সর্বশেষ আপডেট : ৩৭ মিনিট ১৮ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত কারিগরেরা

14468364_1740798772807375_981150233572442321_oবিশ্বনাথ প্রতিনিধি ::
হিন্দু ধর্মের সব চেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। পূজার আর মাত্র কিছু দিন বাকি থাকলেও বিশ্বনাথ উপজেলায় দুর্গা পূজার ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে। শেষ মুহূর্তে প্রতিটি পাড়ামহল্লায় চলছে প্রতিমা তৈরির ধুম। দিন-রাত সমান তালে করে প্রতিমা তৈরি করে ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। এখন শুধু বাকি রয়েছে প্রতিমায় রং তুলির কাজ। আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে রং তুলির কাজ শুরু হবে বলে প্রতিমা শিল্পীরা জানান। পূজা আসলেই কদর বাড়ে প্রতিমা শিল্পীদের । পূজা চলে গেলে তাদের কদর কমে যায়। তাদের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তণ হয় না। পান না কোনো সরকারি সাহায্য সহযোগিতা।
বিশ্বনাথ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ প্রায় শেষ। অনেক প্রতিমা শিল্পী বাড়িতে চলে গেছেন। দুই একদিন পর প্রতিমা শিল্পীরা এসে রং তুলির কাজ করবেন। উপজেলার আট ইউনিয়নে এবছরে ৩১টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।
এদিকে, উপজেলায় প্রায় ১১টি মন্ডপ ঝুকিপূর্ণ বলে জানা গেছে। গত বছরেও এসব মন্ডপ ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। তবে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এবছরও শান্তিপূর্ণভাবে পূজা পালন হবে বলে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানান।
প্রতিমা তৈরি শিল্পী জানান, এসব পূজামন্ডপে প্রতিমা সরবারহ করতে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। তাই খাওয়াদাওয়া শেষে আরাম করার সময়টুকুও তাদের নেই। তারা জানান, বাঁশ ও খড় দিয়ে প্রতিমা অবকাঠামো তৈরির পর মাটি দিয়ে প্রলেপ দিচ্ছেন শিল্পী। বছরের এই সময়টা ব্যস্ততায় কাটলেও অন্য সময় তাদের হাতে থাকে না কাজ। কিন্তু কঠোর পরিশ্রম করেও তাদের কাটাতে হয় মানববেতর জীবন। তাই অনেকেই বাধ্য হয়ে বাপ-দাদার এই পেশা টিকে রেখেছেন কোনো রকমে। কেহ কেহ এই পেশা ছেড়ে অন্য পেশায় চলে যাচ্ছে।
উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত আচার্য্য জানান, এবছরে ব্যক্তিগতভাবে ৭টি মন্ডপে ও সার্বজনীন ২৪টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। শান্তিপূর্ণভাবে ধর্মীয় উৎসব পূজা পালন করার জন্য তিনি আহ্বান জানান।
বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিতাভ পরাগ তালুকদার বলেন, উপজেলার প্রতিটি পূজামন্ডপে ৫শত কেজি করে চাল বরাদ্দ দেয়ার সিদ্বান্ত গৃহিত হয়েছে। পূজায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে উপজেলা প্রশাসনের সজাগ দৃষ্টি রয়েছে। এবার ৩১টি মন্ডপে পূজা উদযাপন হবে বলে তিনি জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: