সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ক্ষণে ক্ষণে আঁতকে উঠছে খাদিজা

khadiza-n-daily-sylhet-copyডেইলি সিলেট ডেস্ক: হাসপাতালে জীবন মরণ প্রশ্নে ১১ দিন পেরিয়ে গেল খাদিজা আক্তার নার্গিসের। মুক্তি মিলেছে লাইফ সাপোর্ট থেকে। কেটে গেছে জীবন শঙ্কাও। তবে কাটেনি আতঙ্ক। জ্ঞান ফেরার পর থেকেই ক্ষণে ক্ষণে আঁতকে উঠছেন।

রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন খাদিজা আক্তার নার্গিস নিঃশব্দে কাঁদছেন পরিচিত কাউকে দেখলেই।

হাসপাতালে খাদিজাকে দেখে এসে তার চাচা আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ‘খাদিজার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে উন্নতি হওয়ায় ওকে দেখতে আসার জন্য চিকিৎসকরা বলেছিলেন। তাই দেখতে আসছিলাম। এ সময় সে আমাদের দিকে তাকিয়ে দেখছিল এবং ডান হাত ও পা নাড়াচ্ছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই কেমন যেন চমকে উঠে কাঁদতে শুরু করে সে।’

চাচা আব্দুল কুদ্দুসের ধারণা, বখাটে ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের সেই নির্মম নৃশংসতার কথা মনে পড়াতেই হাতপাতালের বিছানায় আঁতকে উঠছেন খাদিজা। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, ‘খাদিজার বাম দিক এখনো আগের মতো রয়েছে। সেটা স্বাভাবিক হবে কিনা, তা বলতে পারছেন না ডাক্তাররা। তিন মাসের আগে এ ব্যাপারে কিছু বলা যাবে না বলে জানিয়েছেন তারা।’

উল্লেখ্য, ৩ অক্টোবর ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা দিতে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়েছিলেন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী খাদিজা বেগম নার্গিস। বিকালে পরীক্ষা দিয়ে বেরিয়ে আসার সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম (২৭)।

পরে অন্য শিক্ষার্থীরা বদরুলকে পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। ঘটনার দিন গুরুতর আহত অবস্থায় খাদিজাকে প্রথমে সিলেটে এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন মঙ্গলবার তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে খাদিজার দুই দফা অস্ত্রোপচার করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। অস্ত্রোপচার শেষে তাকে টানা ৯২ ঘণ্টা লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। পরে গত বুধবার সকাল ৯টায় লাইফ সাপোর্ট খুলে দেয়া হয় নার্গিস।

এ ঘটনায় খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে সিলেট শাহপরান থানায় বদরুল আলমকে আসামি করে হত্যা চেষ্টা মামলা করেন। ছাত্রলীগ নেতা বদরুল খাদিজার ওপর হামলার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: