সর্বশেষ আপডেট : ২৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দুবাইয়ে ২৫ কেজি স্বর্ণ ফিরিয়ে দিয়ে পুরস্কৃত বাংলাদেশি লিটন

liton-malesia20161006161110প্রবাস ডেস্ক:
বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক ট্যাক্সিচালক সম্প্রতি দুবাই বিমানবন্দর থেকে চার যাত্রী নিয়ে ফিরছিলেন। গভীর রাতে যাত্রীরা নেমে যাওয়ার সময় ভুলক্রমে ট্যাক্সিতে রেখে যান ৩৫ লাখ দিরহাম মূল্যের ২৫ কেজি স্বর্ণ। পরে দুবাই সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। স্বর্ণ ফিরিয়ে দেয়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ ওই বাংলাদেশিকে পুরস্কৃত করেছে।

বাংলাদেশি ওই ট্যাক্সি চালকের নাম লিটন চন্দ্র নাথ পাল নেপাল। সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের অধীনে দুবাই ট্যাক্সি কর্পোরেশনের সঙ্গে কাজ করেন তিনি। লিটন বলেন, সম্প্রতি দুবাই এয়ারপোর্টের টার্মিনাল-১ থেকে দেইরার মুরাক্কাবাতে গভীর রাতে ৪ যাত্রীকে নিয়ে ফিরছিলেন তিনি। এ সময় ওই ঘটনা ঘটে।

লিটন চন্দ্র নাথ বলেন, ট্যাক্সিতে যাত্রীদের চারটি লাগেজ ছিল। রাত পৌনে তিনটার দিকে যাত্রীরা তাদের গন্তব্যে নেমে যান। আমি তাদেরকে ট্যাক্সি থেকে লাগেজ নামিয়ে দিতে সহায়তা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তারা আমার সহায়তা নেয়নি। পরে চালকের আসনে বসার পর তারা ভাড়া পরিশোধ করেন।

ট্যাক্সিতে স্বর্ণ রেখে যাত্রীরা নেমে গেছেন; তা তিনি বুঝতে পারেন ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট পর। লিটন বলেন, আমার ডিউটি একেবারে শেষের দিকে ছিল। এমন সময় দুবাই সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ কাস্টমার সাপোর্ট সেন্টার ও পুলিশের ফোন পাই। ফোনে জানতে চাওয়া হয়, আমার ট্যাক্সিতে কোনো যাত্রী ব্যাগ রেখে গেছেন কিনা। আমি বলেছিলাম, তল্লাশি করে জানাচ্ছি। পরে ধূসর রঙের একটি ল্যাপটপ ব্যাগ পাই; এর ভেতরে স্বর্ণ ছিল। আমি দ্রুত কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়টি অবগত করে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেছি।

তিনি বলেন, আমি সেখানে চারটি ভারী ও চারটি পাতলা স্বর্ণের বার দেখে বিস্মিত হয়েছিলাম। পরে কর্তৃপক্ষ সেগুলো পরিমাপ করে দেখেন, ব্যাগে ২৫ কেজি স্বর্ণ ছিল। স্বর্ণ ফেরত দেয়ার সময় ট্যাক্সির এক যাত্রী উপস্থিত ছিলেন। তিনি লিবিয়ার নাগরিক। যথাযথ বিধি অনুসরণের মাধ্যমে তাকে ওই স্বর্ণ ফেরত দেয়া হবে বলে দুবাই সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

যাত্রীরা তাকে পুরস্কৃত করেছেন কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে লিটন বলেন, আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

দুবাই সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ওই ট্যাক্সিচালককে পুরস্কৃত করেছে। লিটন বলেন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. ইউসুফ আল আলি আমাকে এক হাজার দিরহাম পুরস্কার দিয়েছেন। একই সঙ্গে এক বছরের জন্য বিনা ভাড়ায় আবাসনের ব্যবস্থা ও একটি প্রশংসাপত্র পেয়েছি। এ ছাড়া দুবাই রেলওয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মহসিন ইব্রাহিম ওই বাংলাদেশির এমন সততায় মুগ্ধ হয়ে ৫ হাজার সৌদি রিয়াল পুরস্কার দিয়েছেন।

লিটন বলেন, এ কাজের জন্য তার পরিবারের সদস্যরা গর্বিত। মা আমাকে আশীর্বাদ করে বলেছেন, আমি তাকে গর্বিত করেছি। আমার তিন বোনও এতে খুশি। ২০১০ সাল থেকে দুবাইয়ে ট্যাক্সি চালান লিটন। এখনো পরিণয়ের বন্ধনে বাধা পড়েননি তিনি।

সূত্র : গালফ নিউজ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: