সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জগন্নাথপুরে আধিপত্য নিয়ে ঘন্টাব্যাপি সংঘর্ষে আহত ১০

2-daily-sylhet-sanggarsho-news1ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের কুবাজপুরে গ্রামের নামকরণ নিয়ে উভয় পক্ষের ঘন্টাব্যাপি সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেল ৪ টার দিকে।

জানা যায়, উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া জগন্নাথপুর টু বেগমপুর রোডের পাশে স্থানীয় কুবাজপুর গ্রামের কিছু সংখ্যক বাসিন্দা রাস্তার পাশে থাকা খালি মালিকানাধীন জায়গা পাইলগাঁও ইউনিয়নের সাবেক মেম্বার কাজল মিয়ার কাছ থেকে ক্রয় করে বসবাস করে আসছিলেন। একসময় এই এলাকায় ছোট-বড় অনেক বসতবাড়ী তৈরী হয়। এমতাবস্থায় এ এলাকার বাসিন্দারা নামকরণ করেন কুবাজপুর নতুন পাড়া। এবং এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারীদের যাত্রা শুভ হোক নামে একটি সাইনবোর্ড লাগানো হয়। সাইনবোর্ডটি দেখে ফুঁসে উঠেন জায়গার বিক্রেতা সাবেক ইউপি সদস্য রমাপতিপুরের বাসিন্দা কাজল মিয়া। তিনি চান কুবাজপুর নতুন পাড়া নামকরণ না করে তারই দাদার নামে রশিদনগর নামকরণ করা হউক। এ নিয়ে এলাকায় বেশকিছু দিন যাবত উত্তেজনার দেখা দেয়।

গত শুক্রবার বিকেলে কুবাজপুর নতুন পাড়া নামক সাইনবোর্ডটি কাজল মিয়ার লোকজন মাটি থেকে তুলে ফেললে কুবাজপুর গ্রামের বাসিন্দা ও রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য সুলতান মিয়ার লোকজন প্রতিবাদ করলে এনিয়ে উভয়ের পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এবং এলাকায় থাকা লোকজন সংঘর্ষে লিপ্ত হওয়ার জন্য গ্রামে মাইকিং করা হয়। এমতাবস্থায় দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘন্টাব্যাপি সংঘর্ষে দুপক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

গুরুতর আহতরা হলেন হাজী ছালিক মিয়া (৬৫), মাছুম আহমদ (২১), মজনু মিয়া (২৫), ও রাজু আহমদ (১৭) কে স্থানীয় জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এছাড়া অন্যান্য আহতদের মধ্যে কদ্দুস আলী (৬৫), আবুল কাসেম (৩০), ছাদিকুর রহমান (২৮), নাজিম উদ্দিন (২২) প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
খবর পেয়ে জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এব্যাপারে জগন্নাথপুর থানায় কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি বলে জানান জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন। এলাকায় এখনো থমথমে ভাব বিরাজ করছে। যেকোনো সময় অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটতে পারে বলে স্থানীয়রা জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: