সর্বশেষ আপডেট : ২০ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী এখন কাতারের ঘড়ি মেকার

emran20160928125241প্রবাস ডেস্ক:
পরিবারের আর্থিক অনটন দূর করার স্বপ্ন নিয়ে বিডিআর(বর্তমানে বিজিবি)-এ সিপাহি পদে ১১ বছরের চাকরি ছেড়ে ২০১৪ সালে কাতারে পাড়ি দেন ইমরান হোসেন।

এক বছর বিভিন্ন কোম্পানিতে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করলেও তেমন সুবিধা করতে পারেননি। অবশেষে বরিশালের এক বন্ধুর পরামর্শে ৩৪ বছর বয়সী ইমরান কাজ শুরু করেন ঘড়ি মেকার হিসেবে।

রাজধানী দোহায় জেদিদ ঢাকা রেস্তোরাঁর সামনে ছোট একটি দোকান নিয়ে এখন ঘড়ি মেকারের কাজ করেন তিনি। প্রতিমাসে আয় হয় ৫০ হাজার টাকারও বেশি। ঘড়ি মেকারের কাজ ছাড়াও ইমরানের রয়েছে হরেক রকমের মোবাইল কার্ড, মোবাইল ডলার কার্ড ও বিকাশের ব্যবসা।
তিনি জানান, ‘এই দেশে কাম করতে আইসি। ট্যাকা কামাইয়া দেশে পাডাইতে আইসি। বইস্যা থাকার সময় নাই, আপনিও সাংবাদিকগিরি বাদ দিয়া ট্যাকা কামান। ট্যাকা ছাড়া বাংলাদেশের মানুষের দাম নাই।’

সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এ সিপাহি পদে চাকরি করতেন ইমরান হোসেন। বাবার নাম আব্দুল মোতালেব। বাড়ি মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার এনায়েত নগর গ্রামে। পরিবারের বড় ছেলে সে। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে এক ভাই চাকরি করে সেনা বাহিনীতে, আরেক ভাই লেখাপড়া করে। দুই বোনের বিয়ে দিয়েছেন, নিজেও বিয়ে করেছেন। মেয়ে ৩য় শ্রেণিতে পড়ে।

পারস্য উপসাগরের তীরে মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম তেলসমৃদ্ধ দেশ কাতার। মাথাপিছু আয়ে পৃথিবীর অন্যতম ধনী দেশ। এখানে কর্মরত আছেন তিন লাখের বেশি বাংলাদেশি। এদের অনেকেই ব্যবসা-বাণিজ্যসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন।
কাতারের ব্যবসা-বাণিজ্যে অন্যতম খাত হচ্ছে কনস্ট্রাকশন ওয়ার্ক। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করে পরিবারের আরো চাহিদা মেটাতে ইমরান শেষমেষ হয়ে গেলেন ঘড়ির মেকার।

তিনি জানান, পরিবার পরিজন ছেড়ে প্রবাসে অমানুষিক পরিশ্রম করা চরম যন্ত্রণার। আগে জানতেন না, প্রবাসে এসে জেনেছেন। প্রবাসীরা পরিবারের জন্য কি পরিমান ত্যাগ স্বীকার করে তা অনুভব করার সময় কারো নেই। দেশ থেকে শুধু জানায়- টাকা চাই, বেশি বেশি করে টাকা পাঠাও।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: