সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভারতে নিয়মিত চলছে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক!

155032_1নিউজ ডেস্ক: সকলের নজর এড়িয়ে ভারতের নানা প্রান্তে নিয়মিতই চলছে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক। তবে এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক সন্ত্রাসবাদীদের দমন করতে নয়, রোগীর প্রাণ বাঁচাতে। ভারতীয় চিকিৎসকরা নিয়মিত এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করছেন।

এই মুহূর্তে ভারতের একাধিক মেট্রো শহরের নামকরা হাসপাতালে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের অপেক্ষায় রয়েছে বহু রোগী। রয়েছে পাকিস্তানি রোগীও।

পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সাম্প্রতিক হানাহানিতে এই রোগী-চিকিৎসক সম্পর্কে কোনো চিড় ধরেনি। সুস্থ হয়ে যারা ছুটি পেয়েছেন, চলছে নিয়মিত যোগাযোগ।
ভারতীয় চিকিৎসক মহল অবশ্য আত্মবিশ্বাসী- সীমান্তে যাই হোক না কেন, মানুষের প্রাণ বাঁচানোর এই নজির বজায় থাকবে। প্রাণ বাঁচাতে ভারতীয় ডাক্তাররা নিয়মিত সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করতে থাকবেন।

চিকিৎসার জন্য পাকিস্তান থেকে প্রতি বছর ভারতে আসেন হাজারখানেক রোগী। চিকিৎসার জন্য সবচেয়ে বেশি ভিড় জমে দিল্লিতে।

দিল্লিসহ ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে লিভার প্রতিস্থাপন, কিডনি প্রতিস্থাপন, হার্টের অপারেশনসহ অন্যান্য চিকিৎসায় সাফল্যর ঘটনা রোগীর স্বজনদের মারফত পৌছে যায় পাকিস্তানেও। শনিবারও দিল্লির ইন্দ্রপ্রস্থ অ্যাপোলোতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আট জন পাকিস্তানি। লিভারের সমস্যা নিয়ে তারা হাজির হয়েছেন সেখানে।

লিভার প্রতিস্থাপন বিভাগের প্রধান সুভাষ গুপ্ত জানান, ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সাম্প্রতিক টানাপোড়েন রোগীদের সঙ্গে হাসপাতালের সম্পর্কে কোনো ছেদ টানতে দেয়নি। যারা আসতে পারছে না, হোয়াটসঅ্যাপ, ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখছে।

তিনি বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক দুই দেশের রাজনৈতিক বিবাদ। চিকিৎসকদের কাজ হচ্ছে প্রাণ বাঁচানো। রোগীদের নাগরিকত্ব কী তা নিয়ে চিকিৎসকেরা ভাবে না। রোগীর রোগটাই মূল উদ্বেগের কারণ থাকে। আজও একজনের অপারেশন হচ্ছে।

এর পর তালিকায় রয়েছে চেন্নাই ও মুম্বাই। অঙ্গ প্রতিস্থাপনের ক্ষেত্রে চেন্নাই ও মুম্বইতে দক্ষ চিকিৎসকদের জন্য হার্ট-লিভার-কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য পাকিস্তানি রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

যেমন, কোকিলাবেন ধীরুভাই আম্বানি হাসপাতালে হার্ট ও ফুসফুস প্রতিস্থাপনের জন্য অপেক্ষায় রয়েছে লাহোরের এক তরুণ। পাকিস্তান সরকার তার অপারেশনের জন্য ইতিমধ্যে ৫২ লাখ টাকা বরাদ্দ করেছে। দরকার একজন ব্রেন ডেড রোগী যার শরীর থেকে হার্ট ও ফুসফুস নিয়ে তা প্রতিস্থাপন করা যাবে।

সম্প্রতি সীমান্ত রেখা পেরিয়ে পাকিস্তানে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর কথিত সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে বিতর্ক থাকলেও চিকিৎসকদের এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: