সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাতকে অপহৃতা স্কুলছাত্রী উদ্ধার, গ্রেফতার ১

recover-after-kidnap-1-1ছাতক প্রতিনিধিঃ
ছাতকে স্কুলছাত্রী অপহণের ঘটনায় ছাতক থানায় একটি অপহরন মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার অপহৃতার ভাই দোলারবাজার ইউনিয়নের জাহিদপুর গ্রামের আরজদ আলীর পুত্র বদরুল আলম বাদী হয়ে একই গ্রামের চান্দালীর পুত্র আফছার মিয়া(৩০), মৃত আমীর আলীর পুত্র আয়াছ মিয়া(২৮) ও জগন্নাথপুর উপজেলার সিরামিশি গ্রামের মাহমুদ খানের পুত্র আব্দুল কাদিরসহ অজ্ঞাত আরো ৩ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা(নং-২০) দায়ের করেন। অপহরনে জড়িত থাকার অভিযোগে আব্দুল কাদিরকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, জাহিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী অপহৃতাকে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে প্রায়ই কু-প্রস্তাবসহ উত্যক্ত করত লম্পট আফছার মিয়া ও তার সহযোগিরা। অপহৃতার কাছ থেকে কোনরূপ সাড়া না পেয়ে গত ২৫ সেপ্টেম্বর সকালে বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা আফছার মিয়া ও তার সহযোগিরা স্কুল ছাত্রীর গতিরোধ করে তাকে জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে তুলে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যায়। অপহরন করার সময় স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে ঘটনাস্থলের আশপাশে থাকা ছাত্রীর পিতা আরজদ আলী এগিয়ে এলে অপহরনকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে সক্ষম হয়।

শুক্রবার সকালে অপহৃতার ফোনের মাধ্যমে তার পিতা জানতে পারেন অপহৃতা স্কুল ছাত্রী জগন্নাথপুর উপজেলার সিরামিশি গ্রামের মাহমুদ খানের পুত্র আব্দুল কাদিরের বাড়িতে সে আটকাবস্থায় রয়েছে। শুক্রবার গভির রাতে জগন্নাথপুর থানা-পুলিশের সহায়তায় ছাতক থানার এসআই তরিকুল ইসলাম সিরামিশি গ্রামে অভিযান চালিয়ে মাহমুদ খানের বাড়ি থেকে অপহৃতা স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরনকারী আব্দুল কাদিরকে গ্রেফতার করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: