সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘কোরবানি তো আগেই হয়ে গেছে’

243376_1-1নিউজ ডেস্ক : ‘আমার জীবনে ঈদ আর কোরবানি কী? কোরবানিতো আগেই হয়ে গেছে। এখন আমার ছেলেকে জীবিত অথবা মৃত চাই’ বললেন, টাম্পাকো ফয়েলস এর কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় নিখোঁজ শ্রমিক মুরাদের বাবা তাহের আলী।
কারখানার ধ্বংসস্তুপ সরানোর কাজ করছেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। এর সামনেই স্বজনদের নিয়ে ছেলের জন্য অপেক্ষা করছেন তিনি। মঙ্গলবার কোরবানির ঈদের দিনেও এখানেই ছিলেন।

বুধবার দুপুরে তাহের আলীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মুরাদ হোসেন (২২) গত চার বছর ধরে টাম্পাকো ফয়েলস এর কারখানায় হেলপার হিসেবে কাজ করছিলেন। তাদের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামে।
তাহের আলী বলেন, ‘পেটের দায়ে ছেলেটি কারখানায় কাজ করতো। তিন ছেলের মধ্যে মুরাদ ছিল দ্বিতীয়। অভাবের সংসার। কোনও ছেলেকে বেশিদূর পড়াশুনা করাতে পারিনি ।বড় ছেলে বাবুল গাড়িচালক, ছোট ছেলে রাকিব স্কুলে পড়ে।’

তাহের আলী বলেন,‘আমার জীবনে ঈদ আর কোরবানি কী? কোরবানি তো আগেই হয়ে গেছে। এখন আমার ছেলেকে জীবিত অথবা মৃত চাই।’
তাহের আলী তার পরিবার ও স্বজনদের নিয়ে শনিবার থেকেই ছেলের খোঁজে টাম্পাকোর সামনে প্রতীক্ষা করছেন।
মুরাদের ফুফাতো বোন তানিয়া বলেন, ‘মুরাদ ঘটনার আগের দিন শুক্রবার ঈদের জন্য শপিং করে রেখেছিল। আমাদের পরিকল্পনা ছিল গ্রামের বাড়িতে গিয়ে সবাই মিলে ঈদ করবো। তার কেনা কাপড়গুলো এখনও তার খাটের ওপর রাখা আছে ।’

তানিয়া বলেন,‘মুরাদের পরিবারের জন্য, আমাদের জন্য কোনও ঈদ নেই।আমাদের জন্য ঈদ এসে থাকলে এখানে এসে মুরাদের জন্য অপেক্ষা করতাম না ।’
উল্লেখ্য, শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) ভোর ছয়টা পাঁচ মিনিটের দিকে গাজীপুরের টঙ্গীর টাম্পাকো প্যাকেজিং কারখানার পাঁচতলা ভবনের নিচতলায় বিস্ফোরণ ঘটে। এতে কারখানায় আগুন ধরে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ২৯টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। সেখানে শ্রমিকেরা রাতের শিফটে কাজ করছিলেন। বিস্ফোরণের পর ভবনটি আংশিক ধসে পড়ে। বুধবার পর্যন্ত এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৪ জন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: