জনবিগস এর তীব্র নিন্দা জানিয়ে বারা কমান্ডারের বিবৃতি দাবি করেছেন। এদিকে গত শনিবার ক্যাম্পেইন এগেইনস্ট রেইসিজম এন্ড হেইট ক্রাম সংগঠনের উদ্যোগে এক প্রতিবাদ ও পরবর্তী করনীয় শীর্ষক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

পূর্ব লন্ডনের মাইক্রো বিজনেস সেন্টারে আয়োজিত সভায় উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি নেতা আবু তাহের চৌধুরী, সিরাজ হক, গোলাম মতুর্জা, কাউন্সিলার রাবিনা খান, মোঃ হক, রফিক উল্লাহ, সাবেক কাউন্সিলার আব্দাল উল্লাহ, টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পিকার খালিস উদ্দিন আহমদ, এটিএন বাংলার সিইও হাফিজ আলম বকস, বাংলাদেশ সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক মুহিবুর রহমান, নূর বকস, কাউন্সিরার আমিনুর রহমান, সাবেক কাউন্সিলার হেলাল আব্বাসসহ আরো অনেকে। সভায় বক্তারা এই ন্যাক্কারজনক গঠনার তীব্র নিন্দা জানান এবং আগামী বড় পরিসরে আলতাব আলী পার্কে সভার করার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন।

এদিক নির্যাতনকারী পুলিশ সদস্যের বহিষ্কার ও শাস্তির দাবিতে কমিউনিটিতে চলছে ব্যাপক আন্দোলনের প্রস্তুতি। তবে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে কমিউনিটিকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন টাওয়ার হ্যামলেটসের নির্বাহী মেয়র জন বিগস।

অনুসন্ধানে জানা যায়, গত ৯ অক্টোবর রোববার পূর্ব লন্ডনের স্টেপনি গ্রিনে ক’জন বাঙালি তরুণকে সিভিল ড্রেসের পুলিশ জিজ্ঞাসবাদ শেষে ছেড়ে দেন। পরে একজন পোশাকধারী পুলিশ এসে তাদের গাড়ির পেট্রোল ট্যাঙ্কের ক্যাপ খুলে ফের অনুসন্ধান শুরু করলে নির্যাতনের শিকার জাকারিয়া এর প্রতিবাদ করেন।

এ নিয়ে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের এক পর্যায়ে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য ওই তরুণকে শারীরিক নির্যাতন করেন। ওই পুলিশ সদস্য তরুণের মাথা নিচের দিকে চেপে ধরে ঘাড়ে আঘাত করতে থাকলেও উপস্থিত অন্য পুলিশ সদস্যদের তাকে নিবৃত করার চেষ্টা করতে দেখা যায়নি।

ঘটনার কিছুক্ষণ পরই এই নির্যাতনের একটি ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তোলপাড় শুরু হয় পুরো কমিউনিটিতে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশিদের পাশাপাশি অন্যরাও ক্ষোভে ফেটে পড়েন। অনেকে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যের বহিষ্কার ও শাস্তি দাবি জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মন্তব্য করতে থাকেন।

কমিউনিটির উত্তেজনা টের পেয়ে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের নির্বাহী মেয়র জন বিগস গত ১০ অক্টোবর সোমবার এক বিবৃতিতে পুলিশ অফিসারের এ আচরণের তীব্র নিন্দা জানিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানান। বিবৃতিতে তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত বিরক্তিকর ভিডিওটি দেখার পরপরই বারা কমান্ডারের সঙ্গে জরুরি মিটিংয়ের আহ্বান জানিয়ে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট অফিসারের শাস্তি ও পুলিশের পক্ষ থেকে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা দেখতে চাই।

এদিকে গত শুক্রবার এক প্রতিবাদ সভায় মেয়র জনবিগস বলেন, সারাদেশে ক্রাইম বাড়লেও টাওয়ার হ্যামলেটসে সে তুলনায় অপরাদ বাড়েনি। আমি এখানে এসেছি কমিউনিটির মানুষের কথা শুনতে এবং তাদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করতে। আমি জাকারিয়ার বিষয়টি নিয়ে লন্ডন মেয়রের পুলিসিং বিভাগের ডেপুটি মেয়র এবং টাওয়ার হ্যামলেটসের বারা কর্মান্ডার সঙ্গে কথা বলেছি আবারও কথা বলে বিষয়টি সুরাহা করার চেষ্টা করবো।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: