সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের বিচারের আশ্বাসে আন্দোলন স্থগিত

sylডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
খাদিজা আক্তার নার্গিসের ওপর নৃশংসতার ঘটনায় সিলেট জেলা প্রশাসনের আশ্বাসে ১০ দিনের জন্য আন্দোলন স্থগিত করেছেন শিক্ষার্থীরা।

গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদানকালে জেলা প্রশাসক শিক্ষার্থীদের আশ্বাস দিলে তারা আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেন।

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের শাস্তির দাবিতে গত কয়েক দিন ধরে আন্দোলনে উত্তাল হয়ে ওঠেছে সিলেট নগরী।সকালে নগরীতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

এর মধ্যে খাদিজার নিজ ক্যাম্পাস সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীরা দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ কর্মসূচি ও প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দেন।

বেলা ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সিলেট জেলা প্রসাশকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে চার দফা সম্বলিত স্মারকলিপি প্রদান করেন।

তাদের দাবি অনুযায়ী দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে বদরুলের বিচারের আশ্বাস দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) সৈয়দ মোহাম্মদ আমিনুর রহমান। পরে শিক্ষার্থীরা আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত তাদের আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেন।

খাদিজা ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির মুখপাত্র কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী ফজিলাতুন্নেসা বলেন, ‘জেলা প্রশাসনের অশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়েছে। দাবি পূরণ না হলে আবারও কর্মসূচি দেয়া হবে।’

শিক্ষার্থীদের অন্য দাবিগুলো হল- খাদিজার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা, খাদিজার পরিবারকে আর্থিক সাহায্য করা ও ছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য পদক্ষেপ নেয়া।

উল্লেখ্য, গত সোমবার বিকালে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার নার্গিসের ওপর হামলা চালায় শাহাজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ও শাবি ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম।

এ সময় সে চাপাতি দিয়ে খাদিজার শরীরের বিভিন্ন স্থানে কোপাতে থাকে। এতে খাদিজা মাথা ও পায়ে গুরুতর আঘাত পান।পরে খাদিজার সহপাঠী ও স্থানীয়রা ধাওয়া করে বদরুলকে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে।

একই সঙ্গে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার মাথায় অস্ত্রোপচার করে সেলাই দেয়া হয়।

অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার ভোরে খাদিজাকে রাজধানী ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে আরেক দফা তার মাথায় অস্ত্রোপচার করা হয়।

বর্তমানে তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকরা খাদিজাকে ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রেখে অবস্থা আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন।

এদিকে ছাত্রলীগ নেতা বদরুল খাদিজার ওপর হামলার কথা স্বীকার করে গত বুধবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

বদরুল ছাতক উপজেলার মুনিরজ্ঞাতি গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে এবং খাদিজা সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ আউশা গ্রামের মাসুক মিয়ার মেয়ে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: