সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জামালগঞ্জে মাদকের করাল গ্রাসে ধ্বংসের পথে যুবসমাজ

madok_32545সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার ভাটি অঞ্চলের মধ্যে নিকটতম উপজেলা জামালগঞ্জ। জামালগঞ্জের সুস্থ সুন্দর পরিবেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে এখানকার কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। তাদের এই ক্ষুদ্র স্বার্থে দিনকে দিন নষ্ট হচ্ছে জামালগঞ্জের যুবসমাজসহ স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছাত্ররা। অবহেলিত হাওরবেষ্টিত উপজেলা জুড়ে রয়েছে ছোট বড় অনেক বাজার। ঐ সব বাজারগুলোতে প্রতিনিয়ত বসছে মদ, গাঁজার ও জোয়ার আসর।

জানা যায়, পাশর্^বর্তী উপজেলা তাহিরপুর, বিশম্ভরপুর থেকে জামালগঞ্জের কিছু ব্যবসায়ী দেশীয় মদ, গাঁজা এনে পাইকারী দরে এখানকার বাজারের ছোট ছোট ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে বিক্রি করে যুব সমাজে ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেয়। ঐসব মদ গাজা জামালগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী সাচনা বাজার থেকে উপজেলার নোঁয়াগাবাজার, ভীমখালীবাজার, মন্নানঘাটবাজার, সেলিমগঞ্জবাজার, গজারিয়াবাজার, বেহেলীবাজার লালবাজার থেকে কিছু কিছু গ্রামে গুলোতে ছড়িয়ে পড়ে, আবার কিছুকিছু ব্যবসায়ীরা সরাসরি নিজেই তার জোগান দেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন ভীমখালীবাজারে প্রকাশ্যে দিবালোকে জোয়ার আড্ডা বসে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকার খেলা চলে। এতে করে প্রতিনিয়ত এলাকায় চোরি ডাকাতির পরিমান বেড়েই চলেছে,ধ্বংস হচ্ছে এখানকার যুব সমাজ ছাত্র সহ বিভিন্ন মহলের লোকজন। এর প্রভাবে সর্বক্ষন বিরাজ করছে সমাজে অশান্তি অনিয়ম, লাঞ্চিত হচ্ছেন কত মা বাবা সহ ভাইবোনেরা। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, অনেক জোয়ারী খেলার ছলে তার তিলে তিলে গড়া সংসার সম্পত্তি বিনষ্ট করে নিজে পথে বসেছে। অনেক গাজাখোর মাতাল মদের নেশায় প্রান হাড়িয়েছে। আরও দেখা যায় প্রতিদিন সন্ধ্যা হলেই মদ্যপায়ী গাজাখোর মদ গাজা সেবন করে গালিগালাজ সহবিভিন্ন রকমের অসামাজিক কার্যকলাপ করে থাকে। দুঃখজনক হলেও সত্য যে মদ গাজা আর জোয়াই শেষ নয় হিরোইন,ফেনসিডিল সহ বিভিন্ন ধরনের ড্রাগের আগমন ঘটেছে।

এ ব্যাপারে এলাকায় বিভিন্ন মহল বার বার প্রশাসন সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধির কাছে অবগত করছেন। এ ব্যাপারে জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন বর্তমানে জামালগঞ্জ উপজেলায় মদ, জোয়া খেলা বন্ধের ব্যাপারে কঠুর ব্যবস্থা নিচ্ছি। চলতি মাসে আমার অফিসার বাদী হয়ে দুইটি মামলা করেছে।একটি এস আই আনোয়ার মামলা নং- ৮, আরেকটি এস আই জয়নাল আবেদীন মামালা নং ১০, সাচনা বাজার ও নোয়াগাঁও থেকে সরাসরি হাতে নাতে ভারতীয় মদ,এসি ব্যাল্ক ও অফিসার চয়েজসহ ধরে জেল হাযতে প্রেরন করেছে। জামালগঞ্জ উপজেলাসহ এলাকায় যুবক ছাত্রদের এই বিনষ্টের হাত থেকে রক্ষায় এগিয়ে আসার জন্য এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি সুশীল সমাজের প্রশাসনের কাছে আকুল আবেদন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: