সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রুট পারমিট ছাড়াই সাকিবকে বহন করেছিল মেঘনার হেলিকপ্টার

jনিউজ ডেস্ক:
মেঘনা এভিয়েশনের হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের নেপথ্যে নিহত শাহ আলমের সেলফি তোলা নয়, বরং পাইলট উইং কমান্ডার শফিকুল ইসলামের গাফিলতি ও হেলিকপ্টারটির যান্ত্রিক ক্রুটি দায়ী। এমন খবর প্রকাশের পর এবার বেরিয়ে এলো আরো চাঞ্চল্যকর তথ্য। যে হেলিকপ্টারটি সাকিবকে নিয়ে কক্সবাজার গিয়েছিল, সেটির ওই রুটে চলাচলেরই কোন অনুমতি নেই।

বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের একটি দায়িত্বশীল সূত্র মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সিভিল অ্যাভিয়েশনের অপর এক শীর্ষ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, মেঘনা এভিয়েশনের যে হেলিকপ্টারটি সাকিবকে বহন করেছে সেটির ঢাকা-কক্সবাজার রুটে চলাচলেরই অনুমতি নেই।

নিয়ম ভঙ্গ করে এক রুটের কপ্টার অন্য রুটে চালানো হয়েছে। রুট পারমিট ছাড়াই কপ্টারটিতে ইনানি বিচ পর্যন্ত যাত্রী পৌঁছে দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। বিষয়টিকে গুরুতর অপরাধ বলেই দেখছেন ওই কর্মকর্তা।

তিনি আরো জানান, হেলিকপ্টারটির অনুমোদিত পথ হচ্ছে ঢাকা-থেকে নারায়ণগঞ্জ মেঘনা ঘাট। এবং ঢাকা-থেকে বরিশাল রুটের অনুমতির জন্য আবেদন করা হয়েছিল। এখনো সেটি চূড়ান্ত হয়নি।

ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত দল কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আজই তা দাখিলের কথা থাকলেও ২ দিন সময় বাড়িয়ে নেয়া হয়েছে।

তদন্ত দলের এক কর্মকর্তা জানান, প্রাথমিকভাবে দাবি করা হয় সেলফি তুলতে গিয়েই হেলিকপ্টারটি দুর্ঘটনার শিকার হয়, কিন্তু বিষয়গুলো নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ এবং ঘনটাস্থল পরিদর্শন শেষে আমরা হেলিকপ্টারটির যান্ত্রিক ক্রটি এবং পাইলটের গাফিলতির কারণগুলো খতিয়ে দেখছি। আশা করছি, নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীকে খুঁজে বের করা সম্ভব হবে।

এ বিষয়ে মেঘনা এভিয়েশন লিমিটেডের সমন্বয়ক সাইফুল আলম টেলিফোন করলে তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। এছাড়া কোম্পানির চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া আমি কোন কথা বলতে পারবো না।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার সকালে সাকিবকে বহনকারী কপ্টারটি উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের রেজু খাল এলাকায় বিধ্বস্ত হয়। ইনানির হোটেল সি পার্লে সাকিবকে নামিয়ে ফেরার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শাহ আলম (৩২) নামের একজন নিহত এবং পাইলটসহ ৪জন আহত হন।পূর্বপশ্চিম

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: