সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কাছে টানে মৌলভীবাজারের মনু ব্যারেজের পাশে রাঙাউটি রিসোর্ট

rangauti-resort-1-768x427নিজস্ব প্রতিবেদক ::
মৌলভীবাজার জেলা শহর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত মনু ব্যারেজের পাশে নির্মিত রাঙাউটি রিসোর্টটি এবারের ঈদুল আজহায় যেনো নতুন সাজে সেজেছে। পুরো এলাকায় করা হয়েছে আলোকসজ্জা। নতুন করে রং লাগিয়ে রিসোর্টকে করা হয়েছে আরও আকর্ষণীয়। গ্রামীণ ডিজাইনে নির্মাণ করা হয়েছে ৪টি নতুন কটেজ।
সম্পূর্ণ গ্রামীণ পরিবেশে সাজানো এ রিসোর্টে রয়েছে আধুনিক সকল সুযোগ-সুবিধা। রির্সোটের অন্যতম আকর্ষণ হলো ভাসমান কটেজ। এখানে ৪ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকায় এসি,নন-এসি রুম বুকিং করা যায়। পর্যটকদের সুবিধার্থে রিসোর্টের ভেতরে তৈরি করা হয়েছে একটি রেস্টুরেন্ট।
এবারের ঈদের ছুটি কাটাতে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটসহ দেশের অনান্য এলাকা থেকে অসংখ্য ভ্রমণপিপাসুরা ঈদের আগে থেকেই রির্সোটে অগ্রিম বুকিং দিয়ে রাখেন।

প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন জেলা চায়ের রাজধানীখ্যাত মৌলভীবাজার পর্যটকদের পদভারে মুখরিত হয়ে উঠেছে। ঈদের আগেই জেলার বিভিন্ন আবাসিক হোটেল, টি রিসোর্ট, ইকো-কটেজ, বিটিআরআই রেস্ট হাউজ, গ্র্যান্ড সুলতান টি রির্সোট এণ্ড গলফ, দুসাই রিসোর্ট, টি হ্যাভেন রিসোর্ট, শ্রীমঙ্গল ইন, লাউয়াছড়া বাঙলো ও স্কাই পার্কসহ অন্যান্য রেস্টহাউজগুলোর অধিকাংশই অগ্রিম বুকিং হয়ে যায়। এজন্য এবার হাজার হাজার পর্যটকের আগমন ঘটে জেলার বিভিন্ন পিকনিক স্পটে।

rangauti-resort-2-768x427বাংলাদেশে পর্যটনের অপার সম্ভাবনাময় মৌলভীবাজার জেলা হচ্ছে প্রকৃতির অসীম সৌন্দর্য্যের আঁধার। পাহাড়, নদী, অরণ্য, হাওর আর সবুজ চা বাগানঘেরা এই জেলায় আছে আদিবাসীদের বৈচিত্র্যময় সংস্কৃতি।
এখানে আছে দিগন্ত জোড়া হাকালুকি ও হাইল হাওর। সারি সারি চায়ের বাগান। মাধবকুণ্ড ও হামহাম জলপ্রপাত। নতুনভাবে আবিষ্কৃত বড়লেখার আরও একাধিক ঝরণা। আছে পাখি ও মাছের অভয়ারণ্য বাইক্কা বিল। পশু, পাখি ও গাছপালার রাজ্য লাউয়াছড়া উদ্যান।

মৌলভীবাজারের এসব সৌন্দর্য্যের সাথে মিতালী গড়তে প্রতিবারের মতো এবারও ঈদ মৌসুমে পর্যটকেরা এসেছেন। কিন্তু সুন্দরকে উপভোগ করতে হলে সুন্দর জায়গায় থাকা দরকার। আর তাই রাঙাউটি রিসোর্ট যেনো পর্যটকদের প্রথম পছন্দ। কারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আর মনু ব্যারেজের লেকের তীরে গড়ে উঠেছে রাঙাউটি রিসোর্ট,যা ভ্রমণপিপাসু ও রুচিশীল সকলের বিশ্রামের পরম ঠিকানা।

রির্সোট এর ব্যবস্থাপক মনির আহমেদ জানান, এখানে যারা একবার এসে আনন্দ পেয়েছেন তারা বারবার আসেন। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য দেখতে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ প্রতিনিয়তই মৌলভীবাজারে আসেন এবং অনেকেই আমাদের রিসোর্টে থাকেন। আমাদের রিসোর্টে থাকতে হলে ০১৭২২-৯৪৩১০১ মোবাইল নাম্বারে বুকিং দেয়া যায়।
রাঙাউটি রির্সোট এর পরিচালক সৈয়দ মুনিম আহমেদ রিমন জানান,এবারের ঈদে প্রচুর পর্যটক মৌলভীবাজারে এসেছেন। এবারের ঈদে রিসোর্টের অধিকাংশ রুমই পারিবারিক বুকিং ছিলো। আমরা সবসময়ই পর্যটকদের সেবায় খুবই যত্নবান এবং বন্ধুসুলভ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: