সর্বশেষ আপডেট : ১১ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গণমাধ্যম পাল্টে দিয়েছে পাবনার খামারিদের দৃষ্টিভঙ্গি (ভিডিও)

cow-pনিউজ ডেস্ক: প্রচারণা, পরামর্শ আর প্রশিক্ষণ পাল্টে দিয়েছে পাবনার খামারিদের দৃষ্টিভঙ্গী। পশু মোটাতাজাকরণে প্রাকৃতিক উৎস ও সুষম খাবারের ওপর আস্থা রাখছেন তারা। গণমাধ্যমের ভূমিকায় আগামীতে পশু পালনে সচেতনতা আরও বাড়বে। খামারিদের সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা।

কয়েকদিন বাদেই কোরবানির ঈদ। পশু হাঁটে নেওয়ার আগে তাই খামারে খামারে ব্যস্ততা।

খামারিরা বলছেন কয়েক বছর আগেও পশু মোটাতাজায় নিষিদ্ধ ইনজেকশন, পাউডার আর ট্যাবলেট দিয়ে তারা পশু মোটাতাজা করত। তবে পাল্টেগেছে সেই মনোভাব।

গণমাধ্যমে প্রচারিত প্রতিবেদনে বেড়েছে সচেতনতা। তারা জেনেছেন ক্ষতিকর রাসায়নিক প্রয়োগের কুফল সম্পর্কেও।
গরু লালন-পালনে খর, সবুজ ঘাসসহ বিভিন্ন সুষম খাবারেই আস্থা রাখছেন এ অঞ্চলের খামারিরা। বলছেন প্রাকৃতিক উপায়ে পশু মোটাতাজা করার কারণে খরচ কিছুটা বেড়েছে। তবে প্রতিবেশি দেশ থেকে পশু আমদানি বন্ধ থাকায় লাভের আশা করছেন খামারিরা।

খামারিদের মধ্যে সচেতনতায় খুশি জেলা প্রাণিসম্পদ কমকর্তা।

পাবনার জেলা প্রাণিসম্পদ কমকর্তা আব্দুল গফুর বলেন, ‘এটার সুফল অত্যন্ত চমৎকার। কারণ খামারিরা যখন বুঝতে শিখেছে, জানতে পেরেছে তখন তারা ভূল পথ থেকে বেরিয়ে এসেছে। তারা সঠিক পদ্ধতি জানার কারণে এখন তারা উৎসাহিত হচ্ছে’।
জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের হিসাবের মতে এ বছর পাবনা জেলায় দেড় লাখ পশু লালন পালন করেছে খামারিরা।
সূত্র: যমুনা টিভি.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: