সর্বশেষ আপডেট : ৪৪ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

খাটের তলায় ছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় মুক্তা

Big_Pearl1472127904নিউজ ডেস্ক:: পৃথিবীর সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক মুক্তা পাওয়া গেছে ফিলিপাইনের এক জেলের বাড়িতে। জানা গেছে দীর্ঘ ১০ বছরেরও বেশি সময় তিনি এটি লুকিয়ে রেখেছিলেন।

বিশাল আকৃতির এই মুক্তাটি ৩০ সে.মি. চওড়া এবং ৬৭ সে.মি. দীর্ঘ। ওজন প্রায় ৩৪ কেজি। আনুমানিক মূল্য প্রায় ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ফিলিপাইনের একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম পালাবন নিউজের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, পালাবন দ্বীপের পুয়ের্তো প্রিন্সেসার এক জেলে প্রায় ১০ বছর আগে মাছ ধরতে গিয়ে এটি পায়। বিশাল আকৃতির এ মুক্তার একটি অংশ তার নৌকার সঙ্গে আটকে যায়। এরপর তিনি পানিতে ডুব দিয়ে তা ছাড়িয়ে বাড়ি নিয়ে আসেন। মুক্তাটির মূল্য সম্পর্কে তার কোনো ধারণা ছিল না। তবে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে তিনি এটি তার কাছে রেখেছিলেন।

অন্য প্রদেশে স্থানান্তরিত হওয়ার সময় তিনি এটি তার ফুফু আইলেন সিনথিয়া ম্যাগায়-আমুরাওয়ের কাছে রেখে যান। যিনি স্থানীয় সরকারের অধীনে ট্যুরিজম অফিসার হিসেবে কাজ করেন। এ সম্পর্কে দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকাকে আইলেন সিনথিয়া বলেন, ‘এটি অনেক ভারী থাকার কারণে সে এটি আমার কাছে নিয়ে আসে।’

এখন তার অনুমতি নিয়ে শহরের পর্যটকদের আকর্ষণের উদ্দেশে এটি স্থানীয় মেয়র লুসিও বেয়নকে দেওয়া হয়েছে। এটি এখন পুয়ের্তো প্রিন্সেসার নিউ গ্রীন সিটি হলে প্রদর্শন করা হবে।
ম্যাগায়-আমুরাও জানান, তারা এখন এটির শুদ্ধতার বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের সাহায্য চান। তিনি বলেন, ‘আমরা ওয়েবসাইটে রিসার্চ করেছি কিন্তু এ ধরনের এবং এত বড় আকারের কোনো মুক্তা নিয়ে কোনো আর্টিকেল খুঁজে পাইনি। ভাতিজা বলেছে, সে যতবার মাছ ধরতে যেত মুক্তাটি স্পর্শ করে তারপর ঘর থেকে বের হতো।’

ম্যাগায়-আমুরাও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, ‘পুয়ের্তো প্রিন্সেসা আরেকটি সম্মানজনক উপাধি পেতে যাচ্ছে এবং নির্ভেজাল প্রমাণিত হলে এটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক মুক্তার অধিকারী।’ পাশাপাশি এ বিষয়ে তিনি রত্ন বিশারদদের সাহায্য চেয়ে বলেছেন, যদি এটি সত্যিই প্রাকৃতিক মুক্তা হয় তাহলে বর্তমানে যে মুক্তাটি সবচেয়ে বড় বলা হচ্ছে আয়তনে তাকেও এটি ছাড়িয়ে যাবে।

ম্যাগায়-আমুরাওয়ের তথ্য অনুয়ায়ী আগের মুক্তাটিও পালাবনে পাওয়া গিয়েছিল। স্থানীয় এক ডাইভার পালাবনের ব্রুক পয়েন্ট থেকে এটি ১৯৩৯ সালে উদ্ধার করেছিল। দ্য পার্ল অব লাও তিজু নামে পরিচিত এ মুক্তাটির ওজন ৬.৪ কেজি। ২০০৩ সালে এটির মূল্য ধরা হয়েছিল ৯৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।
তথ্যসূত্র : দ্য গার্ডিয়ান

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: