সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জগন্নাথপুরে নান্দনিক পূজা মন্ডপ দেখার জন্য মানুষের উপচে পড়া ভিড়

puja-news-daily-sylhet-0-um-copyওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ::
সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুরের সনাতণ ধর্মালম্বীদের প্রধান উৎসব শারদীয় দূর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে স্থানীয় পৌর শহরের বাসুদেব বাড়ী এলাকার কিছু তরুণদের সমন্বয়ে একটি নান্দনিক পূজা মন্ডপ গত ২ বছর যাবত তৈরী হয়ে আসছে। তাদের নান্দনিক পূজা মন্ডপটি পানির মধ্যে তৈরী হয়ে থাকে। শ্রোতাদের কাছে দৃষ্টি নন্দন করে তুলতে তাদের পূজা মন্ডপকে সাজানো হয় বিভিন্ন ধরনের আলোক সজ্জা, দৃষ্টি নন্দন দূর্গা প্রতিমা,দৃষ্টি নন্দন সাংস্কৃতিক অনুষ্টান স্থলও পানির মধ্যে তৈরী করা হয়েছে। পুকুরের মধ্যে অবস্থিত চার পাড়ে বসে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান উপভোগ করেন উপজেলার প্রত্যান্ত অঞ্চল থেকে আসা সর্বসাধারণ।

এসব আয়োজন গত ২ বছর যাবত আয়োজিত করে থাকে স্থানীয় জগন্নাথপুর পৌর শহরের বাসুদেব বাড়ীর “আমরা ক’জন” সংগঠনটি। সংগঠনটি ২০০০ সালের ফেব্রুয়ারী মাসের মাঝা-মাঝি “আমরা ক’জন” সংগঠন নামে প্রতিষ্টা হয়। প্রতিষ্টার পর থেকে নানান সমস্যার সম্মূখিন হতে হয়েছে । প্রতিষ্টাকালে কেউ এগিয়ে না আসলেই বর্তমানে সবাই তাদের কার্যক্রমে এগিয়ে এসেছেন। ক্ষুদ্র থেকে বর্তমানে বৃহৎ আকারে রুপ নিয়েছে এই সংগঠনটি। প্রতিষ্টা কালে ২০-২৫ জন সংগঠনের সাথে জড়িত থাকলেও বর্তমানে প্রায় দেড় শতাধিক নেতৃবৃন্ধ জড়িত রয়েছেন। তাদের পক্ষ থেকে পূর্বে সনাতণ ধর্মের বিভিন্ন পূজা উৎযাপন করলেও বৃহৎ রুপ ধারণ করায় ১৫-১৬ সালে বিশাল আকারে শারদীয় দূর্গোৎসব পালন করা হয়। এবং ভবিৎষতেও আরো বিশাল আকারের পালন করা হবে বলে সংগঠনের নেতৃবৃন্ধরা জানান। তাদের আয়োজনে মুগ্ধ হয়েছেন এলাকার শিশু থেকে বৃদ্ধরা। মুগ্ধ হয়ে তারা ভবিৎষতে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। তাদের আয়োজনের মধ্যে এবারের ও গতবছরের শারদীয় দূর্গা পূজার মন্ডপ তারা সাজিয়ে তুলেছেন পানির মধ্যে।

একদিকে পানি অন্যদিকে রঙ্গিন বাঁতি নিজেকে রাঙ্গিয়ে তোলার দৃশ্য দেখতে আসছেন অনেকেই। এমন দৃশ্য দেখে কার না তিপ্তি মিঠেনা। তাই বার বার ছুটে আসেন অনেকেই। হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনদের সাথে তাল মিলিয়ে পূজা মন্ডপ দেখতে আসেন মুসলমান ধর্মের অনেকেই। তাদের পূজা মন্ডপকে নান্দনিক করে তুলতে নানান ভাবে আলপনা করেছেন আলপনা শিল্পিরা। এবং পূজা মন্ডপে আসা সকল ধর্মালম্বীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান। অনুষ্টানটি সর্বসাধারণের উপভোগের স্বার্থে বিকেল ৩ ঘটিকা থেকে রাত ৮ ঘটিকা পর্যন্ত চলে সাংস্কৃতিক অনুষ্টান। অনুষ্টানে ¯্রােতাদের মধ্যে মন মাতানো গান গেয়ে উৎসাহ প্রদান করেন আগত শিল্পিরা। এবং পূজা মন্ডপের আশ-পাশ এলাকায় আলোক সজ্জা ও আলপনা করা হয়েছে। তাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিদিন প্রসাদ বিতরণ করা হয়।

এছাড়াও আমরা ক’জন সংগঠনের নেতৃবৃন্ধ প্রতিটি প্রধান প্রধান দিবসও পালন করে আসছেন। এমনকি হত দরিদ্র পরিবারের মেয়েদের বিবাহ্ বন্ধনে আবদ্ধে কোনো আর্থিক সমস্যা হলেও তারা এগিয়ে আসেন। তাদের কার্যক্রমে এলাকবাসী মুগ্ধ। তারা শুধু এসব কাজে আবদ্ধ নয় সমাজকে দায়বদ্ধতার হাত থেকে রক্ষা করার দায়িত্বও নিয়েছে।

আমরা ক’জন সূত্র জানায়- এবারের দূর্গা পূজার আয়োজনে আমদের সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকার টার্গেট ছিল। আমরা সেসব টার্গেট পূরণ করে পূজা আয়োজন করেছি। এবং আমরা মোটামুটি সাফল্য ইতি মধ্যে পেয়েছি। আমাদের সার্বিক খরচ প্রায় ৬ লক্ষ টাকা হবে। আমাদের আয়োজনে আমরা অন্যদের চেয়ে আলাদা কিছু করতে চাই। আমাদের এবারের আয়োজনে ডেকেরেটার্স,লাইটিং ও আলোক সজ্জায় প্রায় ২ লক্ষা টাকা খরচ হয়েছে। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্টান বাবত ১ লক্ষাধিক টাকা খরচ হয়েছে। প্রতিদিন প্রসাদ বিতরণ বাবত খরচ ২৫-৩০ হাজার টাকা গুনতে হয়। পূজা মন্ডপকে সাজিয়ে তুলতে রং ও আলপনায় ১৫ হাজার টাকা এবং দূর্গা প্রতিমা তৈরী করতে ৭২ হাজার টাকা ব্যায় করা হয়েছে।

আমরা ক’জন সংগঠনের সভাপতি নিলয় রঞ্জন বণিক জানান- আমরা প্রথমে অনেক বাঁধার সম্মূখিন হতে হয়েছিল কিন্তু সব বাঁধা পেরিয়ে আস আমরা সফলতার দোয়ারে উঠে এসেছি। আমাদের প্রধান উদ্যোশ হল সমাজের দায়বদ্ধতা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য এসব কার্যক্রম করে আসছি এবং ভবিৎষতেও করে যাব। সমাজকে ভাল কিছু উপহার দেওয়া হল আমাদের প্রয়াস। আয়োজন সম্পর্কে তিনি বলেন, আমাদের আয়োজনে আমরা অন্যান্যদের থেকে আলাদা কিছু দিতে চাই। তাই আমাদের গত দুই বছর যাবত পানির মধ্যে পূজা মস্ডপ নির্মাণ করি এবং সমাজের লোকদের ভাল কাজের প্রতি আগ্রহ থাকতে আমাদের এই অগ্যযাত্রা। অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে সবার সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: