সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথে ফেসবুক-ওয়াটস আপে চলছে কোরবানীর পশু কেনা বেচা

images-4মোহাম্মদ আলী শিপন::
প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটের বিশ্বনাথে ফেসবুক এবং ওয়াটর্সআপে চলছে কোরবানীর পশু কেনা-বেচা। তথ্য প্রযুক্তি যুগে এখন ফেইসবুক ও ওয়াটর্সআপে কোরবানীর পশু কেনা বেচা উপজেলায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। পশু কেনা-বেচা এখন গুরুত্ব পাচ্ছে ফেইসবুক ও ওয়াটর্সআপ। গত কয়েকদিন ধরে এমন মাধ্যমে পশু কিনেছেন অনেকই এমন খবর পাওয়া গেছে। ফলে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে এখন জমে উঠেনি কোরবানীর পশুর হাট। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঈদ করতে দেশে এসেছেন অনেক প্রবাসী। দেশে আসা প্রবাসীদের চাহিদা দেশি পশু।

আগামী ১৩ সেপ্টেবর ঈদুল আযহা পালিত হবে। তাই দেশে আসা প্রবাসীরা সকাল বেলা হলেই এলাকার বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে দেশি গরুর সন্ধানে ছুটে বেড়াচ্ছেন। কোরবানী পশু পছন্দ হলেই মোবাইলের মাধ্যমে ছবি তুলে ফেইসবুকে ও ওয়াটর্সআপের প্রবাসে থাকা অন্যান্য সদস্যদের কাছে প্রেরণ করে দিচ্ছেন তারা। আর পরিবারের সদস্যদের যে গরুটি সবার কাছে পছন্দ সেটিই তারা ক্রয় করছেন। উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে এখনও জমে উঠেনি কোরবানীর পশুর হাট। আবার অনেকেই নিজেদের পশু বিক্রয় করার জন্য নিজ নিজ ফেইসবুকে গরু ছবি পোষ্ট করছেন।

শনিবার বিকেলে উপজেলার পীরের বাজার গরুর হাট ঘুরে দেখা যায়, বাজারে প্রচুর গরু আসছে। কিন্তু কেনা-বেচা একবারেই কম। বিদেশি গরুর চেয়ে দেশি গরু বেশি এসেছে। তবে বাজারে গরু আসলেও ক্রেতার সংখ্যা কম। গত বারের চেয়ে এবছর গরুর দাম বেশি বলে ক্রেতারা জানান। ব্যবসায়ীরা এখনও ভারতীয় গরু নিয়ে আসতে পারেননি। দামের কারণে বাজারে গরু বিক্রি কম হচ্ছে বলে ধারনা করছেন অনেকেই। এ সপ্তাহের শেষে জমে উঠতে পারে পশুর হাট এমটাই ধারনা করছেন ব্যবসায়ীরা।

জানা গেছে, উপজেলায় প্রতিটি কোরবানীর হাটে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে ট্রাক যোগে গরু আসছে। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বাজারগুলোতে কোরবানীর পশুর হাট আনাচে কানাচে পূর্ণ হয়ে যায়। ছোট বড় মাঝারি সব ধরনের গবাদি পশু এসব বাজারে পাওয়া যায়। এর মধ্যে মাঝারি ও ছোট গরুর চাহিদা বেশি। তাই এমন আকারের গরুর দামও তুলনামূলক বেশি। গত এক সপ্তাহে উপজেলার গরুর বাজারে ২৫ হাজার থেকে শুরু করে দুই লাখ টাকা মূল্যের গরু দেখা গেছে। কোরবানী ঈদে উপজেলার মধ্যে পীরেরবাজার ও বিশ্বনাথবাজারে সব চেয়ে বেশি কোরবানি গরু বেচা কেনা হয়। বাজারের ইজারাদার ক্রেতাদের সুবির্ধাদে ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি আগেই সম্পন্ন করে রেখেছেন। বাঁশ দিয়ে সারিবদ্ধভাবে লাইন করা হয়েছে। মানুষ চলাচলের জন্য উভয় সারির মধ্যখানে বেশ জায়গা রাখা হয়েছে। আসন্ন ঈদুল আযহা ঈদ কে সামনে রেখে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে দেশে আসা শুরু করেছেন প্রবাসীরা।

মৌসুমি গরু ব্যবসায়ী রহিম মিয়া বলেন, চড়া দামে ২০টি গরু কিনেছেন। মোটামুটি একটি গরু কিনতে ৪০ হাজার টাকার দরকার। বেশি দামে গরু ক্রয় করে কম দামে বিক্রির করার সুযোগ নেই।

ব্যবসায়ী আবুল মিয়া জানান, এবার পশুর আমদানি যথেষ্ট থাকলেও এখনও তেমন বেচাকেনা হচ্ছে না। ক্রেতারা পশু দেখছেন এবং দরদাম করে ধারণা নিচ্ছেন। শহর এলাকার মানুষের পশু রাখার জায়গা না থাকায় তারা এখনো পশু কিনতে শুরু করেনি। গ্রাম এলাকার লোকজন আগেভাগেই কিনছেন তাদের পছন্দমতো কোরবানির পশু। তবে ফেইসবুক ও ওয়াটর্সআপেও চলছে গরু কেনা বেচা।

ক্রেতা মামুন মিয়া বলেন, ভারত থেকে গরু না আসা এবং গো-খাদ্যের দাম বেশি হওয়ায় এবার গরুর দাম চড়া। সদ্য দেশে আসা উপজেলার কারিকোনা গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফরহাদ জানান, ঈদ করতে স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে দেশে এসেছি। কোরবানীর জন্য দেশি গরু ক্রয় করতে আগ্রহী। এলাকা ঘুরে কয়েকটি গরু দেখেছি। আর এসব গরুর ছবি মোবাইলে তুলে ওয়াটর্সআপের মাধ্যমে প্রবাসে থাকা অন্যান্য সদস্যদের কাছে দিয়েছি। তবে একটি গরুর শনিবার পরিবারের সকলের পছন্দ হওয়ায় ৮০ হাজার টাকা ক্রয় করি। আর একটি গরু ক্রয় করবেন বলে তিনি জানান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: