সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ১১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মীর কাসেমের ফাঁসির দিনের যতো ঘটনা

kashem-laa20160904015254নিউজ ডেস্ক: একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদণ্ড শনিবার দিবাগত রাত ১০টা ৩০ মিনিটে কার্যকর করা হয়। একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে এটি ফাঁসি কার্যকরের ষষ্ঠ ঘটনা। মীর কাসেমের ফাঁসির রায় কার্যকর করাকে কেন্দ্র করে শনিবার সারাদিন ঘটে অনেক ঘটনা। সেসব ঘটনা এখানে এক নজরে তুলে ধরা হল।

দুপুর ১টা : ফাঁসি কার্যকরের চূড়ান্ত মহড়া সম্পন্ন হয়।

দুপুর ১টা ৩০ মিনিট : অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক কর্নেল ইকবাল হাসান চৌধুরী ফাঁসির মঞ্চসহ আশে পাশের সার্বিক পরিস্থিতি পরিদর্শন করেন।

দুপুর ২টা : মীর কাসেম প্রাণ ভিক্ষা চাইবেন না` তাই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রাণালয় থেকে ফাঁসি কার্যকর করার জন্য নির্বাহী আদেশ কারাগারে এসে পৌঁছায় দুপুর ২ টায়।

বেলা ৩টা : কাশিমপুর কেন্দ্রিয় কারফটকের সামনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। সেখানে অতিরিক্ত র্যা ব, জেল পুলিশ, কমিউনিটি পুলিশ মোতায়ন করা হয়।

বেলা ৩টা ৩৫ মিনিট : ৬ টি মাইক্রোবাসে মীর কাসেমের পরিবারের ৩৮ সদস্য কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করেন।

বেলা ৩টা ৪৫ মিনিট : কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের আশাপাশের এলাকায় সব দোকানপাট বন্ধ করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নির্দেশ দেন, পাশাপাশি যানচলাচল এবং সাধারণের প্রবেশ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বিকেল ৪টা : আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গাজীপুরে ৪ এবং রাজধানী ঢাকায় ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়ন করা হয়।

সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিট : মীর কাসেমের পরিবারের সদস্যরা তার সাথে সাক্ষাত শেষে বেড়িয়ে আসেন। ভিতরে তারা ১ ঘন্টা ২৩ মিনিট অবস্থান করেন।

সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিট : আইজি প্রিজন বি:জে: সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন কারাগারের ভিতরে প্রবেশ করে ফাঁসি কার্যকরের সার্বিক বিষয় তদারকি করেন।

রাত ৮টা : তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয়ে ঢেকে দেওয়া হয় কাশিম পুর কারা ফটক। এ সময় সাংবাদিকদেরও দূরে সরিয়ে দেওয়া হয়।

রাত ৮টা ৪৫ মিনিট : গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার হারুন-অর-রশিদ কারাগারের ফিতরে প্রবেশ করেন।

রাত ৮টা ৫০ মিনিট : ৩ টি এম্বুলেন্স এবং সিভিল সার্জন কারাগারে প্রবেশ করে।

রাত ৯টা ৩০ মিনিট : গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম আলম কারাগারে প্রবেশ করেন। তার সঙ্গে দুজন ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন।

রাত ১০টা ৩ মিনিট : র‌্যাব ৪ এর ২ টি গাড়ি কারাগারে প্রবেশ করে।

রাত ১০টা ৩০ মিনিট : রাত ১০ টা ৩০ মিনিটে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়।

রাত ১১টা : আইজি প্রিজন বি:জে: সৈয়দ ইফতেখার উদ্দীন , ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি নুরুজ্জামান, জেলা প্রশাসক এস এম আলম একে একে গাজীপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বেরিয়ে আসেন।

রাত ১২টা ৩২ মিনিট : মীর কাশেম মরদেহ মানিকগঞ্জে উদ্দেশ্যে কারাগার থেকে ১১টি গাড়ির বহর বেরিয়ে যায়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: