সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বড়লেখার এবাদতকে এবার ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে ডাক

unnamedকুলাউড়া অফিস: বিপিএলের চতুর্থ আসরে দল পাওয়া রবি ফাস্ট বোলার হান্টের আবিষ্কার এবাদত হোসেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের বিসিবি একাদশে জায়গা পেয়েছেন মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার এবাদত হোসেন। আজ ৪ অক্টোবর মঙ্গলবার ওই প্রস্তুতি ম্যাচটি ঢাকার ফতুল্লা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।

সামনে উদাহরণ হয়ে আছেন রুবেল হোসেন ও শফিউল হোসেন। বাংলাদেশের ক্রিকেটে দুজনই পেসার হান্টের আবিষ্কার। আবার এ দুজনই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি অবিস্মরণীয় ম্যাচে জয়ের নায়ক। সেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই আন্তর্জাতিক ম্যাচের আবহ পাচ্ছেন এবারের রবি ফাস্ট বোলার হান্টের আবিষ্কার এবাদত হোসেন। বিসিবি একাদশের হয়ে সুযোগ পেয়ে এবার নায়ক হওয়ার অপেক্ষায় তিনি। নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে নজরে আসতে চান এ নবীন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলন করতে আসেন এবাদত। অনুশীলন শেষে তিনি বলেন, ‘গতকাল জাতীয় লিগ থেকে আমাকে জানানো হয় যে, আমি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে সুযোগ পেয়েছি। আলহামদুলিল্লাহ, তখন খুব ভালো লাগছিল। এখন আসার পর জাতীয় দলের সবার সাথে জিম করলাম, অনেক ভালো লাগছে। ইনশাআল্লাহ চেষ্টা করবো আগামীকাল নিজের সেরাটা দিয়ে পারফর্ম করার এবং সবার নজরে আসার।’
রবি পেসার হান্ট থেকে উঠে আসা এবাদত আন্তর্জাতিক তো দূরের কথা ঘরোয়া লিগেও এবারই প্রথম খেলছেন তিনি। তাই ইংল্যান্ডের মতো দলের বিপক্ষে সুযোগ পাওয়াকে অনেক বড় সুযোগ মানছেন এবাদত। নিজের সেরা পারফরম্যান্স করে নির্বাচকদের আস্থার প্রতিদান দিতে চান এ তরুণ।

‘ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে সুযোগ আমার জন্য অনেক বড়। এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক দলের বিপক্ষে খেলতে যাওয়া। কারণ, ঘরোয়া লিগেও আমার তেমন কোনো অভিজ্ঞতা নেই, প্রথম জাতীয় লিগে খেলছি। তো পেসার হিসেবে চেষ্টা করবো জায়গা মতো বল করার। কারণ ইংল্যান্ডের সবাই অনেক ভালো ব্যাটসম্যান, তাদের বিপক্ষে লড়াই করতে হলে আমাকে অনেক ভালো করতেই হবে।’
এর আগে বিপিএলের চতুর্থ আসরে দল পান রবি ফাস্ট বোলার হান্টের আবিষ্কার এবাদত হোসেন। প্লেয়ার্স ড্রাফটে তরুণ এ পেসারকে ডেকে নেয় রাজশাহী কিংস।

দলটিতে এবাদত ছাড়াও রয়েছেন ড্যারেন স্যামি, মোহাম্মদ সামির মতো পেসার। রবি ফাস্ট বোলার হান্টে অংশ নিয়ে গতির ঝড় তুলে সেরা হন বিমানবাহিনীতে চাকরিরত এবাদত হোসেন। ফাস্ট বোলার হান্টে সর্বোচ্চ গতি (ঘন্টায় ১৩৩ কিঃ মিঃ) তোলেন এ ডানহাতি বোলার। এর পর বিসিবির এইচপি কার্যক্রমে অংশ নেন তিনি। এইচিপির স্বল্পকালীন বোলিং পরামর্শক কোচ হয়ে আসা সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার আকিব জাভেদ এবাদতকে সম্ভাবনায় এক বোলার হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: