সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ৮ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিয়ে করলেন ইউপি চেয়ারম্যান

biye-550x310নিউজ ডেস্ক: কাশিয়ানীতে এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ১২ বছরের স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার নিজামকান্দি ইউপির নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসেন জুয়েলের বিরুদ্ধে এ বাল্যবিয়ের অভিযোগ উঠেছে।
জানা গেছে, উপজেলার নিজামকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাব্বত হোসেন জুয়েল পার্শ্ববর্তী ভ্যানচালক ঠান্ডু কাজীর মেয়ে ও নিজামকান্দি উচ্চবিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী আনিরা খানমকে বিয়ে করেন যা ১৪ আগস্ট আইনগত স্বীকৃতি দিতে নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে এফিডেভিট করেন। এ ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

নিজামকান্দি উচ্চবিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেছে, ভর্তি রেজিস্ট্রারে আনিরা খানমের জন্ম তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৪ ইং। সে অনুযায়ী বর্তমানে তার বয়স হয়েছে প্রায় ১২ বছর।

নিজামকান্দি উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জন কুমার মজুমদার জানান, ৯ আগস্টের পর আনিরা খানম আর স্কুলে ক্লাস করতে আসেনি।

ইউপি চেয়ারম্যানের বড় ভাই এম এম হোসেন (মুকুল) বাল্যবিয়ের কথা স্বীকার করে বলেন, সে যে কাজ করেছে মারাত্মক অন্যায় করেছে। তার উপযুক্ত বিচার হওয়া উচিত।

স্কুলছাত্রীর বাবা ঠান্ডু কাজী মেয়ের বিয়ের কথা অস্বীকার করে বলেন, ‘বিয়ে হয়নি, তবে চেয়ারম্যানের সঙ্গে বিয়ের কথা হচ্ছে।’
এদিকে, চেয়ারম্যানের সঙ্গে ওই স্কুলছাত্রীর প্রেমের সম্পর্কের কথা জানতে পেরে তার আগের স্ত্রী এক সন্তানের জননী হ্যাপী বেগম ঘটনার এক সপ্তাহ আগে ডিভোর্স দিয়ে বাবার বাড়িতে চলে গেছেন বলেও জানা যায়। সূত্র: যুগান্তর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: