সর্বশেষ আপডেট : ৪৯ মিনিট ৪২ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সুনামগঞ্জে ফিরছেন মুকুটহীন সম্রাট

mukut-picঅহী আলম রেজা  ::
নুরুল হুদা মুকুট। সুনামগঞ্জের রাজনীতিতে বহুল আলোচিত নাম। ভাটি অঞ্চলের এক মুকুটহীন সম্রাট। সুনামগঞ্জের রাজনীতিতে আবারো ফিরছেন তিনি। মান-অভিমান, ক্ষোভ হতাশার পর এবার জনপ্রতিনিধিদের রায় নিতে মাঠে নেমেছেন স্ব-মহিমায়। জীবনভর জনপ্রতিনিধি তৈরি করলেও পড়ন্ত বেলায় এবার কড়া নাড়ছেন তাদের দরজায়। প্রতিদিন সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে দল বেঁধে দেখা করতে আসছেন কর্মী সমর্থকেরা। কেউ নিরবে আবার কেউ প্রকাশ্যে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন। আবার তিনিও চষে বেড়াচ্ছেন বিভিন্ন এলাকায়। সমর্থকদের বলছেন, ৪৭ বছরের রাজনৈতিক জীবনে নিজের জন্য কারো কাছে ভোট চাইনি। দলীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে চেয়েছে সেভাবে কাজ করেছি। দল এবার মুল্যায়ন করবে বলে আমার বিশ্বাস। সরকার ঘোষিত ডিসেম্বরের জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন তিনি।

নুরুল হুদা মুকুট দলের জন্য যেমন নিবেদিত, তেমনি দলীয় নেতাকর্মীদের সুখ দু:খ দেখেছেন সবার আগে। কর্মীদের জন্য সদর দরজা খুলে রেখেছেন রাতদিন। নিজের ভোগ বিলাসকে প্রাধান্য না দিয়ে দল, দলীয় কর্মীদের সংগঠিত করেছেন। পদ-পদবীর তোয়াক্কা করেননি কখনো। যখন যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তা পালন করেছেন। অসংখ্য কর্মী বাহিনি তৈরি করেছেন।
১৯৬৯ সালে গণ-অভ্যূত্থানের উত্থাল সময়ে স্কুলছাত্র মুকুট তৎকালীন পূর্বপাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। মিছিলে মিছিলে চেনা হয়ে যায় পুরো শহর। অধিকার আদায়ের যে কোন আন্দোলনের অগ্রসৈনিক হয়ে যান মুকুট।

১৯৭৪ সালে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন মনোনীত সাইফুর-বেলায়েত পরিষদে সর্বাধিক ভোট পেয়ে সহ-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। নির্বাচিত এ পরিষদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ। সম্ভাবনাময় তরুণ নুরুল হুদা মুকুট সেসময়ই জননেতা আব্দুস সামাদ আজাদের নজরে পড়েন। নির্বাচিত ছাত্রনেতারা সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কথা বলার জন্য ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে দেখা করেন। এই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ছিলেন অধ্যক্ষ আব্দুল মান্নান চৌধুরী, সর্বদলীয় মুক্তিসংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান ওবায়দুর রেজা চৌধুরী, বাবু অক্ষয় কুমার দাস, গোলাম রব্বানী, নুরুজ্জামান শাহী, ভি.পি. সাইফুর রহমান সামছু, জি.এস. বেলায়েত হোসেন, এ.জি.এস. নুরুল হুদা মুকুট। ছাত্রনেতাদের কথা শুনে বঙ্গবন্ধু কলেজের উন্নয়নের জন্য নগদ ২৫ হাজার টাকা প্রদান করেন।
১৯৭৫-এর ১৫ আগস্টের নিষ্ঠুরতম হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে ২৭ আগস্ট সুনামগঞ্জ শহরে ছাত্রলীগ ও ছাত্র ইউনিয়নের যৌথ উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলের নেতৃত্বে দেন মুক্তিযোদ্ধা ছাব্বির রহমান সোহেল, নূরুল হুদা মুকুট, ওমকার নাথ রায়, অভিজিত চৌধুরী, গোলাম রব্বানী, যুবলীগ নেতা ফখরুল, ছাত্রলীগ নেতা নুরুজ্জামান শাহী, এখলাছুর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা মতিউর রহমানসহ যুব ও ছাত্র নেতারা।

১৯৭৬ সালে আবদউস সামাদ আজাদ নুরুল হুদা মুকুটকে আওয়ামী-রাজনীতিতে সম্পৃক্ত করেন। এই মহান নেতার ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে মুকুট ক্রমশ মুজিবাদর্শে উজ্জীবিত হয়ে ওঠেন। নব্বইয়ের স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা পালন করেন মুকুট। এরপর আর তাকে পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ১৯৯৬ সালে দল ক্ষমতার আসার পর পররাষ্টমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদের খুব কাছে চলে আসেন নুরুল হুদা মুকুট। এ সময় যেমন দল দেখেছেন তেমনি সুনামগঞ্জের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। সরকার থেকে যে কোন উন্নয়ন আদায় করেছেন।
‘লিডার’এর সান্নিধ্য পেতে অনেকেই দ্বারস্থ হয়েছেন নুরুল হুদা মুকুটের। শুধু সিলেট সুনামগঞ্জ নয় গ্রামের পর গ্রাম ঘুরেছেন।

১৯৯৭ সালের ১৯ মার্চ সম্মেলনের মাধ্যমে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয়। তিন বছর পর সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি হওয়ার কথা থাকলেও ১৯ বছরেও তা সম্ভব হয়নি। সম্মেলনের মাধ্যমে পদের পরিবর্তন হওয়ার কথা থাকলেও সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগ যেন নিয়তির হাতেই ছেড়ে দিয়েছিল এ পরিবর্তনের দায়িত্ব। নিয়তি সে দায়িত্ব পালনও করছে। সুনামগঞ্জ আওয়ামী লীগের শীর্ষ দুটো পদ দীর্ঘদিন চলে ভারপ্রাপ্ত দিয়ে। কমিটি গঠনের এক বছরের মাথায় সভাপতি আবদুজ জহুর মৃত্যুবরণ করলে দায়িত্ব পান মতিউর রহমান। সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান সুনামগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র আইয়ুব বখত জগলুল। তবে ২০০১ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দল মনোনীত প্রার্থী দেওয়ান সামসুল আবেদীনের পক্ষে কাজ না করায় শাস্তি হিসেবে পদ হারান জগলুল। দায়িত্ব পান সহ-সাধারণ সম্পাদক নুরুল হুদা মুকুট।

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে সম্মেলনে নুরুল হুদা মুকুট গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পাওয়ার কথা থাকলেও ছিটকে পড়েন কমিটি থেকে। এ অভিমানে ঘরে বসে থাকলেও এবার জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নুরুল হুদা মুকুট রাজনীতিতে ফিরছেন ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: