সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেট বেতার কেন্দ্র জাতীয় সংস্কৃতিকেও সমৃদ্ধ করছে : তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ

sochibস্টাফ রিপোর্টার ::
তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ বলেছেন-গণমাধ্যমে শুদ্ধভাবে বাংলা ভাষা ব্যবহারের পাশাপাশি যিনি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করবেন তাকে অনেক বিষয়ে জানতে হবে, অনেক কিছুর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। কোনো ক্ষেত্রে দেখা যায় শুদ্ধ উচ্চারণ করে বাংলা বললেও অনেক সময় আঞ্চলিকতা চলে আসে। সে ক্ষেত্রে ঘোষক-ঘোষিকাদের সতর্ক থাকতে হবে। ভাষার জন্য একমাত্র আমরাই জীবন দিয়েছি। আমাদেরকে ভাষার মর্যাদা রক্ষা করতে হবে। ভাষা বিকৃত করা যাবে না। প্রমিত বাংলা ভাষা ব্যবহারের জন্য মহামান্য হাইকোটের্রও নির্দেশ রয়েছে।
১৫ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতি সকালে বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রে নতুন ঘোষক-ঘোষিকাদের ওরিয়েন্টেশন কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য সচিব এ কথাগুলো বলেন। সিলেট কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালক এস.এম. জাহিদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, আঞ্চলিক প্রকৌশলী অসিত ভূষণ দেব, বিভাগীয় তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক জুলিয়া যেসমিন মিলি এবং বিটিভি, সিলেট প্রতিনিধি আজিজ আহমদ সেলিম । অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপআঞ্চলিক পরিচালক মোঃ ফখরুল আলম, আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তারিক, মোহাম্মদ আব্দুল হক, উপ-বার্তা নিয়ন্ত্রক সঞ্জয় সরকার, সহকারী পরিচালক (অনুষ্ঠান) পবিত্র কুমার দাশ ও সুজন চক্রবর্ত্তী।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন শাবিপ্রবি কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা ক্বারী মোঃ মুতিউর রহমান এবং গীতা পাঠ করেন শ্রী রাকেশ শর্মা। প্রধান অতিথিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান সহকারী পরিচালক(অনুষ্ঠান) সুজন চক্রবর্তী, রেডিও এনাউন্সারস ক্লাব (র‌্যাংক)-এর পক্ষে নন্দিতা দত্ত, শাহনাজ ও ধ্রুব জ্যোতি দাস গৌতম, কর্মরত অনিয়মিত শিল্পী সংস্থার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম রহমান ফারুক, সেক্রেটারী সুরোজিত দেব তনু এবং শুক্লা রানী চন্দ।

mortoz-ahmed-caption15-09-20169-copyতথ্য সচিব মরতুজা আহমদ বলেন- সিলেট বেতার কেন্দ্র আমাদের স্থানীয় সংস্কৃতি ও শিল্পকে এগিয়ে নিচ্ছে এবং জাতীয় সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করছে। দেশের বাইরে বেতার বাংলাদেশের ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করে তুলছে। বাংলাদেশ বেতার শিল্পী ও কলা-কুশলী গড়ার সূতিকাগার বলে তিনি উল্লেখ করে বলেন, এমনি একটি গর্বিত প্রতিষ্ঠানের সাথে আপনারা সম্পৃর্ক্ত হয়েছেন। আপনাদের কাছে শুধু বাংলাদেশ বেতার নয় ভবিষ্যত প্রজন্মেরও অনেক প্রত্যাশা রয়েছে। তিনি বলেন, আপনারা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান পড়বেন এবং সংবিধানের চেতনায় উজ্জীবিত থাকবেন এবং সেই চেতনা নিয়ে তিনি ঘোষক-ঘোষিকাদের দায়িত্ব পালনের আহবান জানান। সম্প্রচার জগতের কর্মী হিসাবে তাদেরকে সব সময় সম্প্রচার নীতিমালা অনুসরণ এবং শুদ্ধ বাংলা উচ্চারণের পাশাপাশি বাচনভঙ্গি ও উপস্থাপনা শৈলীর বিষয়ে মনোযোগী হওয়ারও পরামর্শ দেন। তিনি আরো বলেন, আপনারা জানেন যে, বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে। বর্তমান সরকারের পলিসি রয়েছে, মিশন রয়েছে, ভিশন রয়েছে। আমাদের উন্নয়নের জন্য ভিশন-২০২১: আমরা নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছি। ভিশন-২০৪১ এ আমরা উন্নত দেশে পরিণত হব। আপনাদের কর্মনিষ্ঠা ও দেশপ্রেম বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। উদ্বোধনী পর্বের পর বাংলাদেশ বেতারের ইতিহাস, সম্প্রচার নীতিমালা, স্টুডিও মাইক্রোফোন ব্যবহার, ঘোষক-ঘোষিকাদের কর্মদায়িত্ব সম্পর্কে কর্ম অধিবেশন পর্বে বিস্তারিত আলোচনা উপস্থাপন করা হয়। সমগ্র অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন- সৈয়দ সাইমুম আঞ্জুম ইভান ও ফারজানা জাহান শারমিন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: