সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ২০ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আমি প্রেম করিনি, বিয়ে করিনি, বাচ্চা নেই : বুবলী

full_1018826645_1476962435বিনোদন ডেস্ক: ‘আমি প্রেম করিনি, বিয়ে করিনি, বাচ্চা নেই, শাশুড়িও হইনি, নানি হইনি’ জানালেন সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম বুবলী। কেন এই ঘোষণা? বুবলীর দাবি, এ দেশের মিডিয়াতে কেউ জনপ্রিয়তা পেলেই একটা শ্রেণি তার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে শুরু করেন। আর সেই রটনার পেছনে সাংবাদিক নয় তবে সাংবাদিক নামধারী কতিপয় ব্যক্তিদের ব্যবহার করা হয়।

সংবাদ পাঠিকা থেকে নায়িকা। সুপারস্টার নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে জুটি হয়ে শুরু থেকেই আলোচনায়। গেলো ঈদে অভিষেক হয়েছে দু’টো ছবিতে। বসগিরি ও শুটার ছবির পর ফের শাকিবের সঙ্গে জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন ‘মা’ ছবিতে। যেখানে শাকিবের বিপরীতে অপু বিশ্বাসের অভিনয়ের কথা ছিল।

২০১৩ সাল থেকে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সংবাদ পাঠিকা হিসেবে কাজ শুরু করেন বুবলী। হঠাৎ করেই ঢালিউডের নায়িকা বনে যাওয়া। পরিবার থেকে এ পেশায় আসার সমর্থন ছিলনা। কিং খানের নায়িকাকে কম ঝক্কি পোহাতে হয়নি। চারিদিকে ভক্ত শুভাকাঙ্ক্ষীর ভিড়ে নিন্দুকের সংখ্যাও কম নয়।

এ ব্যাপারে বুবলী বলেন, ‘আমি ভিন্ন একটা জগতের বাসিন্দা ছিলাম। শাকিব খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ‘প্রিয়ারে’ ছবিতে প্রথম কাজের অফার পাই। কথা চলাকালীন সময়েই বসগিরি ছবিতে কাজের জন্য বলেন প্রযোজক টপি খান। আমাকে বলা হলো গল্প শুনে ভালো লাগলে সিদ্ধান্ত নিতে। তারপর কাজটি করলাম এবং দর্শকের ভালো সাড়াও পেলাম।

ছোটবেলা থেকেই নাচের সঙ্গে সখ্যতা তার। কখনো অভিনেত্রী কিংবা নায়িকা হবেন ভাবেননি। নাচের প্রস্তুতি থাকলেও অভিনয়টা শুটিং সেটেই বুঝে নিতে হয়েছে। অনেকটা অ্যাডভেঞ্চারই বলা যায়।

বুবলী বলেন, ‘নায়িকা হবার কোনো ইচ্ছা ছিলো না। তবে ছোটবেলা থেকে নাচের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। চলচ্চিত্রে কাজের সিদ্ধান্ত নেয়ার পর ড্যান্সে মনোযোগ দিয়েছি। অভিনয়ের কথা বলতে গেলে বলতে হয়, শুটিং ইউনিটেই বেশি শেখা হয়েছে। যেসব ছবিতে কাজ করেছি সেখানে এতো গুণী অভিনেতা-অভিনেত্রীর সান্নিধ্য পেয়েছি তাদের কাছেই অনেক কিছু শিখেছি। শাকিবও অনেক সহযোগিতা করেছেন। শুটিং এর সময় সে শর্ট বুঝিয়ে দিতেন।

‘মা’ চলচ্চিত্রে শাকিবের সঙ্গে অপুর জুটি হবার কথা ছিল। কিন্তু সেখানে জুটি বেঁধেছেন বুবলী। তাহলে কি গুঞ্জনই সত্যি, বুবলীর জন্যই দূরে অপু?

বুবলী বলেন, প্রতিটি শিল্পীরই একটা নিজস্ব অবস্থান থাকে। মৌসুমী, শাবনূর, অপু বিশ্বাস, মাহি প্রত্যেকেরই আলাদা জায়গা ও দর্শক রয়েছে। কেউই কারো জায়গা নিতে পারেন না।

‘মা’ ছবিতে কাজের ব্যাপারে বলেন, ‘প্রথমেই যেটা বলবো ছবির নাম। ‘মা’ শব্দটি এত হৃদয় স্পর্শী। আমি সবসময়ই চাই ভালো নামের ছবিতে কাজ করার। এ ছবির গল্পেরও কিছুটা পরিবর্তন হচ্ছে। যতটুকু শুনেছি আমাকে খুব মিষ্টি একটি চরিত্রেই উপস্থাপনা করা হবে।

বুবলীর বিয়ে, সন্তানের জননী এমন গুঞ্জন চারদিকে তোলপাড় তুলেছে।

বুবলী বলেন, ‘আমি চার বছর টিভিতে সংবাদ পড়েছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমবিএ করেছি। দু’টো ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছে। আমার সম্পর্কে মিডিয়াতে সবাই জানেন। কিন্তু হঠাৎ মিথ্যা সংবাদ করে তারা কি আনন্দ পাচ্ছেন আমি জানি না। এমন মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ হলে বলার কিছুই থাকেনা। এমন ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ হলে ফ্যামিলি থেকেও নানান কথা শুনতে হয়।

যারা এমন বলছেন তারা আমার আগের অফিসে খোঁজ নিতে পারতেন। মনগড়া কথায় সংবাদ প্রকাশ করে মানুষকে কেন বিভ্রান্ত করছে। যাকে নিয়ে আলোচনা, তাকে নিয়েই সমালোচনা হয়। আমি চলচ্চিত্রে কাজ করছি বলেই এখন হয়তো এমন সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে।

ক্যারিয়ার শুরু সংবাদ পাঠের মাধ্যমে। চলচ্চিত্রে পা রাখার পরেই ওই পেশা ছেড়ে দিয়েছেন। টিভি পর্দার মুহূর্ত এখনো মিস করেন। হ্যাঁ অবশ্যই মিস করি। ওইটা ছিল আমার সেকেন্ড হোম। আগের সহকর্মীরা এখনো খোঁজ খবর নেন।

বড় পর্দার দর্শকদের কাছে যে সাড়া পেয়েছেন তাও এ নায়িকাকে আনন্দে আপ্লুত করে। চলচ্চিত্র সম্পর্কে বাইরের মানুষের যে ধারণা ছিল তার অনেকটাই বদলে গেছে তার। বিশেষ করে শুটার ও বসগিরি’র শুটিংয়ে সবার আন্তরিকতা ও ভালোবাসায় অভিভূত বুবলী।

ভবিষ্যতেও মানসম্মত ছবিতে নিয়মিত কাজ করে যেতে চান এ নায়িকা। তবে খুব বেশি ছবি নয়, মানসম্পন্ন কাজ করতে আগ্রহী তিনি।

পর পর তিন ছবিতেই শাকিবের নায়িকা আরো একটি ছবিতে চূড়ান্ত হয়ে আছেন অনেক আগে থেকেই। তবে কি শাকিবেই বাক্স বন্দী বুবলী?

তিনি বলেন, দেখুন ঢালিউডের এখনকার সুপারস্টার শাকিব খান। পরিচালক ও প্রযোজকরা তার ছবিতে যে পরিমাণ অ্যারেজমেন্ট রাখেন অনেক ছবিতেই তা থাকে কিনা জানি না। এখানে বন্দী হবার কোনো বিষয় নেই। অন্য নায়কের সঙ্গে যদি ভালো অ্যারেজমেন্ট ও গল্পের ছবি হলে করবো।

সবশেষ বুবলী বলেন, প্রেম কিংবা বিয়ে যাই করি না কেনো সাংবাদিকদেরই আগে জানাবো।

বুবলী লিখেছেন, গত কয়েক দিন ধরে আসলে এক এক করে এত সাংবাদিক আমার চলচ্চিত্রের খবরের পাশাপাশি আমার এই ব্যক্তিগত ব্যাপারগুলো নিয়ে এত এত প্রশ্ন করছেন আর আমিও উত্তর দিতে দিতে ক্লান্ত। যার জন্য এগুলোর ওপর একটা স্টেটাস দিয়ে একবারে সবাইকে জানিয়ে দিচ্ছি।

বুবলী বলেছেন, আপনাদের ধন্যবাদ যে আপনারা সঠিক তথ্য জানবার জন্য যোগাযোগ করছেন। আর অনেক সাংবাদিক তো আছে কোনো যোগাযোগ না করেই মসলাদার ভুয়া মিথ্যা নিউজ করছেন। তাদের কাছে হয়ত বা স্লোগান হচ্ছে “Negative publicity is the best publicity। না হলে এসব নিয়ে ভুয়া নিউজ করার পেছনে কোনো একটা চক্র কাজ করছে।

উদ্দেশ্য প্রণোদিত কারণে কিছু নিউজ হচ্ছে উল্লেখ করে বুবলী বলেন, যারা আমার ওপর হিংসার বশবর্তী হয়ে এসব করাচ্ছে। যাই হোক সাংবাদিকদের বলবো ভালো কাজের একটা পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য আপনাদের ভূমিকা অপরিহার্য। তাই সে সুস্থ পরিবেশ নিশ্চিতে শিল্পীদের সহায়তা করতে চেষ্টা করুন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: