সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘রোল নং-৩১১৩’ লাগানো বেঞ্চটি শুধু ফাঁকা

full_1013579832_1475908084নিউজ ডেস্ক: বৃহস্পতিবার এমসি কলেজের এম. সাইফুর রহমান ভবনে খাদিজার পরীক্ষা ছিল। সবাই গেছেন পরীক্ষা দিতে। কিন্তু খাদিজা নেই। ক্লাসের কারও মুখে নেই হাসি। রয়েছে আতঙ্কের ছাপ। অনেকেই খাদিজার শূন্য আসন দেখে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এমনকি ক্লাস শিক্ষকরাও চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি। পরীক্ষা শেষ হওয়ার একটু আগে হলে গিয়ে দেখা গেলো পিনপতন নীরবতা। খাদিজা পরীক্ষাতে নেই সেটি তারা মানতে পারছেন না।

খাদিজার রোল নং-৩১১৩। টেবিলের উপরে সাটানো কাগজে লিখা রয়েছে শুধু রোল নম্বরটি। কিন্তু বেঞ্চের স্থানটি ফাঁকা। একই বেঞ্চের পাশে প্রিয় সহপাঠীরা বসে পরীক্ষা দিচ্ছে। কিন্তু ৩১১৩ নং রোলের মানুষটি নেই। এই রোল নম্বরটি হচ্ছে এমসি কলেজের ক্যাম্পাসে বর্বরতার শিকার খাদিজা আক্তার নার্গিসের। সোমবারের ইসলামের ইতিহাস পরীক্ষায় এমসি কলেজের একাডেমিক ভবনে পরীক্ষার হলে উপস্থিত ছিলেন খাদিজা। সহপাঠীদের সঙ্গে পুরো তিন ঘন্টাই হলে কাটিয়েছে সে। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর ক্যাম্পাসেই তার উপর চালানো হয় বর্বরোচিত হামলা।

গেলো সোমবারের পরীক্ষায় খাদিজা উপস্থিত ছিলেন। পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর বান্ধবীদের জানিয়েছিল, ‘যাইরে বৃহস্পতিবার দেখা হবে।’ বৃহস্পতিবার এলো ঠিকই। কিন্তু খাদিজা উপস্থিত হতে পারলো না পরীক্ষার হলে। ওইদিনের হামলার পর থেকে হাসপাতালের বেডে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে খাদিজা।

ক্লাস শিক্ষক জানালেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকালের তিনটা ঘণ্টা কেটেছে খুব কষ্টে।’ বলেন, ‘পরীক্ষার সময় খাদিজার নামের পাশে লাল কলম দিয়ে লিখতে হয়েছে ‘অনুপস্থিত’। সেটি খুব কষ্টের বিষয়। একটি মেয়ের ওপর এভাবে হামলা চালানো খুব দুঃখজনক।’ পরীক্ষার হল থেকে বের হচ্ছিল খাদিজার সহপাঠীরা। তারা জানান, খাদিজার উপর হামলার ঘটনা তারা দেখেছেন। পরীক্ষা শুরু হওয়ার আগেও ক্যাম্পাসে এসেছিলো হামলাকারী বদরুল আলম। সে ওই সময় খাদিজার হাতে পানির বোতল তুলে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু খাদিজা তার পানির বোতল নেয়নি। এরপর পরীক্ষার হল থেকে বেরিয়ে যখন পুকুরপাড়ের দিকে হেঁটে আসছিল তখনই তার পথ আগলে দাঁড়ায় বদরুল। এ সময় খাদিজা পাশ কাটিয়ে চলে আসতে চাইলে থাপ্পড় দেয় বদরুল। এর পরপরই কোমর থেকে চাপাতি বের করে কোপাতে থাকে।

সহপাঠীরা জানায়, খাদিজা পরীক্ষার হলে নেই সেটি মানতে খুব কষ্ট হচ্ছে। তবে, এখন সবার একটাই প্রার্থনা- ‘সুস্থ হয়ে ফিরে আসুক খাদিজা।’

এদিকে, এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে খাদিজার উপর হামলার ঘটনার পর বহিরাগতদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। একই সঙ্গে গোটা ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রতিটি ফটকে করা হচ্ছে তল্লাশিও। এমসি কলেজের অধ্যক্ষ নিতাই চন্দ চন্দ্র জানিয়েছেন, এ ঘটনার পর ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। পাশাপাশি শিক্ষক ও ছাত্ররা এ ঘটনার প্রতিবাদে সোচ্ছার রয়েছেন। সূত্র: মানবজমিন

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: