সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আ.লীগের সম্মেলন: প্রস্তুত হচ্ছে নজরকাড়া ডিজিটাল মঞ্চ

156006_1নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের সবচেয়ে পুরাতন এবং বৃহত্তম রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলন আগামী ২২-২৩ শে অক্টোবর। দলটি তিন বছর অন্তর সম্মেলনের করে।

সম্মেলনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল হিসেবে তার যে ইতিহাস, গৌরব ও ঐতিহ্য রয়েছে তা নতুনদের মাঝে উপস্থাপন করে। দলের নতুন নেতৃত্ব নির্ধারণ করা হয় এ সম্মেলনে। আগামী দিনগুলোতে আওয়ামী লীগ কীভাবে পরিচালিত হবে, দেশের মানুষের কাছে তাদের দেশ নিয়ে ভাবনা চিন্তার কথাও ঘোষণা করে সম্মেলনে।

এবারের ২০তম জাতীয় সম্মেলনের জন্য স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে সরোওয়ার্দী উদ্যানকে। বর্তমানে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়। তাই তারা মনে করে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সম্মেলনের আয়োজন হলে একদিকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা চাঙ্গা হবে, অন্যদিকে সাধারণ জনগণের কাছে দলের ভাবমূর্তি ফুটে উঠবে। এতে সার্বিকভাবে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার হাত আরো বেশি শক্তিশালী হবে।আর এ চিন্তা থেকেই অতীতের যেকোনো সম্মেলনের থেকে এবারের সম্মেলনে ভিন্নমাত্রা আনা হচ্ছে।

সম্মেলনে বিভিন্ন নেতাকর্মী ছাড়াও থাকবেন কাউন্সিলর, দেশি বিদেশি রাজনৈতিক নেতাকর্মী, বিশেষ ব্যক্তি, বুদ্ধিজীবি ও ডেলিগেটসসহ নানা পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

সম্মেলনকে সামনে রেখে শুরু হয়েছে মঞ্চ তৈরির কাজ। তবে এবারের সম্মেলন যে ইতিহাসের অন্যান্য সম্মেলন থেকে ব্যতিক্রম এবং জাঁকজমকপূর্ণ হচ্ছে তা সম্মেলনের জন্য মঞ্চ তৈরির প্রস্তুতি দেখলেই বোঝা যায়।

এবারের সম্মেলনে সর্বাধুনিক এবং আন্তর্জাতিক মানের প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে। আর এসবকিছুর পেছনে তারণ্যের প্রতীক প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তার তথ্য-প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ভুমিকা রয়েছে। তার পরিকল্পনায় সম্মেলনের সার্বিক কার্যক্রম ডিজিটালাইজ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দলের নেতারা।

১৫০ ফুট চওড়া এবং ৮৪ ফুট প্রস্থ সম্মেলন মঞ্চের চারপাশে থাকবে বিভিন্ন আকৃতির তোরণ, মন রাঙ্গানো সব  নকশা এবং বাহারি রকমের কারুকার্য। থাকছে মেডিকেল ক্যাম্প, খাবারের জন্য থাকছে ফুড কর্নার আরো সব উন্নত মানের পরিবেশনা। মঞ্চের সামনে থাকবে সুবিশাল প্যান্ডেল। থাকবে গেস্ট রুম।

প্যান্ডেলে থাকবে তিনটি সাড়ি। প্রথম সাড়িতে থাকবে সোফা, দ্বিতীয় সাড়িতে থাকবে চায়না চেয়ার এবং সব শেষ তৃতীয় সাড়িতে থাকবে প্লাস্টিকের চেয়ার। প্যান্ডেলে আনুমানিক ৫০হাজার লোকের বসার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

২৬ সেপ্টেম্বর মঞ্চ তৈরির কাজ শুরু  হয় এবং আগামী ২০ মঅক্টোবরের মধ্যে মঞ্চের সব কাজ শেষ হবে। এমনটিই জানিয়েছেন মঞ্চ তৈরির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নেতারা।

মঞ্চ তৈরির দায়িত্বে থাকা সাবেক ছাত্রলীগের গ্রন্থাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ মনিরুজ্জামান লিটন বলেন, ‘চারুকলা অনুষদের ছাত্রলীগ এবং সাবেক ছাত্রলীগ সবাই মিলে এ কাজের দায়িত্ব নিয়েছি। গত ২৬ সেপ্টেম্বর কাজ শুরু করি এবং আগামী ২০ অক্টোবরের মধ্যে আমারা এ কাজ শেষ করব। এরই মধ্যে মঞ্চের ৮০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। এখন শুধু সেটিং এবং ফিনিসিংয়ের কাজ চলছে।’

বাজেট সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান, এই কাজে আমাদের কোনো বাজেট নেই। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মঞ্চ তৈরির জন্য যা যা দরকার  সবই কিনে দিচ্ছে। কত টাকা খরচ হতে পারে সে সম্পর্কে এখনো কিছু বলা যাচ্ছে না। কাজ শেষ হলে বলা যাবে। এখানে ১০০ জন শ্রমিক কাজ করছে তাদের বেতনও আওয়ামী লীগ থেকে পরিশোধ করা হচ্ছে।

সম্মেলনের মূল ভেন্যুতে প্রবেশের জন্য প্রধানমন্ত্রীর গেটসহ মোট সাতটি। প্রধানমন্ত্রীর গেট, ভিআইপি গেট, ভিভিআইপি গেট, তিন নেতার মাজার গেট, মন্দিরের সামনে একটি গেট, বাংলা একাডেমির সামনে একটি গেট, টিএসসিতে একটি এবং চারুকলার সামনে একটি গেট থাকবে।

মঞ্চ সজ্জায় থাকা একজন শ্রমিকের সাথে কথা বললে তিনি জানান, তারা প্রায় ১০০ জন লোক এখানে কাজ করছেন। কাজ প্রায় শেষের দিকে। এখানে আনুমানিক দুই থেকে আড়াই কোটি টাকা খরচ হবে।

ডেকোরেটরের দায়িত্বে আছেন পুরান ঢাকার হোসনী দালানের পিয়ারু ডেকোরেটর। ডেকোরেটরের একজন শ্রমিকের সাথে কথা বলে জানা যায়, ডেকোরেটরের জন্য কাজ করছে প্রায় ৮০ জন শ্রমিক। তাদের কাজও প্রায় শেষের দিকে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তারা তাদের কাজ শেষ করতে পারবেন।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে উদ্যানের চারপাশ পরিষ্কার করা হচ্ছে। কাটা হচ্ছে ঘাস। এদিকে সম্মেলনকে সামনে রেখে উদ্যানের চারপাশে নেওয়া হয়েছে অতিরিক্ত নিরাপত্তা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর এক সদস্যের সাথে কথা বলে জানা যায়, উদ্যানের চারপাশে সিসি ক্যামেরা থেকে শুরু করে নেওয়া হয়েছে সব আধুনিক নিরাপত্তা।

সবমিলেই এবারের ২০তম জাতীয় সম্মেলনটি হবে আওয়ামী লীগের ইতিহাসের সব থেকে বড় এবং জাঁকজমকপূর্ণ সম্মেলন।

আরটিএনএন

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: