সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কুলাউড়ায় সংবাদ সম্মেলনে প্রতিপক্ষের হয়রানী ও অপপ্রচারের অভিযোগ

unnamed-3তারেক হাসান, কুলাউড়াঃ
কুলাউড়া উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের পূর্ব মনসুর গ্রামের মোঃ নুরুল মোত্তাকিম চৌধুরী ও স্ত্রী ফাতেহা বেগম চৌধুরীসহ তাঁর পরিবারকে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ আব্দুল মোনায়েম ছালেক কর্তৃক হয়রানী ও অপপ্রচারের মাধ্যমে সম্মানহানি করা হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে।
পৌর শহরের একটি রেস্টুরেন্টে সোমবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে হয়রানীর শিকার মোঃ নুরুল মোত্তাকিম চৌধুরী অভিযোগ করে বলেন, উত্তরাধিকারী ওয়ারীশ সূত্রে তাঁদের (মোত্তাকিম চৌধুরীর) দাদি সিতারা বানু’র সম্পত্তির মালিক তাঁরা। কিন্তু একই গ্রামের প্রতিবেশী আব্দুল মোনায়েম ছালেক তাদের সম্পত্তি দখল জবর দখল করে রেখেছেন।

পরিকল্পিতভাবে তাদের (মোঃ নুরুল মোন্তাকিম চৌধুরী’র) সম্পত্তি আত্মসাতের জন্য নানা পায়তারায় লিপ্ত রয়েছেন। বৈধ কাগজপত্র না থাকা সত্তেও সম্পত্তি দখলের জন্য কৌশলে আব্দুল মোনায়েম ছালেক তার বিরুদ্ধে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলা করেও তাঁরা ক্ষান্ত হয়নি। উপরোন্তু সম্পত্তির লোভে তাদেরকে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন করার উদ্দ্যেশ্যে তার ও পরিবারের বিরুদ্ধে হামলা, হয়রানী ও অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। চলতি বছরের জুলাই মাসে প্রতিপক্ষ আব্দুল মোনায়েম ছালেক ও আব্দুল মুনিম মজনু তাদের বাড়িতে আতর্কিত হামলা করে স্ত্রী ফাতেহা বেগম চৌধুরীকে মারধর ও শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। এ ঘটনায় তার স্ত্রী বাদী হয়ে আব্দুল মোনায়েম ছালেক ও আব্দুল মুনিম মজনুকে বিবাদী করে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে মামলাগুলো চলমান রয়েছে।

তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, মামলা চলমান থাকা সত্তেও আব্দুল মোনায়েম ছালেক মিথ্যা তথ্য দিয়ে তার বিরুদ্ধে কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে বিভ্রান্তিমূলক সংবাদ প্রচার করিয়েছেন। এ বিষয়ে সম্প্রতি দৈনিক যুগান্তরে ‘কুলাউড়ায় প্রতিপক্ষকে মামলা দিয়ে হয়রানীর অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদে তার কোন মন্তব্য না নিয়ে উল্টো মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে মনগড়া সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। তিনি উল্লেখ করেন তার পিতা মৃত মাওলানা আক্তারুন নবী চৌধুরী অত্র এলাকার একজন আলেম হিসাবে খ্যাতি রয়েছে ও একটি মাদ্রাসায় দির্ঘদিন শিক্ষকতার পেশায় জড়িত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি তাকে ও তার পরিবারের ঐতিহ্যকে ক্ষুন্ন করার ও সম্পত্তি আত্মসাতের লক্ষ্যে ঐ মহলটি অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে বলে উল্লেখ করে প্রতিকার দাবী করেন। সংবাদ সম্মেলনে তার সন্তান ও স্ত্রী উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: