সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভুলেভরা তালিকা: শিক্ষক পদে মনোনীতরা বিপাকে

eeecapture-1শিক্ষাঙ্গন ডেস্ক ::
বেসরকারি শিক্ষক মনোনয়নে নিবন্ধন কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার বিস্তর অভিযোগ পাওয়া গেছে। মহিলা কোটায় পুরুষকে মননোয়ন দেয়া হয়েছে । সহকারী শিক্ষক পদে নিবন্ধনধারী আবেদন করলেও তাকে প্রভাষক পদে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। আর এর ফলে মনোনীতরা দ্বিধা-দ্বন্দের মধ্যে পড়েছেন।

অভিযোগে জানা যায়, নাটোরের লালপুর উপজেলার লালপুর শ্রী সুন্দরী পাইলট হাই স্কুলে মো. আশরাফুল হক এবং মোসা. দিলারা খাতুন নামে দুই নিবন্ধনধারী প্রার্থীকে প্রভাষক হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

জানা যায়, মোসা. দিলারা খাতুন নবম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নিবন্ধনধারী হিসেবে সহকারী শিক্ষক (কম্পিউটার) পদের জন্য আবেদন করেন। যার রোল নম্বর ৩১৩২২৫৫৭। কিন্তু তাকে ওই স্কুলে প্রভাষক (কম্পিউটার অপারেশন) হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। অভিযোগ হল তিনি প্রভাষক পদে কোন আবেদন করেননি। এমনকি তার রোল নম্বরের ধারে কাছেও কোন প্রভাষক পদের নিবন্ধনধারীর রোল নম্বর নেই। তাছাড়া প্রভাষক পদে রোল নম্বর ৪০ সিরিয়াল থেকে শুরু আর সহকারী শিক্ষক ৩০ থেকে শুরু। তবে কীভাবে তাকে প্রভাষক হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হল?

একই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন একই স্কুলে প্রভাষক (ইংরেজি) মো. আশরাফুল হক। আশরাফুল সপ্তম নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং সহকারী শিক্ষক পদে আবেদন করেন। তার রোল নম্বর ৩০২০৬৫২৪। কিন্তু তালিকায় তাকেও ইংরেজি প্রভাষক হিসেবে দেখানো হয়েছে।

এ অবস্থায় তারা পড়েছেন মহা বিপাকে। এখন তারা কী প্রভাষক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত?

কিন্তু স্কুলেই বা সেটা আবার হয় কীভাবে? আর তারা যদি প্রভাষকই হন সেটা কোন কলেজের এ প্রশ্নেরই কোন কূল-কিনারা পাচ্ছেন না তারা। আবার অন্যদিকে বহু কাক্ষিত এ নিয়োগ পাওয়ার পর সৃষ্ট এই জটিলতার কারণে তাদের নিয়োগ প্রক্রিয়া আবার আটকে যায় কিনা সে সংশয়ও দেখা দিয়েছে তাদের ভেতর।

একইভাবে মহিলা কোটায় পুরুষকে মননোয়ন দেয়ার নজিরও স্থাপন করেছে নিবন্ধন কর্তৃপক্ষ। জানা গেছে, মোসা. রেজেনা খাতুন, যিনি ১২ তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়েছেন। যার নিবন্ধন রোল রোল: ৩১৮০৩১৭০।
সহকারী শিক্ষক (শরীর চর্চা) পদে আবেদন করেন রেজেনা। আবেদন নম্বর A১২৪৭০৯PNT ।
তিনি বলেন, প্রকাশিত তালিকায় এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষ সরকারি বিধি মোতাবেক মহিলা কোটায় মহিলা নিয়োগ না দিয়ে আবু সুফিয়ান নামে একজনকে মনোনীত করেছে।
এসব অভিযোগের বিষয়ে কথা বলা চেষ্টা করেও নিবন্ধ অফিসের কাউকে পাওয়া যায়নি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: