সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৫ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কালো বিড়ালকে অশুভ বলা হয় কেন?

black-catচিত্র-বিচিত্র ডেস্ক ::

কালো বিড়াল বাড়ির আশপাশে দেখলেই মনে কু-ডাকতে শুরু করে। তাকে বাড়ি ছাড়া না করা অবধি শান্তি পান না অনেকেই।

শুধু তাই নয়, রূপকথার গল্প থেকে উপকথা, সব জায়গাতেই হয় প্রেতাত্মা অথবা অশুভ আত্মা বা ডাইনির ভূমিকায় অবতীর্ণ হয় কালো বিড়াল। কিন্তু কেন? নির্দোষ, নিরাপরাধ একটি পশুকে হঠাৎ অপয়া বানিয়ে ফেলার কারণ কী?

এর পিছনে কারণ খুঁজতে গিয়ে দেখা গেছে, আসলে পুরো ব্যাপারটাই একটা ভ্রান্ত ধারণার উপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে। বিড়ালের রং কালো হওয়ার সঙ্গে তার অশুভ হওয়ার কোনও সম্পর্কই নেই। পুরোটাই মূলত কুসংস্কার। কিন্তু কালো বিড়াল নিয়ে কীভাবে দানা বাঁধল এই বিশ্বাস?

প্রথমে কিন্তু কালো বিড়ালকে অশুভ হিসাবে মানা হত না। ৩০০০ খ্রিস্ট পূর্বাব্দে ইজিপ্সিয়ানরা বিশ্বাস করত কালো বিড়ালের মধ্যে কিছু আধ্যাত্মিক শক্তি রয়েছে। তারা কালো বিড়ালকে পুজোও করত।

কালো বিড়ালকে আঘাত করা বা তাকে মেরে ফেলাকে অশুভ হিসাবে গণ্য করত ইজিপ্সিয়ানরা। কিন্তু পরবর্তীকালে যখন এই বিশ্বাস ইউরোপে আসে তখন তার অর্থ বদলে যায়। বিশেষত স্পেনে কালো বিড়ালকে লোকে ডাইনি ও অশুভ আত্মা হিসাবে মানতে শুরু করে।

১৫৬০ সালে ইউরোপের বিভিন্ন উপকথায় কালো বিড়ালকে অশুভ হিসাবে দেখানোর চল শুরু হয়। ধীরে ধীরে মানুষের মধ্যে বিশ্বাস জন্মায়,
সত্যিই হয়তো কালো বিড়ালের মধ্যে লুকনো অপয়া কোনও শক্তি আছে।

কেন পোড়ো বাড়িতে কালো বিড়াল থাকলে তাকে ভূত-প্রেতের আস্তানা বলা হয়? এর পিছনে একটি গল্প আছে।

কালো বিড়ালকে যেহেতু অশুভ হিসাবে মানা হত তাই রাস্তাঘাটে তাকে দেখলেই তাড়ানো হত। একদিন ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে রাস্তা পার হচ্ছিলেন এক ভদ্রলোক। এই সময় একটি কালো বিড়াল চলে আসে রাস্তার মাঝে। সঙ্গে সঙ্গে তাকে ঢিল ছুড়ে মারতে থাকেন ওই ব্যাক্তি। বিড়ালটি একটি পোড়ো বাড়িতে ঢুকে যায়। সেই থেকে লোকের মনে ধারণা হয় ওই বাড়িতে প্রেতাত্মার বাস রয়েছে।

সেই বাড়িটি ছিল এক ভদ্রমহিলার। সকলে বিশ্বাস করতে শুরু করেন, বাড়িটিতে ডাইনিবিদ্যার চর্চা হয়। আর সেই কাজেই লাগানো হয় ওই কালো বিড়ালকে।

অনেক সময় গাড়ির সামনে দিয়ে বিড়াল, বিশেষত কালো বিড়াল চলে গেলে গাড়ি থামিয়ে দেওয়া হয়। অনেকে বেশ কিছুটা পিছিয়ে আসেন। কেউ আবার গাড়ির কাচে ক্রস চিহ্ন আঁকেন। কী ভাবে এল এই কুসংস্কার?

মনে করা হয়, আগেকার দিনে যখন গরুতে গাড়ি টানত তখন কালো বিড়াল রাস্তা পার করলে গরুদের মধ্যে একটা অস্থির ভাব লক্ষ করা যেত। সেই সময় গরুদের শান্ত করতেই কিছু ক্ষণের জন্য গাড়ি থামিয়ে দেওয়া হত। পরে সেই রেওয়াজ কুসংস্কারে পরিণত হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: