সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শুধু চা-বিস্কুটে আসামে ৭০ বছর কাটালেন ঢাকার মেয়ে

1473592929নিউজ ডেস্ক: ভাত-মাছ নয়, খাবার বলতে স্রেফ চা আর বিস্কুট। কালেভদ্রে এক-আধটু কমলালেবু। এইটুক খেয়ে টানা ৭০ বছর পার করেছেন তিনি। তাও কোনও অসুখবিসুখ নেই তার। বরং জীবনে ১০০ বছরের মাইলস্টোন ছুঁয়েও যে নতুন উদ্যমে কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন, তাতে অবাক না হয়ে উপায় নেই।

জন্ম ও বেড়ে উঠা ঢাকাতে। তবে বিয়ের পর পাড়ি জমান ভারতের আসামে। অরুণা মুখোপাধ্যায় নামের এই মানুষ এক জীবন্ত বিস্ময়। প্রতিটি কাজে তিনি চমকে দেন আশপাশের মানুষকে। যেমন, এই ১০০ বছর পেরিয়েও একটি বৃদ্ধাশ্রম চালু করার উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তিনি নিজেই যে সেটা চালাবেন এমনটাও খোলসা করে জানিয়েছেন।

তার আসল মনের জোরের পরিচয় তার খাদ্যাভ্যাসেই। টানা ৭০ বছর স্রেফ চা-বিস্কুট খেয়েই দিন যাপন। তবে এরও রয়েছে এক মর্মস্পর্শী কারণ।

ঢাকার মেয়ে অরুণার বিয়ে হয়েছিল অসমে। দেশভাগের আগে নিজের চোখে তিনি দেখেছেন, নিজের জন্মভিটে থেকে যাওয়া উদ্বাস্তু মানুষদের দিনের পর দিন অনাহারে দিনযাপন। সেদিন যতটা সাধ্যে কুলিয়েছে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। ঠোঙা তৈরি করে রোজগার বাড়িয়ে উদ্বাস্তুদের দিকে বাড়িয়ে দিয়েছিলেন সাহায্যের হাত।

তারপর গঙ্গা-পদ্মা দিয়ে বহু জল গড়িয়েছে। ছিটমহলের মীমাংসাও হয়ে গেছে এতদিনে। দেশভাগের যন্ত্রণা বইয়ের পাতা, উপন্যাস থেকে এখন সিনেমার ঠাণ্ডা ঘরে চালান হয়েছে। কিন্তু আজও যেন সাতচল্লিশের সেই দিনকালে খিদের জ্বালায় কেঁদে ওঠা শিশুদের কান্না কানে বাজে অরুণার। সেদিন মর্মে যে ব্যথা পেয়েছিলেন তিনি, তা আর কোনওদিনই কিছুতেই মেটেনি। তাই সেই সময় থেকেই মুখে আর দানাটি কাটেননি। ওই চা-বিস্কুট-কমলালেবুতেই দিন কাটছে!

দেশভাগ যখন নতুন প্রজন্মের কাছে ফিকে হয়ে আসা এক বিষয় আর তাত্ত্বিকদের কাছে ইতিহাসের হলদেটে পাতা ওলটানোর সামিল, তখন অরুণা এক মূর্তিমান ব্যথার প্রতিমা। যিনি সত্যি সত্যিই যেন দেশভাগের যন্ত্রণাকে গিলে ফেলেছেন বলে আর কোনও দিন সুখে খাবার খেতে পারলেন না। কিন্তু তাতে তো তার কোনও কিছু যায় আসে না। এমনকি, তার প্রতিবেশীরা জানাচ্ছেন, কোনও অসুখও নেই তার। ঘরের কাজ সব তিনি নিজেই করতে পারেন। ওই চোখের দৃষ্টি এখন একটু ক্ষীণ হয়েছে, এই যা।

অরুণার সন্তানদের অনেকেই আজ আর নেই, কেউবা বিদেশে। একা, তবু যেন অনেকের জন্যই নিজের জীবন বয়ে নিয়ে চলেছেন তিনি। ভারতীয় ডকুমেন্টারি পরিচালক ববিতা শর্মা তার জীবনকে ফ্রেমবন্দি করে রাখছেন। কে বলে দেশভাগের যন্ত্রণা আজ বিস্মৃতপ্রায়! প্রতিদিনের যাপনে সে যন্ত্রণা মিশিয়ে নিয়ে অরুণা নিজেই যেন কবে সকলের সামনে হয়ে উঠেছেন এক জীবন্ত ইতিহাস।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: