সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৩৬ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

স্বেচ্ছায় নির্বাসনে ডেভিড ক্যামেরন

image-23468আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন এবার সংসদ সদস্যপদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। গত জুনে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে যাওয়ার গণভোটে হেরে তিনি প্রধানমন্ত্রিত্ব ছেড়েছিলেন। এবার পার্লামেন্ট থেকেও বিদায় নিলেন। ব্রিটেনের সব গণমাধ্যমেই আলোচিত বিষয় ক্যামেরনের এ পদত্যাগ।

সোমবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে তিনি জানান, নতুন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে যাতে কোনোধরনের বিভ্রান্তিতে না পড়েন সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এরআগে তিনি জানিয়েছিলেন, আগামী সাধারণ নির্বাচন পর্যন্ত তিনি পার্লামেন্টে থাকবেন। এখন তার ওই আসনে উপনির্বাচন হবে। পদত্যাগের কারণ হিসেবে ডেভিড ক্যামেরন বলেন, প্রধানমন্ত্রী থেকে পদত্যাগ করার পর পরিস্থিতির কারণেই তিনি সঠিকভাবে তার নির্বাচনী এলাকার প্রতিনিধিত্ব করতে পারছেন না। বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সম্ভব নয় ব্যাক বেঞ্চে এমপি হিসেবে দায়িত্বপালন করা।

থেরেসা মে ও তার সরকারের প্রতি সবধরনের সহযোগিতা থাকবে বলে আশ্বস্থ করেন তিনি। ক্যামেরন বলেন, আমি আশা করি থেরেসা মে সুন্দর একটা শুরু করবেন। আমার মনে হয় সে ব্রিটেনের জন্য একজন শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী হবেন।

গ্রামার স্কুল নিয়ে থেরেসা মের সাথে মতানৈকের কারণে পদত্যাগ করেছেন কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে জানান, আমার আজকের পদত্যাগ কোনভাবেই গ্রামার স্কুল ইস্যুর সাথে জড়িত নয়। একেবারেই সময়ের প্রয়োজনে আমি পদত্যাগ করেছি। উপনির্বাচনে তার ছেড়ে দেয়া আসনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে তিনি কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। নির্বাচনী এলাকার মানুষের জন্যই কাজ করবেন এবং মানুষের কল্যাণের জন্য চ্যারাটি ওয়ার্ক করবেন বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি গর্বিত, যে আমি ডেভিড ক্যামেরনের নেতৃত্বে তার সরকারের সাথে কাজ করতে পেরেছিলাম। তার নেতৃত্বে অনেক কিছু অর্জন করেছি। ক্যামরন শুধু অর্থনীতিকে স্থিতিশীল করেননি, সমাজব্যবস্থাকে ও পুনর্গঠন করেছেন।

প্রসঙ্গত, ডেভিড ক্যামেরন ১৯৭৪ সালে কনজারভেটিভের রাজনীতিতে যোগ দিয়েছিলেন। লন্ডনের ওয়েটিনি আসনে এমপি ছিলেন ২০০১ সাল থেকে। ৪৯ বছর বয়স্ক ক্যামেরন ২০০৫ সালে রক্ষণশীল দলের নেতা এবং ২০১০ সালে প্রধানমন্ত্রী হন। তিনি ছয় বছর প্রধানমন্ত্রিত্ব করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: