সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

প্রতিটি জেলায় এক হাজার নিবেদিত প্রাণ স্কাউটার তৈরী করতে হবে —- মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া

DSC_0011 copyডেইলি সিলেট ডেস্ক  ::
ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বীরবিক্রম বলেছেন, স্কাউট মানে সেবা; স্কাউট মানে বন্ধু। দুর্যোগ মোকাবেলায় স্কাউটাদের ভুমিকা গুরুত্বপূর্ণ। স্কাউটিংয়ের মাধ্যমে দক্ষ নাগরিক গড়ে তুলতে হবে। গ্রামে-গ্রামে স্কাউটিং প্রশিক্ষণের ব্যবস্তা করতে হবে। তিনি বলেন, স্কাউটাররা সাধারণ নাগরিকের চেয়ে একধাপ এগিয়ে। বাংলাদেশ একটি দুর্যোগগ্রস্ত দেশ। আমাদের পানির সাথে বসবাস করতে হলে ও দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য প্রত্যেকে সাঁতার কাটা জানতে হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ স্কাউট সিলেট আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মশালার সমাপনী ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।
দুর্যোগ মোকাবেলা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনন্য ভূমিকার প্রশংসা করে মায়া বলেন, দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য জাতিসংঘ তাকে চ্যাম্পিয়ান অফ দ্যা আর্থ খেতাবে ভূষিত করেছে। সারা দেশের ১৯টি জেলায় বন্যা মোকাবেলা করতে হয়।
দাতা সংস্থা ইউএনডিপির প্রসংশা করে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডে ইউএনডিপির অনেক অবদান রয়েছে। বন্যা মোকাবেলা, পুলিশ আনসার, সেনাবাহিনী, সিপিবি ও স্কাউটাররা যথেষ্ট ভূমিকা পালন করে। প্রতিটি জেলায় কমপক্ষে এক হাজার নিবেদিতপ্রাণ স্কাউটার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তৈরি করতে হবে। সিলেট ভূমিকম্পের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা। সিলেটবাসীকে ভূমিকম্প মোকাবেলায় আরও সচেতন করে তুলতে হবে।
অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বন্যা মোকাবেলা করার জন্য আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সিলেট অঞ্চলে সাইক্লোন সেন্টার স্থাপনের ঘোষণা দেন।
বাংলাদেশ স্কাউটস, সিলেট অঞ্চলের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট ইকবাল আহমদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সিলেট অঞ্চলের কোষাধ্যক্ষ স.ব.ম দানিয়ালের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্কাউটের জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন) মো. শাহ্ কামাল। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. রিয়াজ আহমদ, ইউএনডিপির কান্ট্রি ডিরেক্টার (এ.আই) নিক্ বেরেসফর্ড, যুগ্ম সচিব মো. মহসিন, চৌধুরী, যুগ্ম সচিব সত্যব্রত সাহা, জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলাম।
এসময় উপস্থিত ছিলেন গোলাপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহসভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল কুদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদ মো. ইউনুছ চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য জাহেদুর রহমান জাহেদ প্রমুখ।
এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেটে ভূমিকম্পে ‘ইমার্জেন্সি সিমুলেশন আর্থকোয়াক এক্সারসাইজ’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জ্বল হোসেন চৌধুরী মায়া। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ভূমিকম্পের ভয়াবহতা রোধে সরকারের পাশাপাশি জনগণকেও অগ্রিম সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। সেই সাথে নিয়ম মেনে বহুতল স্থাপনা ও রাস্তাঘাট নির্মাণের আহ্বান জানান মন্ত্রী।
সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. জামাল উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্তণালয়ের সচিব মো. শাহ কামাল।
সিলেট, ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বাংলাদেশের অধিকাংশ জেলাই ভূমিকম্প ঝুঁকিতে আছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, অগ্রিম ব্যবস্থা গ্রহণ করলে ক্ষয়ক্ষতি অনেকাংশেই রোধ করা সম্ভব। সরকার দুর্যোগ মোকাবেলায় যথেষ্ট প্রস্তুত রয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, প্রতিটি জেলায় জেলা প্রশাসকের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণ ত্রাণ মজুত রাখা হয়েছে। সেমিনার শেষে ৩ দিনব্যাপী কর্মশালায় অংশ নেয়া প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেন মন্ত্রী।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: