সর্বশেষ আপডেট : ২০ মিনিট ১২ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কড়া প্রহরায় আজিমপুরে ‘জঙ্গি বাড়ি’

1473563010-600x330নিউজ ডেস্ক : কড়া প্রহরায় রয়েছে আজিমপুরে ২০৯/৫ নম্বর জঙ্গি বাড়িটি। শনিবার রাত থেকে ওই বাড়ির আশপাশের দোকান পাট বন্ধ করে দিয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এছাড়া ওই বাড়ির সামনে থেকে যাতায়াত করা অনেককে কিছুক্ষণ দাড়িয়ে জঙ্গি নিয়ে একে অপরের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করতে দেখা গেছে। পাশাপাশি সকাল থেকে বাড়িটির সামনে উৎসুক মানুষের ভীড় লক্ষ করা গেছে।
বিডিআর ২ নম্বর গেটে দাযিত্বরত এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত কোনো দোকান খোলা যাবে না। তল্লাশিসহ প্রয়োজনীয় তদন্ত শেষে দোকান খুলতে দেয়া হবে। অবশ্য গতকাল দোকানপাট বন্ধ থাকায় অনেক ব্যবসায়ী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তারা জানান, একদিন পরই ঈদ। দোকান খুলতে না পারলে কর্মচারির বেতন কিভাবে দেবেন। তাছাড়া আসবাবপত্র ও টেলিভিশন সার্ভিসিংয়ের দোকানীরাও পড়েছেন বিপাকে। তারা জানান, আজ (রোববার) তাদের মাল ডেলিভারি দেয়ার কথা। কিন্তু পুলিশ কোন দোকানপাট খুলতে দিচ্ছেনা। এ অবস্থা হলে মানুষের সঙ্গে দেয়া ওয়াদাও রক্ষা করা যাবেনা বলে জানান দোকানীরা।
দেখা গেছে, আজিমপুরের ওই জঙ্গি আস্তানা ঘিরে কৌতূহলী মানুষের ভিড়। এক সময়ের বিজিবি ২ নম্বর গেট থেকে সোজা মেডিকেল স্টাফ কোয়ার্টারে যাওয়ার মাঝামাঝি স্থানে রাস্তার পূর্ব পাশের সরু গলিতে প্রবেশ পথে পশ্চিমমুখি বাড়িটির অবস্থান। বাড়িটি দেখতে অনেকটা বড় লঞ্চের মতো। সামনে কয়েকটি দোকান ও দারুল হুদা ইন্টারন্যাশনাল ক্যাডেট নামে একটি মাদ্রাসা রয়েছে। গলির মুখে পুলিশ সদস্যরা বেঞ্চ পেতে বসে রয়েছেন। গলিতে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। অদূরে পুলিশের একটি বড় ও একটি ছোট ভ্যানগাড়ি রয়েছে। রাস্তা সংলগ্ন হওয়ায় যারাই এ পথ দিয়ে যাচ্ছিলেন তারা খানিকটা থেমে বাড়িটি দেখছিলেন। কেউ আবার নিশ্চিত হতে পুলিশকে জিজ্ঞাসা করছিলেন।

আবুর রহিম নামের স্থানীয় বাসিন্দা জানান, শনিবার রাতে গোটা এলাকায় কারফিউর মতো পরিস্থিতি ছিল। চারদিকে অসংখ্য পুলিশ অবস্থান করছিল। বাসা কাছাকাছি হলেও অভিযানের সময় বাসায় প্রবেশ করতে পারেননি। রাত ১১টায় বাসায় ঢোকেন।
উল্লেখ্য, শনিবার রাতে রাজধানীর আজিমপুরে পুলিশের অভিযানে এক জঙ্গি নিহত হয়। অভিযানে আহত হয় আরো তিন নারী ও পুলিশের পাঁচজন সদস্য। ওই বাসায় দুটি মেয়েশিশু এবং একটি ছেলেশিশুও ছিল। মেয়ে দুটির একটির বয়স ছয়-সাত বছর, আরেকটির বছর খানেক। ছেলেটির বয়স ১৩-১৪ বছর। তাদেরকে রাতেই ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ।
এর আগে, গত ২৭ আগস্ট নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ায় একটি বাড়ির তিনতলার একটি ফ্ল্যাটে অভিযানে কানাডাপ্রবাসী তামিম চৌধুরী ও তার দুই সহযোগী নিহত হন। ২৬ জুলাই কল্যাণপুরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযানে নয়জন নিহত হন। সেখানে আহত অবস্থায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

এছাড়া গত ১ জুলাই রাতে পাঁচ জঙ্গি গুলশান-২ এর ৭৯ নম্বর সড়কে হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় হামলা চালায়। তারা দেশি-বিদেশি ২০ নাগরিককে নৃশংসভাবে হত্যা করে। ওই রাতে অভিযান গিয়ে নিহত হন পুলিশের দুজন কর্মকর্তা। পরদিন সকালে সেনা অভিযানের মধ্য দিয়ে জঙ্গিদের ১২ ঘণ্টার জিম্মি সংকটের অবসান হয়। অভিযানে পাঁচ জঙ্গিসহ ছয়জন নিহত হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: