সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ৪১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এ কেমন শত্রুতা…

treeরফিক সরকার, গোয়াইনঘাট:
সিলেটের গোয়াইনঘাটে অঝোপাড়া গায়ে সংঘবদ্ধ একটি চক্র হামলা চালিয়ে জেলা প্রশাসকের (ডিসির খতিয়ান) ভূমিতে বসবাসরত ভূমিহীন হতদরিদ্র ৩টি পরিবারের লোকজনদের ঘরবাড়ি ও তাদের রোপায়িত ফলদবৃক্ষসহ প্রায় সহ¯্রাধিক বিভিন্ন প্রজাতির গাছপালা কেটে মাটিতে মিশিয়ে দিয়েছে। সংঘবদ্ধ চক্রের সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছেন নারী, শিশুসহ ৩ জন। হামলা চলাকালে হাত পা বেধে বসবাসরতদের ঘরের ভিতরে অবরুদ্ধ রেখে এ তান্ডব চালানো হয়। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সচেতনদের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে গোয়াইনঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলওয়ার হোসেন তাৎক্ষনিক ভাবে এস আই মতিউর রহমানসহ পুলিশ সদস্যদের ঘটনাস্থলে পাঠান। বৃহস্পতিবার উপজেলার ডৌবাড়ি ইউনিয়নের লাউয়েরকুনি মৌজার বলেশ^র গ্রামে এ ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটে।

সরজমিন পরিদর্শন কালে দেখা যায়, এমন বর্বরতার প্রতিচ্ছবি। জানা যায় সরকারি খাস এসব ভূমিতে দীর্ঘদিন থেকে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে আসছেন ফারুক মিয়া ও সাইদ মিয়া গংরা। এই ভুমির বসবাসরতদের উচ্ছেদ করতে দীর্ঘদিন থেকে স্থানীয় বলেশ^র গ্রামের মৃত মজিদ আলীর ছেলে মুসা মিয়া, মুসা মিয়ার ছেলে কন্টাই মিয়া, ফয়সল, আখলু মিয়ার ছেলে আঃ করিম, কন্টাই মিয়ার ছেলে ইসলাম, আব্র“ মিয়ার ছেলে ছিফত উল্লাহ, বশির মিয়া ছেলে শুকুর, তেরা মিয়ার ছেলে হেলাল, ফুরকান আলীর ছেলে আবুল, বাবুল, আরফান আলীর ছেলে আজমত উল্লাহ, আশ্রব আলীর ছেলে মাহমুদ আলীসহ কতিপয় সন্ত্রাসী জোর দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। ইতিপুর্বেও তারা এসব ভুমিহীন পরিবারে হামলা, লুটপাট চালিয়ছে বলেও তথ্য রয়েছে। অতীতের ধারবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবারো দখল ও বসবাসরতদের উচ্ছেদ করতে পুরুষ শুন্য বাড়িতে প্রবেশ করে। এসময় বাড়িতে থাকা নারী শিশুদের অবরুদ্ধ করে রাখে সন্ত্রাসীরা। বাড়ির কর্তা ফারুক মিয়া আসলে তাকেও হাত-পা বেধে তার মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়ে তাকে বেধে ফেলে। পাশের বাড়ির সাইদ হোসেনের ঘরেও আক্রমন করে হামলা কারিরা। সেখানেও নারী, শিশুদের অবরুদ্ধ করে রাখে তারা। এসময় সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীরা ৩টি বাড়ির রোপায়িত গাছ পালা কেটে মাটির সাথে মিশিয়ে দেয়। কড়ই, আম, জাম, কাঠাল, লিচু, নারিকেল, সুপারী, আমড়া, জলপাই, মেহগণি, জাম্বুরা, আতাফল, বড়ই, পেয়রা, বেলজিয়াম ও কলাসহ বিভিন্ন জাতের সহস্রাধিক ফলদ ও কাঠ শ্রেনীর গাছপালা কেটে ফেলে। এসময় তারা বিভিন্ন প্রজাতির গাছপালা লুটে নেয়। একই সাথে বসবাসরতদের পরিবার পরিজনদের নিয়ে দ্রুত অন্যত্র পালিয়ে যাওয়ার হুমকি দিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে গোয়াইনঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে ডৌবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফ ইকবাল নেহাল জানান ঘটনাস্থলের বিরোধপূর্ণ ভূমিটি বলেশ^র গ্রামের এলাকাবাসির উদ্যোগে ঘোড়াইল নামে একটি বাজার ছিলো। কালের বিবর্তনে সেই বাজারটি হারিয়ে যায়। এরই সুবাধে বসবাসকারী আবার সে স্থানে ঘরবাড়ি নির্মান করে বসবাস শুরু করে। বর্তমানে ওই স্থানে এলাকাবাসি পুনরায় বাজার প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন এবং বসবাসকারিদের অন্যত্র সরে যাওয়ার জন্য তাদের আত্মীয় স্বজনদের দায়িত্ব দেন।
এব্যাপারে কথা হলে গোয়াইনঘাটের অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলওয়ার হোসেন জানান বিষয়টি অবহিত হয়ে তাৎক্ষনিক ফোর্স পাঠিয়েছি। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

tree-2

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: