সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

এ কেমন চুরি?

unnamed-7নবীগঞ্জ প্রতিনিধি::
নবীগঞ্জ শহরের মরিয়ম সুপার মার্কেটের নোহা কম্পিউটার এন্ড ফটোস্ট্যাট দোকান থেকে রহস্যজনক চুরি সংঘঠিত হয়েছে। সাটারে তালাবদ্ধ দোকান থেকে রহস্যজনকভাবে কম্পিউটার উধাও হলেও ঠিকঠাক আছে অন্যান মালামাল।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ ঘটনাটি ঘঠে। উক্ত প্রতিষ্ঠানটির মালিক পৌর এলাকার বাসিন্দা সাংবাদিক মোহাম্মদ শওকত আলী। তিনি দৈনিক সংগ্রামের নবীগঞ্জ প্রতিনিধি। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী মহলে প্রশ্ন জেগেছে এ কেমন চুরি..? তালাবদ্ধ দোকান থেকে কিভাবে কম্পিউটার উধাও হলো এনিয়ে চলছে নানা আলোচনা। অনেকের ধারনা নকল চাবি তৈরি করে চোর এ কাজ করেছে।

জানা যায়, নবীগঞ্জ শহরের মরিয়ম সুপার মার্কেটে প্রায় ১৪ থেকে ১৫টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এর মধ্যে প্রথমেই নবীগঞ্জের একমাত্র বিশ্ব সংবাদ পত্র বিতান। এর পাশেই নোহা কম্পিউটার এন্ড ফটোস্ট্যাট। সাংবাদিক মোহাম্মদ শওকত আলীর মালীকানাধীন উক্ত নোহা কম্পিউটার এন্ড ফটোস্ট্যাট এ দীর্ঘদিন যাবৎ রেনেসা অফসেট প্রেস এর সকল পোস্টার, লিপলেটের ডিজাইনসহ ই-মেইল, কম্পোজসহ যাবতীয় সব কাজ করে আসছিলেন। অন্যান্য দিনের মতো শওকত আলীসহ সকল ব্যবসায়রা রাত সাড়ে ৯টার ভিতর স্বস্ব প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে চলে যান বাড়ীতে। বুধবার সকাল ৯টার দিকে দোকানে এসে তালা খোলে দেখেন সব কিছু ঠিকটাক কম্পিউটার নেই। লেমেনেটিং মিশিন, ফটোস্ট্যাট মেশিন, প্রিন্টারসহ নগদ টাকা পয়সা সবই ঠিকঠাক আছে। নেই শুধু মনিটর, সিপিইউ, মাউজ, কি-বোর্ড।

স্থানীয়রা জানান, ওইদিন রাতে মরিয়ম সুপার মার্কেটের ২ ফটকের মধ্যে ১ ফটকে ছিল তালা ঝুলানো। করান অন্যান্য দিনের মতো সবাই চলে গেলেও আরব আলীর মালিকানাধীন একটি মেশিনারীজের দোকান থাকে খোলা। তিনি রাত সবার পরে যান।

মঙ্গলবার রাতেও সবাই চলেও যাওয়ার পরও তার কাজ বেশি থাকায় সবার পরে যান। তবে তার দাবী কাজ শেষ করে রাত ১০টার ভিতর দোকান বন্ধ করে মার্টেকের ফটকে তালা ঝুলিয়ে গেছেন। সে তাকা অবস্থায় মার্কেটে অন্য লোক প্রবেশ করেনি বলেও জানায় আরব আলী। তবে কিভাবে এ চরি সংঘঠিত হলো এনিয়ে নানা প্রশ্নে দেখা দিয়েছে। মাকের্টের ফটকে তালা, দোকানেও তালা কিন্তু ভিতর থেকে কিভাবে কম্পিউটার চুরি হলো এনিয়ে চলছে বিশ্লেষন।

অনেকেই ধারনা করছেন মাস্টার প্লান করে চুরি করা হয়েছে। কারণ শওকত আলীর কম্পিউটারের গুরুত্বপূর্ন অনেক ডুকুমেন্ট ছিল। তাছাড়া ৫/৬ বছরের কাজের অনেক ডিজাইন সংরক্ষিত ছিল । অনেকের ধারনা চাবি নকল করে তৈরি করে বানিয়ে এ কম্পিউটার চুরি করেছে। এ ঘটনায় আতংকে আছেন অন্যান্য ব্যবসায়ীরা।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: