সর্বশেষ আপডেট : ২৪ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

যে শহরে এক কেজি ৮৪৯ গ্রাম ওজনের আপেল পাওয়া যায়!

es_bg20161015183201অনলাইন ডেস্ক:
একটি আপেলের ওজন কত হতে পারে? প্রশ্ন করলে চোখের সামনে আসবে ২৫০ গ্রাম থেকে ৩৫০ গ্রাম ওজনের আপেল।

কিন্তু ২০০৫ সালে জাপানে উৎপাদিত হয়েছে এক কেজি ৮৪৯ গ্রাম ওজনের আপেল!

জাপানের আওমরি এলাকার হিরোসাকি সিটিতে প্রায় দুই কেজি ওজনের আপেলটি ফলিয়ে ফার্মের মালিক চিসাতো গিনেস বুকে নামও তুলেছেন। দেশটির অর্ধেকেরও বেশি অঞ্চলে আপেল উৎপাদন হয়। য‍া এশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রফতানিও হয়ে থাকে।

আওমরির আপেল চাষ
১৮৭৫ সালে আওমরিতে আপেল চাষ শুরু হয়। সন্তোষজনক ফলন পাওয়ায় ১৯৩১ সালে জাপান সরকার সিদ্ধান্ত নেয় আপেল চাষের ব্যাপক উন্নয়নে আপেল রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করার। শুধু তাই নয়, ১৯৭৫ সালে স্থানীয়রা আপেল চাষের শতবর্ষ উদযাপন করে।

ওই সময় যেখানে প্রথম আপেল গাছ রোপন করা হয়েছিলো সেখানে একটি স্মারক ফলকও স্থাপন করা হয়।

es_top20161015183411
আপেলের রকম ফের
মূলত ছয় ধরনের আপেল আওমরিতে উৎপাদন করে কৃষকরা। প্রতিটি আপেলের রঙ, স্বাদ ও গন্ধ আলাদা। বড় আপেলের মধ্যে সেকাই ইচি অন্যতম। এ আপেলের ওজন ৫০০ থেকে প্রায় ১,০০০ গ্রাম পর্যন্ত হয়।

মুটসু: ১৯৩০ সাল থেকে আওমরিতে এ জাতের আপেল উৎপাদন হচ্ছে। এটাই এখন জাপানের সবচেয়ে জনপ্রিয় আপেল। এই আপেলটির ওজন হয় ৫০০-৬০০ গ্রাম।

ফুজি: ৩০০ থেকে ৫০০ গ্রাম ওজনের এ আপেল খুবই সুস্বাদু। এর দাম সেকাই ইচি আপেলের চেয়ে কম।

কিনসেই: অন্যগুলোর চেয়ে কিনসেই আপেলের ওজন কিছুটা কম হলেও বেশি জনপ্রিয় এটাই। এর ওজন প্রায় ৩০০ থেকে ৪০০ গ্রাম।

জোনাগোল্ড: জোনাগোল্ড আপেল কিছু রোগের প্রতিষেধক হিসেবেও কাজ করে। ওজন ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে এই আপেল। ওজন প্রায় ৩০০ গ্রামের মতো।

ওহরিন: ২৫০ থেকে ৩০০ গ্রাম ওজনের আপেলটি ক্যান্সার, ডায়বেটিসসহ হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করে বলেই চিকিৎসকদের মত।

আপেলের মৌসুম
আওমরির মধ্যে হিরোসাকি সিটি আপেলের হোম হিসেবে পরিচিত। শীতল আবহাওয়ার কারণে আওমরি জেলার আপেলের চাষ হয় সবচেয়ে বেশি। জাপানের মোট আপেলের চাহিদার অর্ধেকেরও বেশি মেটে এ জেলা থেকে। আপেল তোলার প্রধান মৌসুম হচ্ছে অক্টোবর।

আপেলের বিভিন্ন ব্যবহার
হিরোসাকির সাকুরা এবং স্থানীয় বিভিন্ন উৎসবে ছয় ধরনের আপেলের পাই তৈরি করে বিক্রি করা হয়। একবার ৪০০ আপেল ব্যবহার করে গিনেস বুকে রেকর্ডের  জন্য দুই মিটারের একটি আপেল পাই তৈরি করা হয়েছিলো হিরোসাকির চেরি ব্লসম উৎসবে।

আপেল পার্ক
হিরোসাকিতে ৬৫ জাতের ১৩০০ এর বেশি আপেল গাছ রয়েছে। যাকে হিরোসাকি আপেল পার্ক বলা হয়। আপেল স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী। প্রচলিত রয়েছে, একটি আপেল প্রতিদিন ডাক্তার থেকে দ‍ূরে রাখে। আপেল বাথ- শুধু আমাদের ত্বক ভালো রাখে তা নয়, আপেলের ঘ্রাণ আমাদের মনও উৎফুল্ল রাখে।

সবচেয়ে বড় আপেল
হিরোসাকি সিটিতে চিসাতোর ফার্মে ২০০৫ সালের ২৪ অক্টোবর সবচেয়ে বড় আপেল উৎপাদিত হয়েছিলো ১.৮৪৯ কেজি ওজনের। ফুজি এবং ম‍ুটসু আপেলের সমন্বয়ে হাইব্রিড আপেল ছিলো সেটি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: